• সোমবার, ২২ এপ্রিল ২০২৪, ৯ বৈশাখ ১৪৩১  |   ৩৪ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

বিশ্ববাজারে ফের দাম বাড়ছে সোনার

  অর্থ-বাণিজ্য ডেস্ক

১৮ মার্চ ২০২৩, ১৩:৪৬
বিশ্ববাজারে ফের দাম বাড়ছে সোনার
স্বর্ণালঙ্কার (ফাইল ছবি)

বিশ্ববাজারে ক্রমে লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে সোনার দাম। এর প্রেক্ষিতে দেশের বাজারেও সোনার দাম বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হচ্ছে। প্রতি ভরিতে সোনার দাম কী পরিমাণ বাড়ানো হবে তা নির্ধারণ করতে আজ শনিবার বৈঠকে বসছে বাংলাদেশ জুয়েলার্স সমিতির (বাজুস) মূল্য নির্ধারণ ও মূল্য পর্যবেক্ষণ সংক্রান্ত স্থায়ী কমিটি।

এ বিষয়ে বাজুসের সংশ্লিষ্ট সূত্র জানিয়েছে, সর্বশেষ দেশের বাজারে দাম নির্ধারণের পর বিশ্ববাজারে এরই মধ্যে প্রতি আউন্স সোনার দাম প্রায় ১৮০ ডলার বেড়ে গেছে। গত কয়েকদিন ধরে যে হারে বিশ্ববাজারে সোনার দাম বাড়ছে, তাতে দেশের বাজারে দাম বাড়াতেই হবে।

সূত্রটি আরও জানিয়েছে, বিশ্ববাজারে সোনার দাম যে হারে বেড়েছে, তাতে দেশের বাজারেও সোনার দাম বড় অঙ্কে বাড়ানো হতে পারে। এতে অতীতের সব রেকর্ড ভেঙে সোনার দাম নতুন উচ্চতায় পৌঁছাতে পারে। অবশ্য সোনার দাম কী পরিমাণ বাড়বে তা মূল্য নির্ধারণ ও মূল্য পর্যবেক্ষণ সংক্রান্ত স্থায়ী কমিটিই সিদ্ধান্ত নেবে। এ বিষয়ে আজ বৈঠকে বসবে এ কমিটি।

সর্বশেষ দেশের বাজারে যখন দাম সমন্বয় করা হয় সে সময় বিশ্ববাজারে প্রতি আউন্স সোনার দাম ছিল এক হাজার ৮১০ ডলার। এখন তা বেড়ে প্রতি আউন্স সোনার দাম দাঁড়িয়েছে এক হাজার ৯৮৮ দশমিক শূন্য ৮ ডলারে। অর্থাৎ দেশের বাজারে দাম সমন্বয়ের পর বিশ্ববাজারে প্রতি আউন্স সোনার দাম ১৭৮ ডলার বেড়ে গেছে।

গত ২৬ ফেব্রুয়ারি দেশের বাজারে সব থেকে ভালো মানের বা ২২ ক্যারেটের প্রতি ভরি (১১ দশমিক ৬৬৪ গ্রাম) সোনার দাম এক হাজার ১৬৬ টাকা কমিয়ে ৯১ হাজার ৯৬ টাকা নির্ধারণ করা হয়। এছাড়া ২১ ক্যারেটের প্রতি ভরি সোনার দাম এক হাজার ৫০ টাকা কমিয়ে ৮৭ হাজার ১৩ টাকা, ১৮ ক্যারেটের প্রতি ভরি সোনার দাম ৮৭৫ টাকা কমিয়ে ৭৪ হাজার ৫৯১ টাকা নির্ধারণ করে বাজুস। সে সময় সনাতন পদ্ধতির সোনার দাম ভরিতে ৬৯৮ টাকা কমিয়ে ৬২ হাজার ১৬৯ টাকা নির্ধারণ করা হয়। বর্তমানে দেশের বাজারে এ দামেই সোনা বিক্রি হচ্ছে।

সম্প্রতি বিশ্ববাজারে দাম বাড়ার আগে এক মাস ধরে টানা দরপতন হয় সোনার। এতে এক মাসের মধ্যে প্রতি আউন্স সোনার দাম ১৩৫ ডলার কমে যায়। বিশ্ববাজারে টানা দরপতনের মধ্যে দেশের বাজারে ফেব্রুয়ারিতে দুই দফায় সোনার দাম কমানো হয়। অবশ্য তার আগে টানা ছয় দফা দেশের বাজারে সোনার দাম বাড়ায় বাজুস। এতে অতীতের সব রেকর্ড ভেঙে দেশের বাজারে ইতিহাসের সর্বোচ্চ দামে পৌঁছে সোনা।

চলতি বছরের ১৫ জানুয়ারি দাম বাড়ার মাধ্যমে ভালো মানের এক ভরি সোনার দাম হয় ৯৩ হাজার ৪২৯ টাকা। এর আগে কখনো দেশের বাজারে সোনার ভরি ৯৩ হাজার টাকা স্পর্শ করেনি। এখন সোনার দাম সেই রেকর্ড ভেঙে আরও ওপরে উঠবে কী না তা আজই জানা যাবে।

যোগাযোগ করা হলে বাজুসের মূল্য নির্ধারণ ও মূল্য পর্যবেক্ষণ সংক্রান্ত স্থায়ী কমিটির চেয়ারম্যান এম এ হান্নান আজাদ বলেন, বিশ্ববাজারে সোনার দাম যে হারে বেড়েছে তাতে দেশের বাজারে সোনার দাম বাড়াতেই হবে। একদিনে বিশ্ববাজারে এক আউন্স সোনার দাম প্রায় ৭০ ডলার বেড়ে গেছে। দেশের বাজারে সোনার দাম বাড়ানো নিয়ে আজ আমরা বৈঠকে বসবো। ওই বৈঠক থেকেই সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে কী পরিমাণ দাম বাড়ানো হবে।

বিশ্ববাজারের চিত্র পর্যালোচনায় দেখা যায়, দুই সপ্তাহ ধরে সোনার দাম লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে। এর মধ্যে গত সপ্তাহের শেষ কার্যদিবস শুক্রবার প্রতি আউন্স সোনার দাম বেড়েছে ৬৮ দশমিক ৯৬ ডলার বা ৩ দশমিক ৫৯ শতাংশ। এতে এক সপ্তাহে প্রতি আউন্স সোনার দাম বেড়েছে ১২০ দশমিক ৯৯ ডলার বা ৬ দশমিক ৪৪ ডলার। এতে প্রতি আউন্স সোনার দাম দাঁড়িয়েছে এক হাজার ৯৮৮ দশমিক শূন্য ৮ ডলার। এর মাধ্যমে ২০২২ সালের মার্চের পর সোনার দাম সর্বোচ্চ পর্যায়ে উঠে এসেছে।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

নির্বাহী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118243, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড