• সোমবার, ২৭ জানুয়ারি ২০২০, ১৩ মাঘ ১৪২৬  |   ১৩ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

১০ সেকেন্ডের ভুলেই বিমানটি বিধ্বস্ত : ইরান

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

১৩ জানুয়ারি ২০২০, ১০:৩১
বিধ্বস্ত বিমানের ধ্বংসাবশেষ
বিধ্বস্ত বিমানের ধ্বংসাবশেষ থেকে মরদেহ উদ্ধার (ছবি : তেহরান টাইমস)

যোগাযোগের বিপত্তি ঘটায় ক্ষেপণাস্ত্র অপারেটর ভেবেছিলেন, ধেয়ে আসা একটি ক্রুজ মিসাইল ধ্বংস করতে তার হাতে কেবল কয়েক সেকেন্ড সময় রয়েছে। যে কারণে তিনি সেই ইউক্রেনীয় যাত্রীবাহী বিমানটিকে গুলি করেছেন। এমনটাই দাবি করেছেন ইরানের ইসলামি বিপ্লবী গার্ডস বাহিনীর কমান্ডার আমির আলী হাজিজাদেহ।

কাতারভিত্তিক গণমাধ্যম ‘আল-জাজিরা জানায়, ইউক্রেন ইন্টারন্যাশনাল এয়ারলাইন্সের ফ্লাইটটি (পিএস-৭৫২) বুধবার (৮ জানুয়ারি) ভোর রাতে কিয়েভে যাওয়ার উদ্দেশ্যে তেহরানের ইমাম খোমেনি বিমানবন্দর থেকে উড্ডয়ন করে। এর কিছুক্ষণ পর বিমানটি বিধ্বস্ত হয়।

হাজিজাদেহ বলেছেন, আমাদের একজন ক্ষেপণাস্ত্র পরিচালনাকারী স্বাধীনভাবে সব কাজ করছিলেন। তখন বিমানটিকে একটি ক্রুজ মিসাইল ভেবে তিনি ভুল করে ফেলেন। তেহরানকে লক্ষ্য করে এ জাতীয় ক্ষেপণাস্ত্র ছোড়া হয়েছে এমন খবর পাওয়ার পরই ঘটনাটি ঘটে। 

ইসলামি বিপ্লবী গার্ডসের এ কমান্ডার আরও বলেন, সিদ্ধান্ত নেওয়ার জন্য তখন ক্ষেপণাস্ত্র পরিচালনাকারীর হাতে মাত্র ১০ সেকেন্ড সময় ছিল। তিনি কেবল আঘাত করা কিংবা না করার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে পারতেন। যদিও শেষ পর্যন্ত তিনি ভুল সিদ্ধান্তটিই নিয়েছেন।

এ দিকে ইসলামি প্রজাতন্ত্রের ভুল মিসাইল হামলায় বেসামরিক বিমান বিধ্বস্তের ঘটনায় ইরানকে ক্ষমা চাইতে বলেছে কানাডা ও ইউক্রেন।

শনিবার (১১ জানুয়ারি) যাত্রীবাহী বিমান বিধ্বস্তের ঘটনায় তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করে বিবৃতি দিয়েছেন কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো। তিনি বলেছেন, ঘটনাটি একটি জাতীয় বিপর্যয়। কানাডার সকল নাগরিকের জন্য প্রচণ্ড আঘাত পেয়েছে। তারা শোকে কাতর হয়ে পড়েছে। আমাদের ৬৩ জন নাগরিককে হত্যার ক্ষতিপূরণ একমাত্র ইরানকেই দিতে হবে। তাদের প্রকাশ্যে ক্ষমা চাইতে হবে।

ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভোলোদিমির জেলেনস্কিও বিবৃতির মাধ্যমে বিষয়টির নিন্দা জানিয়েছেন। তিনি বলেন, সকালটা সত্যি ভালো ছিল না। আন্তর্জাতিক কমিশন তদন্ত শেষ করার আগেই ইরান আমাদের উড়োজাহাজ ভূপাতিত করার বিষয়টি স্বীকার করে নিল।

তিনি আরও বলেন, আমরা আশা করছি, তেহরান একটি পরিপূর্ণ ও উন্মুক্ত তদন্তের মাধ্যমে দায়ীদের বিচারের আওতায় আনবে। দ্রুতই নিহতদের মরদেহ ফিরিয়ে দেবে, এমনকি পর্যাপ্ত ক্ষতিপূরণ প্রদান করবে। কূটনৈতিক নিয়মকানুন মেনেই তাদের ক্ষমা চাইতে হবে।

অপর দিকে ইউরোপিয়ান এয়ারলাইন্সগুলোকে ইরানের আকাশসীমা এড়িয়ে চলার পরামর্শ দিয়েছে ইইউ এভিয়েশন সেফটি এজেন্সি (ইএএসএ)। ভুল করে ইউক্রেনের বিমান ভূপাতিত করার বিষয়ে ইরানের স্বীকারোক্তির পর শনিবার পরামর্শটি দেওয়া হয়।

আরও পড়ুন :- বিমান বিধ্বস্তের ঘটনা ‘অমার্জনীয় ভুল’ : রুহানি

উল্লেখ্য, ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় বিধ্বস্ত বিমানটির যাত্রীদের মধ্যে ৮২ জন ইরানি, ৬৩ জন কানাডার, ১১ ইউক্রেনীয়, ১০ সুইস, ৪ আফগান, ৩ জার্মান ও ৩ জন ব্রিটিশ নাগরিক রয়েছেন।

ওডি/কেএইচআর

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড