• মঙ্গলবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ২ আশ্বিন ১৪২৬  |   ২৮ °সে
  • বেটা ভার্সন

বিদায়ী সপ্তাহে সাড়ে তিন হাজার কোটি টাকা মূলধন হারিয়েছে ডিএসই

  অর্থ-বাণিজ্য ডেস্ক

১৮ মে ২০১৯, ১৩:২১
ডিএসই
ছবি : সংগৃহীত

পুঁজিবাজারে গত সপ্তাহে মোট পাঁচদিন শেয়ারবাজারে লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে চার কার্যদিবসেই শেয়ারবাজারে দরপতন হয়েছে এবং অর্ধেকের বেশি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের  দাম কমেছে। শেষ সপ্তাহে দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) প্রায় সাড়ে তিন হাজার কোটি টাকা বাজার মূলধন হারিয়েছে। ফলে টানা সাত সপ্তাহ ধরে ডিএসইর বাজার মূলধন কমার পরিমাণ অব্যাহত রয়েছে। 

শেষ সপ্তাহে ডিএসইর বাজার মূলধন ৩ লাখ ৮৪ হাজার ৮৭৮ কোটি টাকায় দাঁড়িয়েছে। তার আগের সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসে যার পরিমাণ ছিল ৩ লাখ ৮৮ হাজার ৫৯২ কোটি টাকা। সে হিসাবে এক সপ্তাহে ডিএসইর বাজার মূলধন ৩ হাজার ৭১৪ কোটি টাকা কমেছে।    

এ সময়ব্যাপী  ডিএসইতে লেনদেনের অংশ নেওয়া অর্ধেকের বেশি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম কমেছে। লেনদেন হওয়া ৩৫০টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের মধ্যে আগের সপ্তাহের তুলনায় ১২২টির দাম বেড়েছে, কমেছে ১৯৫টির আর দাম অপরিবর্তিত রয়েছে ৩৩টির।

আগের সপ্তাহে ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স কমে ১০ দশমিক ৯২ পয়েন্ট বা  দশমিক ২১ শতাংশে ছিল। আর শেষ সপ্তাহজুড়ে সেটি কমেছে  ৪৫ দশমিক শূন্য ৫ পয়েন্ট বা দশমিক ৮৫ শতাংশ। 

বাকি দুটি মূল্যসূচকের মধ্যে আগের সপ্তাহের তুলনায় গত সপ্তাহে ডিএসই- ৩০ কমেছে ৩৩ দশমিক ১৪ পয়েন্ট বা ১ দশমিক ৭৯ শতাংশ। আগের সপ্তাহে এ সূচকটি ১৯ দশমিক ২৩ পয়েন্ট বা ১ দশমিক শূন্য ৩ শতাংশ কমে। 

আর ডিএসই শরিয়াহ্ সূচক শেষ সপ্তাহে ২২ দশমিক ৭৪ পয়েন্ট বা ১ দশমিক ৮৬ শতাংশ কমেছে। তার আগের সপ্তাহে এ সূচকটি ৪ দশমিক ৬৭ পয়েন্ট  বা দশমিক ৩৮ শতাংশ কমে।

অন্যদিকে ডিএসইতে বিদায়ী সপ্তাহে গড়ে ২৯২ কোটি ৩০ লাখ টাকা লেনদেন হয়েছে। আগের সপ্তাহে প্রতিদিন গড়ে ৪২৮ কোটি ৯৬ লাখ টাকা লেনদেন হয়। সে হিসাবে প্রতি কার্যদিবসে গড়ে ১৩৬ কোটি ৬৬ লাখ টাকা বা ৩১ দশমিক ৮৬ শতাংশ লেনদেন কমেছে । 

এক সপ্তাহে ডিএসইতে মোট ১ হাজার ৪৬১ কোটি ৫১ লাখ টাকা লেনদেন হয়েছে। আগের সপ্তাহে যার পরিমাণ ছিল ২ হাজার ১৪৪ কোটি ৮১ লাখ টাকা। সে হিসাবে মোট ৬৮৩ কোটি ৩০ লাখ টাকা বা ৩১ দশমিক ৮৬ শতাংশ লেনদেন কমেছে। 

বিদায়ী সপ্তাহে ‘এ’ ক্যাটাগরিভুক্ত কোম্পানির শেয়ারের দখলে মোট লেনদেনের ৮৪ দশমিক ২৩ শতাংশ ছিল। ‘বি’ ক্যাটাগরিভুক্ত কোমানির দখলে ৯ দশমিক ৯৭  শতাংশ, ‘এন’ ক্যাটাগরিভুক্ত কোম্পানির দখলে ৪ দশমিক ৯১ শতাংশ শেয়ার এবং ‘জেড’ ক্যাটাগরিভুক্ত কোম্পানির দখলে  দশমিক ৮৯ শতাংশ শেয়ার ছিল।   

ডিএসইতে সপ্তাহজুড়ে টাকার অঙ্কে ফরচুন সুজের শেয়ার সবচেয়ে বেশি লেনদেন হয়েছে। এ সময় কোম্পানিটির ৭৩ কোটি ৩৪ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে; যা সপ্তাহজুড়ে হওয়া মোট লেনদেনের ৫ দশমিক শূন্য ২ শতাংশ।

দ্বিতীয় স্থানে থাকা ব্র্যাক ব্যাংকের ৬৭ কোটি ৩১ লাখ টাকা শেয়ার লেনদেন হয়েছে, যা সপ্তাহের মোট লেনদেনের ৪ দশমিক ৬১ শতাংশ। আর তৃতীয় স্থানে থাকা বাংলাদেশ শিপিং করপোরেশন ৩৯ কোটি ৪৪ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন করেছে। 

পরবর্তী স্থানে থাকা কোম্পানিরগুলোর মধ্যে রয়েছে- পাওয়ার গ্রিড কোম্পানি, ওয়াইম্যাক্স ইলেকট্রোড, মুন্নু সিরামিক, এস্কয়ার নিট কম্পোজিট, স্কয়ার ফার্মাসিউটিক্যাল, আইএফআইসি ব্যাংক এবং ইন্দো-বাংলা ফার্মাসিউটিক্যালস।

ওডি/টিএফ

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মো: তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড