• রবিবার, ২৪ মার্চ ২০১৯, ১০ চৈত্র ১৪২৫  |   ২৪ °সে
  • বেটা ভার্সন

পাইকগাছায় আমের বাম্পার ফলনের সম্ভাবনা

  পাইকগাছা প্রতিনিধি, খুলনা ২০ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১২:৪৪

আম গাছ
মুকুলে মুকুলে ভরে গেছে আম গাছ (ছবি : দৈনিক অধিকার)

খুলনার পাইকগাছায় ঋতুরাজ বসন্তের শুরুতেই মুকুলে মুকুলে ভরে গেছে আম গাছ। চারিদিকে বইছে মৌ মৌ গন্ধ। মুকুলের সমাহার বলে দিচ্ছে এ বছর আমের বাম্পার ফলন হবে।

উপজেলা কৃষি অফিসের সূত্রমতে, চলতি বছর উপজেলায় ৪১৫ হেক্টর জমিতে আমের চাষ হয়েছে। যার মধ্যে হরিঢালীতে ১২০ হেক্টর, গদাইপুরে ১০০ হেক্টর, কপিলমুনিতে ৯৫ হেক্টর ও রাড়ুলীতে ৭০ হেক্টর। এ ছাড়া চাঁদখালী ও গড়ইখালীসহ অন্যান্য স্থানে ৩০ হেক্টর জমিতে আমের চাষ হয়েছে। 

এ ছাড়া বাণিজ্যিক ভিত্তিতে শতাধিক আমের বাগান রয়েছে। যার মধ্যে গদাইপুরে ৫০টি, কপিলমুনিতে ২০টি ও হরিঢালীতে ২০টি। উন্নত জাতগুলোর মধ্যে রয়েছে আম্রপালী, হাড়িভাঙ্গা, ল্যাংড়া, আলপান্স, হিমসাগর ও গোপালভোগ অন্যতম। সাধারণ দেশীয় জাতের মধ্যে রয়েছে, লতা, সাদা লতা, ফজলী, চিনি লতা ও চোষা অন্যতম। 

সূত্র মতে, অত্র এলাকা আম চাষের জন্য অত্যন্ত উপযোগী ও উৎপাদনের জন্য সমৃদ্ধ। ফলদ বৃক্ষের জন্য অত্র এলাকার বিরাশী গ্রামের অখিল বন্ধু ঘোষ ও সোনাতনকাটী গ্রামের সাখাওয়াত হোসেন জাতীয় পুরস্কার লাভ করেছেন। প্রতিবছর উৎপাদিত আম এলাকার চাহিদা পূরণ করে দেশের বিভিন্ন স্থানে সরবরাহ করে থাকে। এবছরও আমের বাম্পার ফলনের সম্ভাবনা রয়েছে বলে সংশ্লিষ্ট কৃষি বিভাগ ও আম চাষিরা ধারণা করছেন। গদাইপুর গ্রামের আম চাষি মোবারক ঢালী জানান, এ বছর সম্পূর্ণ আমের গাছ মুকুল ভরে গেছে। আশা করছি ভাল ফলন হবে।

উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবিদ এএইচএম জাহাঙ্গীর আলম জানান, আম একটি পুষ্টিসমৃদ্ধ জনপ্রিয় ফল। গ্রীষ্ম মৌসুমে আমের প্রচুর চাহিদা থাকে। আম সাধারণত অনাবৃষ্টি, ফল ছিদ্রকারী পোকা, মাকড়ের আক্রমণ ও গুটি থাকাকালীন ক্ষতি হয়। এক্ষেত্রে ইতোমধ্যে মুকুলের সময় পেরিয়ে গেছে। ৫-১০% গুটি ধারণ করেছে। অবশিষ্ট ফুল ফুটে গেছে। এছাড়া কৃষি বিভাগের পরামর্শ অনুযায়ী আম চাষিরা পূর্ব প্রস্তুতি হিসাবে মুকুল আসার আগে থেকে বালাই ও রোগ নাশক স্প্রে করার কারণে এ বছর তেমন কোন রোগ-বালাই ও পোকার আক্রমণ দেখা যায়নি। 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৮-২০১৯

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড