• শুক্রবার, ০৭ আগস্ট ২০২০, ২৩ শ্রাবণ ১৪২৭  |   ২৮ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

২১ দিনের জন্য লকডাউন ভারত 

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

২৪ মার্চ ২০২০, ২২:১৫
ভারত
ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (ছবি : সংগৃহীত)

বিশ্বের বিভিন্ন দেশের মতো করোনা ভাইরাসের (কোভিড-১৯) হুমকিতে পড়েছে ভারতও। দেশটিতে এ পর্যন্ত করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ৫০০ ছাড়িয়েছে। এ কারণে আগামী তিন সপ্তাহের জন্য ভারত লকডাউন থাকবে বলে ঘোষণা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম আনন্দবাজার জানায়, ভারতে ২১ দিনের লকডাউন ঘোষণা করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। মঙ্গলবার (২৪ মার্চ) মধ্যরাত থেকে ১৫ এপ্রিল পর্যন্ত এই লকডাউন জারি থাকবে। ওই সময়ে দেশের কোনো নাগরিকের বাইরে বের হওয়া উচিৎ হবে না বলে মন্তব্য করেছেন মোদী।

এ সম্পর্কে ভারতের প্রধানমন্ত্রী বলেন, ২১ দিন দীর্ঘ সময়, কিন্তু এই লকডাউন না মানলে দেশ ২১ বছরের জন্য পিছিয়ে যাবে। দেশের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে নয়, আপনাদের পরিবারের একজন সদস্য হিসেবে এমন অনুরোধ করছি। এই কয়েকটা দিন বাইরের জীবন ভুলে যান।

নরেন্দ্র মোদী আরও বলেন, চীন, রাশিয়া, ফ্রান্স, ইতালিসহ অনেক দেশের স্বাস্থ্যসেবা অত্যন্ত উন্নত। এরপরও করোনা মোকাবিলা করতে পারেনি তারা। এই পরিস্থিতিতে উপায় কী? একটাই উপায়, যারা করোনা পরিস্থিতি সামাল দিতে পেরেছেন তাদের থেকে শিক্ষা নেওয়া। ওইসব দেশে সরকারের কথা শুনে বাড়ির বাইরে বের হননি সাধারণ মানুষ। আমাদেরও তা মেনে চলতে হবে।

আরও পড়ুন : চীনে হান্তা ভাইরাসে মৃত ১, কতটা ভয়াবহ এই ভাইরাস?

এছাড়া করোনা পরিস্থিতি সামাল দিতে ১৫ হাজার কোটি রুপির প্যাকেজের ঘোষণাও দেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। এই টাকায় আইসোলেশন ওয়ার্ড, আইসিইউ, ভেন্টিলেটরের সংখ্যা বাড়ানো হবে বলে জানান তিনি।

এর আগে মঙ্গলবার দুপুরে বেশকিছু পদক্ষেপের কথা ঘোষণা করেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন। আয়কর রিটার্ন জমা দেওয়ার সময়সীমা বাড়ানোর পাশাপাশি, কোনো রকম চার্জ ছাড়া যে কোনো ব্যাংকের এটিএম থেকে টাকা তোলা যাবে বলে জানান তিনি।

ওডি/ডিএইচ

jachai
nite
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
jachai

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড