• বুধবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২১, ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৮  |   ২৪ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

নিম্ন ও মধ্যম আয়ের দেশে রেমিট্যান্স প্রবৃদ্ধি ৭.৩ শতাংশ

  অর্থ-বাণিজ্য ডেস্ক

১৯ নভেম্বর ২০২১, ১৩:০৪
বিশ্ব ব্যাংক
বিশ্ব ব্যাংক (ছবি : সংগৃহীত)

২০২১ সালে নিম্ন ও মধ্যম আয়ের দেশেগুলোতে রেমিট্যান্স প্রবৃদ্ধি ৭ দশমিক ৩ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়ে ৫৮৯ বিলিয়নে পৌঁছাবে বলে ধারণা করছে বিশ্বব্যাংক। প্রবৃদ্ধিতে এই প্রত্যাবর্তন পূর্বের ধারণার তুলনায় আরও শক্তিশালী এবং ২০২০ সালের প্রবাহ ছাড়িয়ে গেছে। কারণ ২০২০ সালে রেমিট্যান্স পূর্বের তুলনায় ১ দশমিক ৭ শতাংশ কমে যায় করোনা সংকটের কারণে।

শুক্রবার (১৯ নভেম্বর) বিশ্বব্যাংকের প্রধান অফিস ওয়াশিংটন থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়।

এতে বলা হয়েছে, টানা দ্বিতীয় বছরের জন্য নিম্ন ও মধ্যম আয়ের দেশগুলোতে (চীন বাদে) রেমিট্যান্স প্রবাহ প্রত্যাশিত, যা বিদেশি প্রত্যক্ষ বিনিয়োগ (এফডিআর) এবং বিদেশি উন্নয়ন সহায়তার সমষ্টিকে ছাড়িয়ে যাবে।

বিশ্বব্যাংকের গ্লোবাল ডিরেক্টর (সামাজিক সুরক্ষা ও চাকরি) মাইকেল রুটকোভস্কি বলেছেন, কোভিডের কারণে অনেক প্রবাসী বাড়িতে টাকা পাঠাতে পারেননি। অর্থনৈতিক সমস্যায় ভুগছেন এমন পরিবারগুলোকে সমর্থন করার জন্য সরকারি নগদ সহায়তা কর্মসূচি ব্যাপকভাবে উপকার করেছে। রেমিট্যান্স প্রবাহকে সহজ করা সরকারি নীতির একটি মূল উপাদান হওয়া উচিত মহামারি থেকে বিশ্বব্যাপী পুনরুদ্ধারে সহায়তা করার জন্য।

বিশ্বব্যাংক জানায়, রেমিট্যান্সের শক্তিশালী প্রবৃদ্ধির অন্যতম কারণ মহামারির সময়ও অভিবাসীরা তাদের পরিবারকে সহায়তা করেছেন। অভিবাসীরা ইউরোপ এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে অর্থনৈতিক পুনরুদ্ধারে সহায়তা করেছেন। গালফ কো-অপারেশন কাউন্সিল (জিসিসি) দেশ এবং রাশিয়াতে তেলের দাম বৃদ্ধি পেয়েছে। অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ড বৃদ্ধির ফলে বহির্মুখী রেমিট্যান্স পুনরুদ্ধারও সহজ হয়েছে।

বেশিরভাগ অঞ্চলে রেমিট্যান্স বৃদ্ধি পেয়েছে। ল্যাটিন আমেরিকা এবং ক্যারিবিয়ানে ২১ দশমিক ৬, মধ্যপ্রাচ্য এবং উত্তর আফ্রিকায় ৯ দশমিক ৭, দক্ষিণ এশিয়ায় ৮ শতাংশ, সাব-সাহারান আফ্রিকায় ৬ দশমিক ২ শতাংশ এবং ইউরোপ ও মধ্য এশিয়ায় ৫ দশমিক ৩ শতাংশ প্রবাহ বৃদ্ধি পেয়েছে।

ওডি/এএম

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

সহযোগী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড