• সোমবার, ০৬ এপ্রিল ২০২০, ২৩ চৈত্র ১৪২৬  |   ৩৬ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

করোনা আতঙ্কে জনশূন্য কলকাতা, গ্রেপ্তার ২৫৫

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

২৪ মার্চ ২০২০, ১৭:৩৪
করোনা আতঙ্কে জনশূন্য কলকাতা, গ্রেপ্তার ২৫৫
কলকাতার জনশূন্য রাজপথ (ছবি : ইন্ডিয়া টুডে)

প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসে (কোভিড-১৯) বিশ্বব্যাপী সাড়ে ১৬ হাজারের অধিক লোকের প্রাণহানি ঘটেছে। এমন পরিস্থিতিতে স্থবির হয়ে উঠেছে ভারতের পশ্চিমবঙ্গের জনজীবন।

মহামারি আকারে হানা দেওয়া ভাইরাসটির বিস্তার রোধে লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে কলকাতাসহ গোটা রাজ্যে। করোনা আতঙ্কে পশ্চিমবঙ্গের শহরগুলোকে প্রায় জনশূন্য বলে দাবি করেছে বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম। যদিও এ সময়ের মধ্যে নিময় অমান্য করায় অন্তত ২৫৫ জনকে গ্রেপ্তার করেছে রাজ্য প্রশাসন।

কলকাতাভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আনন্দবাজার পত্রিকা জানিয়েছে, করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ প্রতিরোধে সোমবার (২৩ মার্চ) বিকাল পাঁচটা থেকে শুক্রবার (২৭ মার্চ) মধ্যরাত পর্যন্ত লকডাউন চলবে গোটা রাজ্যে। এমন পরিস্থিতিতে মঙ্গলবার (২৪ মার্চ) সকাল থেকেই কলকাতার রাজপথের ছবি হার মানাবে আগের যে কোনো ধর্মঘটকে।

কলকাতার পুলিশ সুপার অনুজ শর্মা টুইট বার্তায় জানিয়েছেন, আইন অমান্য করে সড়কে চলাচল করায় এখন পর্যন্ত ২৫৫ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তাই সংকটময় পরিস্থিতিতে জনগণকে ঘরে থাকার অনুরোধ জানাচ্ছি। 

সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী, আদালত, জেল, আইনশৃঙ্খলা, স্বাস্থ্যসেবায় কোনো ধরনের বিধিনিষেধ থাকছে না। তাছাড়া পানি, বিদ্যুৎ, পরিচ্ছন্নতা, অগ্নিনির্বাপণ, অসামরিক প্রতিরক্ষা, টেলিকম, ইন্টারনেট, তথ্যপ্রযুক্তি, ডাকঘর, ব্যাংক-এটিএম ব্যবস্থাও আগের মতো চালু রয়েছে। একই সঙ্গে মাছ-মাংস, দুধ ও ফলের মতো আবশ্যিক খাদ্যদ্রব্যের সরবরাহও স্বাভাবিক রয়েছে। 

ভারতীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের মতে, দেশটিতে প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসের থাবায় এখন পর্যন্ত ১০ জনের প্রাণহানিসহ অন্তত ৪৯৯ জন আক্রান্ত হয়েছেন। এমন পরিস্থিতিতে বাধ্য হয়ে পশ্চিমবঙ্গসহ অন্তত ৩০ রাজ্যে লকডাউন ঘোষণা করেছে সরকার।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) জানিয়েছে, উৎপত্তিস্থল চীনের সীমা অতিক্রম করে এর মধ্যে বিশ্বের অন্তত ১৯৫টি দেশে ছড়িয়ে পড়েছে প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাস। বিশ্বব্যাপী ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন প্রায় ৩ লাখ ৭৯ হাজারের অধিক মানুষ। আর করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃতের সংখ্যাও এরই মধ্যে ১৬ হাজার ৫২৪ জনে পৌঁছেছে।

চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, করোনা ভাইরাস মানুষ ও প্রাণীদের ফুসফুসে সংক্রমণ করতে পারে। ভাইরাসজনিত ঠান্ডা বা ফ্লুর মতো হাঁচি-কাশির মাধ্যমে মানুষ থেকে মানুষে ছড়িয়ে পড়ছে এই ভাইরাস। ভাইরাসটিতে সংক্রমিত হওয়ার প্রধান লক্ষণগুলো হলো- শ্বাসকষ্ট, জ্বর, কাশি, নিউমোনিয়া ইত্যাদি। তাছাড়া শরীরের এক বা একাধিক অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ নিষ্ক্রিয় হয়ে আক্রান্ত ব্যক্তির মৃত্যু হতে পারে।

আরও পড়ুন : মহাবিপদের সামনে ভারত, ঝুঁকিতে বাংলাদেশ

বর্তমানে সবচেয়ে আতঙ্কের বিষয় হলো, ভাইরাসটি নতুন হওয়ায় এখনো আনুষ্ঠানিকভাবে কোনো প্রতিষেধক আবিষ্কার হয়নি। ভাইরাসটির সংক্রমণ থেকে বাঁচার একমাত্র উপায় সংক্রমিত ব্যক্তিদের থেকে দূরে থাকা। তাই মানুষের শরীরে এমন উপসর্গ দেখা দিলেই দ্রুত চিকিৎসকের শরণাপন্ন হওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন বিজ্ঞানীরা।

ওডি/কেএইচআর

সংশ্লিষ্ট ঘটনা সমূহ : করোনা ভাইরাস

আরও
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড