• শুক্রবার, ২২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১০ ফাল্গুন ১৪২৫  |   ২০ °সে
  • বেটা ভার্সন

তিন তরুণ বিজ্ঞানীকে 'স্যামসন এইচ চৌধুরী অ্যাওয়ার্ড’ প্রদান

  অধিকার ডেস্ক    ১০ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১১:১৭

স্যামসন এইচ চৌধুরী
স্যামসন এইচ চৌধুরী অ্যাওয়ার্ড

দেশের ওষুধ শিল্প প্রতিষ্ঠান স্কয়ার ফার্মাসিউটিক্যালসের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান স্যামসন এইচ চৌধুরী স্মরণে শনিবার (৯ ফেব্রুয়ারি) রাজধানীর হোটেল প্যান প্যাসেফিক সোনারগাঁওয়ে ‘মেমোরিয়াল কনফারেন্স ২০১৯’ অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ অনুষ্ঠানে তিন তরুণ বিজ্ঞানীকে ‘স্যামসন এইচ চৌধুরী অ্যাওয়ার্ড ফর ইয়াং সায়েন্টিস্ট পুরস্কার’ তুলে দেওয়া হয়। 

অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন স্কয়ার ফার্মাসিউটিক্যালসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক তপন চৌধুরী। তিনি বাংলাদেশের ওষুধ শিল্পের উন্নয়নে প্রয়াত স্যামসন এইচ চৌধুরীর অবদান স্মরণ করেন। এই দ্বিবার্ষিক মিলনমেলা জ্ঞানচর্চা বিকাশে এবং স্বাস্থ্য খাতের উন্নতিতে শিক্ষাবিদ, সরকারি ও বেসরকারি খাতের মেলবন্ধন তৈরিতে তাঁর প্রয়াসকে সম্মান জানিয়ে আয়োজিত হয়।  

সম্মেলনটি এবার তিনটি অধিবেশনে বিভক্ত ছিল। প্রথম অধিবেশনে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) ফার্মাকোলজি বিভাগের অধ্যাপক মো. সায়েদুর রহমান ওষুধ শিল্পের অবস্থান নিয়ে আলোচনা করেন। এই অধিবেশনে তিনি মূল বক্তব্য উপস্থাপন করেন। 

দ্বিতীয় অধিবেশনের ওষুধশিল্পের ভবিষ্যৎ নির্মাণে শিল্প এবং গবেষণা খাতের সহযোগিতা নিয়ে বক্তব্য প্রদান করেন স্কয়ার ফার্মাসিউটিক্যালসের টেকনিক্যাল অপারেশন বিভাগের পরিচালক নওয়াবুর রহমান। আর তৃতীয় অধিবেশনে বাংলাদেশের ফার্মাসিউটিক্যাল শিল্পের সুযোগ ও চ্যালেঞ্জ নিয়ে আলোচনা  করেনবক্তা সিপিডির ফেলো অধ্যাপক মোস্তাফিজুর রহমান।

এ বছর তিন বিজ্ঞানীকে ওষুধ ও স্বাস্থ্যসেবা খাতে গবেষণা ও অবদান রাখায় সম্মানিত করা হয়। প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগবিষয়ক উপদেষ্টা ও বেক্সিমকো গ্রুপের ভাইস চেয়ারম্যান সালমান এফ রহমান এবং বাংলাদেশ ঔষধ শিল্প সমিতির সভাপতি নাজমুল হাসান তরুণ বিজ্ঞানীদের হাতে ‘স্যামসন এইচ চৌধুরী অ্যাওয়ার্ড ফর ইয়াং সায়েন্টিস্ট পুরস্কার’ তুলে দেন।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মাইক্রোবায়োলজি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মো. আনোয়ার সিদ্দিক, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ফার্মেসি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক রওনক জাহান এবং নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ফার্মাসিউটিক্যাল সায়েন্স বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক মো. হোসেন শাহরিয়ারের হাতে পুরস্কার তুলে দেওয়া হয়।
 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৮-২০১৯

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড