• বুধবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ৭ আশ্বিন ১৪২৮  |   ২৭ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

করোনায় দিশেহারা তালার পান চাষিরা

  সেলিম হায়দার, তালা (সাতক্ষীরা)

১০ জুন ২০২১, ১১:১৮
ছবি : দৈনিক অধিকার

করোনা ভাইরাসের কারণে পানের দাম কম থাকায় দিশেহারা হয়ে পড়েছে সাতক্ষীরার তালা উপজেলার পান চাষিরা। সৃষ্ট পরিস্থিতিতে বাজারে পানের দামে ধস নেমেছে। পূর্ণ উৎপাদন মৌসুমে সাতক্ষীরা জেলাসহ খুলনার কয়েকটা উপজেলায় লকডাউনের কারণে হাটবাজারে বর্তমানে মানুষের অবাধ চলাচল বন্ধ থাকায় ক্রেতা শূন্য হয়ে পড়েছে পানের হাটবাজারগুলো।

পানের ব্যাপক আমদানি হলেও নেই বিক্রি। পান চালানেও বিপাকে পড়েছে পান চাষিরা। এ জন্য হাটবাজারে পানির দামে পান বিক্রি করতে দেখা যাচ্ছে অনেকের। সব মিলিয়ে চরম হতাশায় ভুগছেন স্থানীয় পান চাষিরা। শ্রমিকের মজুরি বৃদ্ধি, অতিরিক্ত দামে খৈল ও বাঁশের শলা ক্রয়সহ প্রয়োজনীয় উপকরণের বাজার উর্ধ্বমুখী হওয়ায় এতে আরও বিপাকে পড়েছেন তারা।

তালা কৃষি অফিস সূত্রে জানা যায়, উপজেলায় এবার ৪২৫ হেক্টর জমিতে পানের আবাদ রয়েছে। তালা উপজেলায় ইসলামকাটি, খলিষখালি, জালালপুর, খেশরা,মাগুরা, খলিলনগর, কুমিরা ও তালা সদর ইউনিয়নে বেশি পানের চাষ হয়।

এ অঞ্চলের বরজের পান বেশিরভাগই বিক্রি হয় তালা, পাটকেলঘাটা, কুমিরা, খলিষখালি, মাগুরা, দলুয়াসহ বিভিন্ন হাটবাজারে। এ সব বাজারে পানের দাম তিন ভাগের এক ভাগ কমে গেছে। ফলে পান চাষিরা পড়েছেন চরম বিপাকে, তাদের দুশ্চিন্তার যেন শেষ নেই। পানের বাজারের ধস নামার কারণ হিসাবে করোনা ভাইরাসাকে চিহ্নিত করছেন চাষিরা।

চাষিরা বলছেন, লকডাউন থাকায় পান দেশের বিভিন্ন স্থানে স্থানান্তরিত করা যাচ্ছে না। এছাড়া প্রয়োজনের তুলনায় অতিরিক্ত উৎপাদনও এ ধসের অন্যতম কারণ। চা ও পানের দোকানগুলো আংশিক খোলা থাকায় পান বিক্রি কমে যাবার একটা কারণ বলে জানান তারা। করোনার প্রভাব চলতে থাকলে পরবর্তীতে অর্থের অভাবে পান চাষ করতে পারবে না বলে জানান ভুক্তভোগী চাষিরা। কিছুদিন আগে পানের বাজার উর্ধ্বমুখী থাকলেও গত কয়েক সপ্তাহে তা নেমে একবারে সর্বনিম্ন পর্যায়ে দাঁড়িয়েছে। কিছুদিন আগে যে বড় পান দুইশ থেকে আড়াইশ টাকায় বিক্রি করতো তার বর্তমান বাজার মূল্যে একশ থেকে একশ বিশ টাকা। ছোট পানগুলো পঞ্চাশ টাকা বিক্রি হলেও এখন তার বাজার দর বিশ থেকে পঁচিশ টাকা।

দোহার গ্রামের পানচাষি রবিন দাশ বলেন, পান থেকেই আমার পরিবারের জীবিকা চলে। আমিসহ কয়েকটি গ্রামের মানুষ পান চাষের উপর নির্ভরশীল। কিন্তু লকডাউনে পানের ভালো দাম না পাওয়ায় খুব সমস্যার মধ্যে আছি। করোনায় জীবনের ঝুঁকি নিয়ে পান বাজারে আনলেও বাজারে ক্রেতা নেই। নিরুপায় হয়ে পানির দামে বিক্রি করতে হচ্ছে।

তালা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. তারিফ-উল-হাসান জানান, জরুরি কৃষি পণ্যের ক্ষেত্রে কোন বাধা নিষেধ নেই। এক্ষেত্রে পান চালানে কোন সমস্যা হওয়ার কথা না। তবে এ বিষয়ে ব্যবসায়ীদের কোন সিন্ডিকেট আছে কিনা সেটা দেখা হবে বলে জানান তিনি।

ওডি/এমএ

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

সহযোগী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড