• বৃহস্পতিবার, ২৮ মে ২০২০, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭  |   ২৯ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

সোনারগাঁও ইউনিভার্সিটির শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের আবিষ্কৃত রোবটে সম্ভব করোনা রোগীর সেবা (ভিডিও)

  অধিকার ডেস্ক

০৪ এপ্রিল ২০২০, ২০:৫১
রোবট
সোনারগাঁও ইউনিভার্সিটির শিক্ষক-শিক্ষার্থীবৃন্দের আবিষ্কৃত রোবট ব্যবহৃত হবে করোনা রোগীদের সেবায়  

বিশ্বজুড়ে এখন করোনা আতঙ্ক। প্রাণঘাতী কভিড-১৯ খুবই ছোঁয়াচে। তাই রোগীর সংস্পর্শে যাওয়া বিপজ্জনক। রোগীকে সেবা দেওয়া চিকিৎসকরাও আছেন ঝুঁকিতে। এ পরিস্থিতিতে রোগী থেকে নিরাপদ দূরত্ব বজায় রেখে নির্বিঘ্ন চিকিৎসাসেবা দেওয়ার ক্ষেত্রে রোবটের ব্যবহার হতে পারে চমৎকার কৌশল।

রোবটের কথা বলা বা হাঁটাচলা নতুন কিছু নয় তবে স্বাস্থ্য সহকারীর বিকল্প  হিসেবে রোবটের ধারনা একেবারেই নতুন। নতুন হলেও এমনি এক রোবট বানিয়েছেন রাজধানীর সোনারগাঁও ইউনিভার্সিটির মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের শিক্ষক এবং শিক্ষার্থীদের সমন্বয়ে গঠিত একটি দল। সোনারগাঁও ইউনিভার্সিটির শিক্ষক এবং শিক্ষার্থীদের সমন্বয়ে গঠিত এই দলটি বলছে, চিকিৎসক চাইলেই এই রোবটের মাধ্যমে চিকিৎসা সেবা দিতে পারবেন। এতে কমবে চিকিৎসকদের করোনা থেকে আক্রান্ত হবার ঝুঁকি।

সোনারগাঁও ইউনিভার্সিটির মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের শিক্ষক মেহেদী হাসান বলেন, ‘আমাদের তৈরি করা রোবট চিকিৎসক এবং অন্যান্যদের দূরে রেখেই কোভিড-১৯ রোগী ও তাদের চিকিৎসায় ছয়টি জরুরি সেবা দিতে সক্ষম। একজন ডাক্তার, একটি কন্ট্রোল স্টেশনে থেকেই এই রোবটের সাহায্যে কোয়ারেন্টিন সেন্টার এবং হাসপাতালে থাকা বেশ কয়েকজন রোগীকে সেবা দিতে পারবেন।’

জানা যায়, করোনায় সংক্রমিত হওয়ার ভয়ে আক্রান্ত ব্যক্তির কাছে কেউ না গেলেও এগিয়ে যাবে সেবক নামের এই রোবটটি। এটি রোগীর শরীরের তাপমাত্রা, রক্তচাপ, হার্টবিট ও অক্সিজেনের পরিমাণ নির্ণয় করতে পারবে। পাশাপাশি আক্রান্ত ব্যক্তিকে ওষুধ ও খাবার সরবরাহ করবে।

এ ব্যাপারে সোনারগাঁও ইউনিভার্সিটির মেকানিক্যাল বিভাগের অধ্যাপক মাঈনুল হাসান বলেন, এই রোবটটি ব্যবহার করে যদি এমন হয় যে, একটি কন্ট্রোল স্টেশনে একজন ডাক্তার বসে আছেন, বাকি ৪০/৫০ জন রোগী তাদের নির্ধারিত স্থানে আছেন। সে ক্ষেত্রে তিনি কিন্তু কন্ট্রোল স্টেশন থেকে রোগীর কাছে না গিয়ে, রোগীর সংস্পর্শে না গিয়ে ৪০/৫০ জন রোগীকে সার্ভ করতে পারছেন। সে ক্ষেত্রে  যে ডাক্তার উনি কিন্তু নিরাপদ থাকলেন।

জানা যায়, পৃথিবীর যে কোনো জায়গায় বসে এই রোবট পরিচালনা করা যাবে। মানুষের চেয়ে দ্রুত গতিতে কাজ করতে সক্ষম রোবটটি ১০ মিনিটেই হাসপাতালের একটি ওয়ার্ডের সব রোগীদের সেবা দিতে পারবে। এমনটাই দাবি করছেন নির্মাতারা।

একজন সেবিকার মাধ্যমে ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে খাবার পৌঁছাতে যে সময় প্রয়োজন রোবটও সেই গতিতে করতে পারবে বা তার থেকেও দ্রুত গতিতে করা সম্ভব এবং গাড়ির গতির ন্যায় রোবটের গতিও নিয়ন্ত্রণ করা যাবে বলে জানান সোনারগাঁও ইউনিভার্সিটির মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের সংশ্লিষ্ট শিক্ষক-শিক্ষার্থীবৃন্দ।

বিশ্বজুড়ে দ্রুত বাড়ছে করোনার সংক্রমণ। সেই সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে মৃত্যুও। সেবা দিতে গিয়ে ঝুঁকি বিবেচনা করে শংকায় আছেন চিকিৎসক-স্বাস্থ্যকর্মীরাও। সেই শংকা কাটাতেই রাজধানীর সোনারগাঁও ইউনিভার্সিটির মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের প্রচেষ্টায় তৈরি হয়েছে এই স্বাস্থ্যসহকারী রোবট ‘সেবক’।

মহামারি করোনা ভাইরাসের দরুন বৈশ্বিক এ দুর্যোগে স্বাস্থ্য সেবা দিতে  সোনারগাঁও ইউনিভার্সিটির শিক্ষক এবং শিক্ষার্থীদের ‘সেবক’ নামক রোবট আবিষ্কারকে একটি মূল্যবান অর্জন হিসেবেই বিভিন্ন মহল থেকে সাধুবাদ জানানো হচ্ছে। 

 

 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড