• শুক্রবার, ২৪ জানুয়ারি ২০২০, ১০ মাঘ ১৪২৬  |   ১৮ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

পাঁচ মাসে মধ্যপ্রাচ্য থেকে রেমিট্যান্স ৪৫০ কোটি ডলার

সৌদি আরব থেকে বেশি রেমিট্যান্স

  অর্থ-বাণিজ্য ডেস্ক

০৮ ডিসেম্বর ২০১৯, ১৭:৫৮
রেমিট্যান্স
মধ্যপ্রাচ্য থেকে সবচেয়ে বেশি রেমিট্যান্স এসেছে (ছবি : সংগৃহীত)

দেশের সবচেয়ে বড় শ্রমবাজার সৌদি আরবসহ মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলো থেকে রেমিট্যান্স প্রবাহ বেড়েছে। চলতি ২০১৯-২০ অর্থবছরের জুলাই থেকে নভেম্বর এই পাঁচ মাসে মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলো থেকে প্রায় ৪৫০ কোটি ডলারের রেমিট্যান্স পাঠিয়েছেন প্রবাসীরা। যা বাংলাদেশি মুদ্রায় (প্রতি ডলার ৮৫ টাকা ধরে) প্রায় ৩৮ হাজার কোটি টাকা। কেন্দ্রীয় ব্যাংকের পরিসংখ্যান থেকে এ তথ্য জানা গেছে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের তথ্য অনুযায়ী, চলতি অর্থবছরে প্রথম পাঁচ মাসে ব্যাংকিং চ্যানেলে রেমিট্যান্স এসেছে ৭৭১ কোটি ৪১ লাখ ডলার। এর মধ্যে মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলো থেকে প্রবাসী বাংলাদেশিরা ৪৪৯ কোটি ৭৯ লাখ ডলার পাঠিয়েছেন। যা কি না মোট আহরিত রেমিট্যান্সের ৫৮ দশমিক ৩০ শতাংশ। এছাড়া বিশ্বের অন্য দেশগুলোতে থাকা প্রবাসীরা পাঠিয়েছেন ৩২১ কোটি ৬২ লাখ ডলার।

প্রবাসীদের রেমিট্যান্স পাঠানোর শীর্ষ ১০টি দেশের মধ্যে মধ্যপ্রাচ্যের ছয়টি দেশ রয়েছে। এর মধ্যে গত পাঁচ মাসে সৌদি আরব থেকে সবচেয়ে বেশি রেমিট্যান্স এসেছে বাংলাদেশে। চলতি অর্থবছরে সৌদিতে থাকা প্রবাসীরা ১৬১ কোটি ৮৫ লাখ ডলারের রেমিট্যান্স পাঠিয়েছেন। যা মোট আহরিত রেমিট্যান্সের প্রায় ২০ শতাংশ।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের তথ্য মতে, বাংলাদেশে রেমিট্যান্স পাঠানোর শীর্ষে থাকা ১০টি দেশের মধ্যে অন্য দেশেগুলো হলো- যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, ইতালি, মালয়েশিয়া, কুয়েত, কাতার, ওমান, বাহরাইন ও সংযুক্ত আরব আমিরাত।

সংযুক্ত আরব আমিরাত থেকে ১১০ কোটি ৪৬ লাখ ডলার, কুয়েত থেকে ৬০ কোটি ৯৯ লাখ ডলার, ওমান থেকে ৫২ কোটি ৭৯ লাখ ডলার, কাতার থেকে ৪৫ কোটি ৭৬ লাখ ডলার ও বাহরাইন থেকে ১৭ কোটি ৭০ লাখ ডলারের রেমিট্যান্স এসেছে। আর যুক্তরাষ্ট্র থেকে ৮৯ কোটি ৩৭ লাখ ডলার, যুক্তরাজ্য থেকে ৬০ কোটি ২৫ লাখ ডলার, মালয়েশিয়া থেকে ৫২ কোটি ৯৮ লাখ ডলার, ইতালি থেকে ৩৩ কোটি ৪২ লাখ ডলারের রেমিট্যান্স এসেছে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের এক প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, ব্যাংকিং চ্যানেলে রেমিট্যান্স আহরণে ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ শীর্ষস্থানে রয়েছে। এছাড়া সোনালী, অগ্রণী ও ডাচ্-বাংলা ব্যাংকের মাধ্যমেও উল্লেখযোগ্য রেমিট্যান্স আসছে দেশে।

রেমিট্যান্সের তথ্য পর্যালোচনায় দেখা গেছে, গত নভেম্বর মাসের হিসাবে সর্বোচ্চ ৩০ কোটি ৪৮ লাখ ডলার রেমিট্যান্স আহরণ করে তালিকার সবার উপরে রয়েছে ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ। আর অগ্রণী ব্যাংকের মাধ্যমে ১৩ কোটি ৬৬ লাখ, সোনালী ব্যাংকের মাধ্যমে ৯ কোটি ৬৬ লাখ, জনতার মাধ্যমে ৬ কোটি ৫৭ লাখ, রূপালীর মাধ্যমে ২ কোটি ডলারের রেমিট্যান্স এসেছে। বেসরকারি ডাচ্-বাংলা ব্যাংকের মাধ্যমে ২৫ কোটি ৬৭ লাখ, ব্যাংক এশিয়ার মাধ্যমে ৬ কোটি ৭৫ লাখ, এনসিসি ব্যাংকের মাধ্যমে ৪ কোটি ৮২ লাখ, পূবালী ব্যাংকের মাধ্যমে ৪ কোটি ৩৬ লাখ, ইউসিবি ব্যাংকের মাধ্যমে ৩ কোটি ২৫ লাখ, আল-আরাফাহ্র ব্যাংকের মাধ্যমে ৩ কোটি ৩৭ লাখ, ট্রাস্টের মাধ্যমে ৩ কোটি ৪৬ লাখ, সাউথইস্টের মাধ্যমে ৩ কোটি ৬৬ লাখ, দ্য সিটির মাধ্যমে ৩ কোটি ৫৬ লাখ, এমটিবির মাধ্যমে ৩ কোটি ৩৭ লাখ, ন্যাশনালের মাধ্যমে ৩ কোটি ২৮ লাখ, উত্তরার মাধ্যমে ৩ কোটি ১৯ লাখ, ব্র্যাকের মাধ্যমে ২ কোটি ৮৪ লাখ, মার্কেন্টাইলের মাধ্যমে ২ কোটি ১২ লাখ, ওয়ান ব্যাংকের মাধ্যমে ২ কোটি ১৬ লাখ, প্রাইমের মাধ্যমে ৩ কোটি ৩৩ লাখ ডলারের রেমিট্যান্স এসেছে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের তথ্য অনুযায়ী, গত ২০১৮-১৯ অর্থবছরে দেশে রেমিট্যান্স আহরণে রেকর্ড হয়েছে। ওই অর্থবছরে এক হাজার ৬৪২ কোটি ডলার রেমিট্যান্স পাঠিয়েছেন প্রবাসীরা। যা দেশের ইতিহাসে সর্বোচ্চ রেমিট্যান্স আহরণ।

ওডি/টিএএফ

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড