• বুধবার, ১১ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৬  |   ১৮ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

৪৪৩ জনকে ৮ কোটি ৮৮ লাখ টাকা দিলো শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়

  অর্থ-বাণিজ্য ডেস্ক

২৩ জুলাই ২০১৯, ১৫:২৭
পোশাক কর্মী
(ছবি: সংগৃহীত)

তৈরি পোশাক শিল্পে কর্মরত ৪৪৩ জন পোশাক কর্মীকে বীমাদাবি বাবদ ৮ কোটি ৮৮ লাখ টাকা প্রদান করেছে শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়।এছাড়া একই তহবিল থেকে একটি তৈরি পোশাক কারখানাকে ২৬ লাখ টাকা দেওয়া হয়। সব মিলিয়ে শ্রমিক ও কারখানাকে মোট ৯ কোটি ১৪ লাখ  টাকা দেওয়া হয়।  

শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে মঙ্গলবার (২৩ জুলাই) ভারপ্রাপ্ত শ্রমসচিব কে এম আলী আজম তৈরি পোশাক শিল্প মালিকদের সংগঠন বিজিএমইএ এবং বিকেএইএর প্রতিনিধিদের হাতে এ অর্থের চেক তুলে দেন।

বিজিএমইএর পক্ষ থেকে  সংগঠনটির পরিচালক নজরুল ইসলাম এবং বিকেএমইএর পক্ষ থেকে সংগঠনটির দ্বিতীয় ভাইস প্রেসিডেন্ট ফজলি শামিম এহশান এই চেক নেন। কেন্দ্রীয় তহবিলের মহাপরিচালক ডা. এ এম এম. আনিসুল আউয়াল এ সময় উপস্থিত ছিলেন ।

জানা গেছে, বিজিএমইএর অধীন কারখানার ২৯২ জন কর্মীকে ২ লাখ টাকা করে মোট ৫ কোটি ৮৪ লাখ টাকা দেওয়া হয়। এছাড়া বিজিএমইএর অধীন স্টার গার্মেন্টস লিমিটেড নামক একটি কারখানা বন্ধ হয়ে যাওয়ায় ওই প্রতিষ্ঠানটিকে ২৬ লাখ টাকা দেওয়া হয়। বিকেএমইএর অধীন  কারখানার কর্মীদের জন্য ৩ কোটি ৪ লাখ টাকা প্রদান করা হয়েছে।   

অনুষ্ঠানে শ্রম মন্ত্রণালয়ের ভারপ্রাপ্ত সচিব কে এম আলী আজম বলেন, ‘দুর্ঘটনাজনিত ও কর্মরত অবস্থায় স্বাভাবিক মৃত্যুজনিত কারণে কেন্দ্রীয় তহবিল থেকে  বীমার আওতায় শ্রমিকদের দুই লাখ টাকা করে আর্থিক সহায়তা দেওয়া হয়। আজকে আমরা বিজিএমইএ ও বিকেএমইএকে ৯  কোটি ১৪ লাখ টাকার বীমাদাবির চেক হস্তান্তর করলাম। এর মধ্যে বিজিএমইএকে দেওয়া হয় ৬ কোটি ১০ লাখ আর বিকেএমইএকে দেওয়া হয় ৩ কোটি ৪ লাখ।’

প্রতি শ্রমিকরা যাতে সময়মতো বেতনভাতা পান এবং এ নিয়ে যেন কোনো ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা না ঘটে সেদিকে বিশেষ নজর রাখতে ভারপ্রাপ্ত সচিব বিজিএমইএ ও বিকেএমইএর নেতাদের প্রতি আহ্বান জানান। আর গত ঈদে  শ্রমিকদের সময়মতো বেতনভাতা দেওয়ায় তিনি তাদের ধন্যবাদ জানান।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন সজীব 

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড