• বুধবার, ১১ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৬  |   ২৭ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

জয়পুরহাটে খরচ কম হওয়ায় বাড়ছে আউশ ধান চাষ

  জয়পুরহাট প্রতিনিধি

২৯ জুলাই ২০১৯, ২২:০৭
আউশ ধান
জয়পুরহাটে হচ্ছে স্বল্প খরচে আউশ ধান চাষ (ছবি : দৈনিক অধিকার)

বোরো ও আমনের মাঝামাঝি প্রায় সাড়ে তিন মাস ফসলি জমি অনাবাদী পড়ে থাকতো। এ বছর সেই জমি গুলোতে হচ্ছে আউশের আবাদ। সরকারিভাবে কৃষি উপকরণ সহায়তা পাওয়ায় ও উৎপাদন খরচ কম হওয়ায় অনেক কৃষকই আউশ চাষে আগ্রহী হচ্ছেন এ জেলায়। ফলে দিনদিন বৃদ্ধি পাচ্ছে আউশ ধানের চাষ। 

জয়পুরহাট সদর উপজেলার সোটাহার গ্রামের কৃষক আকতার হোসেন জানান, এ বছর আমি এক বিঘা জমিতে আউশের চাষ করেছি। সরকার আমাকে বীজ সার দেওয়াতে আমি এই আউশের চাষ করতে পেরেছি। তবে আমাকে যদি আরও বেশি প্রণোদনা দিত তাহলে আমি আরও বেশি জমিতে এর চাষ করতে পারতাম।

ধারকী গ্রামের কৃষক আনোয়ার হোসেন বলেন, আমাদের এই জমিগুলো প্রায় পরেই থাকতো, আর সরকারের সহযোগিতার কারণেই আজকে আমরা এই জমিগুলোতে আউশের চাষ করতে পারছি। তবে এই আউশ চাষে, সেচ কম লাগে, ওষুধ, সার ও কম প্রয়োগ  হয়। এ জন্যই আউশ চাষ অনেক লাভজনক ফসল। তাই আমরা এর চাষ দিনদিন বৃদ্ধি করছি।  

সদর উপজেলা কৃষি বিভাগের উপ সহকারী আমিনুল ইসলাম দৈনিক অধিকারকে জানান, আমরা নিয়মিত কৃষকদের পরামর্শ প্রদান করা তাদের জমিতে গিয়ে জমির পরিচর্যার বিষয়সহ সার্বিক বিষয়ে আমরা তাদের খোজ খবর নিচ্ছি। সেই সঙ্গে জমিতে ফলন বেশি হওয়া, রোগ বালাইয়ের হাত থেকে কিভাবে রক্ষা পাওয়া যায় সেই বিষয়গুলো নিয়ে তাদেরকে প্রতিনিয়তই পরামর্শ প্রদান করে যাচ্ছি।   

জয়পুরহাট কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ পরিচালক সুধেন্দ্রনাথ রায় দৈনিক অধিকারকে বলেন, গত বছর জয়পুরহাট জেলায় আউশের চাষ হয়েছিল ২৯০ হেক্টর জমিতে। আর এ বছর চাষ হয়েছে ৪৯০ হেক্টর জমিতে। যা গত বছরের তুলনায় এবার ২শ হেক্টর জমিতে আউশের চাষ বৃদ্ধি পেয়েছে। তিনি বলেন, আউশ ধানের উৎপাদন খরচ তুলনামূলক  কম। আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় ভালো ফলন ও লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়ে যাওয়ার আশা করছেন তিনি। এ জেলার ৫৮৬ জন কৃষককে প্রণোদনা হিসেবে দেওয়া হয়েছে সার বীজ ও নগদ অর্থ। 

ওডি/এএসএল

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন সজীব 

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড