• সোমবার, ২৩ মে ২০২২, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯  |   ২৯ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

স্বাস্থ্যখাতে সরকারি বরাদ্দ অপ্রতুল : ড. আতিউর

  নিজস্ব প্রতিবেদক

১২ মে ২০২২, ১৭:১৪
ড. আতিউর রহমান
ড. আতিউর রহমান (ছবি : সংগৃহীত)

বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নর ও অর্থনীতিবিদ ড. আতিউর রহমান বলেছেন, স্বাস্থ্যখাতে সরকারি বরাদ্দ ও ব্যয় অপ্রতুল।

বৃহস্পতিবার (১২ মে) সকালে স্বাস্থ্য বাজেট বিষয়ক অনলাইন জাতীয় সংলাপে তিনি এ কথা বলেন।

ড. আতিউর রহমান বলেন, স্বাস্থ্যখাতে সরকারি বরাদ্দ ও ব্যয় যে অপ্রতুল তা স্পষ্টভাবে বোঝা যায়। স্বাস্থ্যসেবা বাবদ দেশে মোট যে ব্যয় হয় এর ৬৮ শতাংশ আসে নাগরিকদের পকেট থেকে। সরকারের দেওয়া বাজেট থেকে আসে ২৩ শতাংশ। বাকি ৯ শতাংশ আসে বিভিন্ন উন্নয়ন সহযোগী ও ব্যক্তি খাত এবং বেসরকারি বিভিন্ন অরগানাইজেশন থেকে।

তিনি বলেন, দেশের নাগরিকরা স্বাস্থ্যখাতে যে ব্যয় করছেন, এর বড় অংশই ওষুধ ও অন্যান্য পচনশীল চিকিৎসাসামগ্রী ক্রয় করতে। স্বাস্থ্যখাতে বরাদ্দে এক ধরনের গতানুগতিকতা দেখা যাচ্ছে তা অস্বীকার করার কোনো উপায় নেই।

তিনি বলেন, আগামী মাসে জাতীয় সংসদে ২০২২-২৩ অর্থবছরের বাজেট উত্থাপন করা হবে। সরকারের অর্থ বিভাগের বরাতে এ পর্যন্ত পাওয়া তথ্যে ধারণা করা হচ্ছে, বিদ্যমান ভূরাজনৈতিক পরিস্থিতি ও আমাদের অর্থনৈতিক সক্ষমতা এবং সম্ভাবনার কথা মাথায় রেখে এবছর কিছুটা সংকোচনমুখি বাজেট তৈরি করা হচ্ছে। আয় বুঝে ব্যয় করার সক্ষমতা হয়ত আগামী বাজেটে আমরা দেখতে পাব। এ বছর ব্যয় কাটছাঁটের যে ইঙ্গিত অর্থ বিভাগ থেকে পাওয়া যাচ্ছে তা ইতিবাচক। তবে স্বাস্থ্যখাতে বরাদ্দ কমানোর কোনো উদ্যোগ এই মুহূর্তে একদমই কাম্য নয়।

আরও পড়ুন : ‘আ. লীগ নেতাদের মাথাপিছু আয় বেড়েছে’

স্বাস্থ্য বাজেট বিষয়ক অনলাইন জাতীয় সংলাপে আরও আলোচনা করেন সাবেক স্বাস্থ্যমন্ত্রী অধ্যাপক ডা. আ ফ ম রুহুল হক, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী ডা. মো. এনামুর রহমান, গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী, সংসদ সদস্য অধ্যাপক ডা. প্রাণ গোপাল দত্ত।

ওডি/আজীম

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

সহযোগী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড