• সোমবার, ২০ জানুয়ারি ২০২০, ৭ মাঘ ১৪২৭  |   ১৯ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

হিজবুল্লাহ প্রধানকে হত্যার হুমকি দিল ইসরায়েল

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

১৪ জানুয়ারি ২০২০, ০৯:২৫
হিজবুল্লাহ প্রধানকে হত্যার হুমকি
ইসরায়েলি মিসাইল (ছবি : প্রতীকী)

লেবাননের ইরান সমর্থিত ইসলামি প্রতিরোধ আন্দোলন হিজবুল্লাহ মহাসচিব সাইয়্যেদ হাসান নাসরুল্লাহকে এবার হত্যার হুমকি দিয়েছে ইহুদিবাদী রাষ্ট্র ইসরায়েল। সোমবার (১৩ জানুয়ারি) এক টুইট বার্তায় ইসরায়েলি পররাষ্ট্রমন্ত্রী ইসরায়েল কাতজ এ হুঁশিয়ারি দেন।

টুইটার পোস্টে তিনি লিখেছেন, নাসরুল্লাহ এখনো প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহুকে আক্রমণ কিংবা ইসরায়েলি নাগরিকদের হুমকি দেওয়া বন্ধ করেননি। বর্তমানে তার হতাশা যেভাবে বাড়ছে, বাগাড়ম্বরও সেভাবেই বেড়েছে।

ইসরায়েলি পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন, তিনি যেভাবে ইসরায়েলকে চ্যালেঞ্জ করছেন, তা ইরানের কোনো কাজেই আসবে না। ইতোমধ্যে তাকে হত্যার সম্ভাবনা বৃদ্ধি পেয়েছে। কেননা আমাদের হাতে আর কোনো বিকল্প থাকছে না। 

তিনি আরও বলেন, গুপ্তহত্যার আশঙ্কায় নাসরুল্লাহ কয়েক বছর যাবত বাংকারের ভেতর বসবাস করছেন। 

বিশ্লেষকদের মতে, জেনারেল সোলাইমানিকে হত্যার প্রতিবাদে ইরাকের মার্কিন ঘাঁটিতে ক্ষেপণাস্ত্র হামলার পর নমনীয় হওয়ার ইঙ্গিত দিয়েছে ইরান। যদিও শিয়াপন্থি সশস্ত্র গোষ্ঠীটির নেতা নাসরুল্লাহ দেখাচ্ছেন ভিন্ন পথ। আরও হামলার ইঙ্গিত দিয়ে তিনি বলেছেন, ইরাকের মার্কিন ঘাঁটিগুলোতে হামলা মাত্র শুরু।

কাতারভিত্তিক গণমাধ্যম ‘আল-জাজিরা’ জানায়, রবিবার (১২ জানুয়ারি) ৯০ মিনিটের এক ভাষণে মার্কিন ঘাঁটিতে ইরানি ক্ষেপণাস্ত্র হামলাকে ওয়াশিংটনের মুখে ‘চড়’ বলে আখ্যায়িত করেছেন নাসরুল্লাহ।

তিনি দাবি করেন, এটি ছিল দীর্ঘ পথের প্রথম পদক্ষেপ মাত্র। যা এই মধ্যপ্রাচ্য থেকে মার্কিন সেনাদের পুরোপুরি বিতাড়িত করবে। যুক্তরাষ্ট্রকে অবশ্যই আমাদের অঞ্চল থেকে তাদের সেনা, ঘাঁটি, কর্মকর্তা ও যুদ্ধজাহাজ সরিয়ে নিতে হবে।

হুঁশিয়ারি দিয়ে নাসরুল্লাহ বলেন, বিকল্প হলো তারা যদি স্বেচ্ছায় না যেতে চায় তাহলে তাদের বাধ্য করা হবে।

এর আগে ৩ জানুয়ারি ভোরে ইরাকের বাগদাদ শহরের বিমানবন্দরে মার্কিন বিমান হামলায় ইরানি জেনারেল কাসেম সোলাইমানি নিহত হন। প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের নির্দেশে চালানো সেই অভিযানে তেহরান সমর্থিত পপুলার মবিলাইজেশন ফোর্সেসের (পিএমএফ) উপপ্রধান আবু মাহদি আল-মুহান্দিসসহ বাহিনীর বেশ কয়েকজন সদস্য প্রাণ হারান।

আরও পড়ুন :- ইরানের বিরুদ্ধে নালিশ নিয়ে আইসিসির দ্বারস্থ ৫ দেশ

সোলাইমানি নিহত হওয়ার পর থেকে যুক্তরাষ্ট্র ও ইরানের মধ্যে সর্বোচ্চ উত্তেজনা বিরাজ করছে। যা এখনো বিদ্যমান রয়েছে।

সূত্র : ‘ইয়েনি সাফাক’

ওডি/কেএইচআর

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড