• সোমবার, ২২ জুলাই ২০১৯, ৭ শ্রাবণ ১৪২৬  |   ৩১ °সে
  • বেটা ভার্সন

দ্বিতীয় তলবেও আসেননি দুদকের বরখাস্ত পরিচালক বাছির

  অধিকার ডেস্ক

১১ জুলাই ২০১৯, ০৮:৩৮
দুদকের বরখাস্ত পরিচালক বাছির
দুদকের বরখাস্ত পরিচালক বাছির (ছবি : সংগৃহীত)

দ্বিতীয় দফা তলবেও হাজির হননি দুদকের বরখাস্ত পরিচালক খন্দকার এনামুল বাছির। কারণ হিসেবে তিনি জানিয়েছেন, আইনজীবীকে প্রবেশের অনুমতি দেওয়া হয়নি তাই তিনি দুর্নীতি দমন কমিশনে (দুদক) হাজির হননি।

তার আইনজীবী অ্যাডভোকেট কামাল হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, আইনজীবীকে ছাড়া তিনি দুদকে হাজির হবেন না।

বুধবার (১০ জুলাই) রাজধানীর সেগুনবাগিচায় দুদক প্রধান কার্যালয়ে হাজির হওয়ার কথা ছিল বাছিরের। এ নিয়ে পর পর দুই দফা দুদক তলব করার পরও তিনি হাজির হলেন না।

বাছিরকে প্রথম দফায় গত ২৪ জুন নোটিশ পাঠিয়ে ১ জুলাই তলব করে দুদক। ওইদিন অসুস্থতার অজুহাতে উপস্থিত হননি তিনি। এরপর দ্বিতীয় দফায় নোটিশ পাঠিয়ে ১০ জুলাই দুদকে হাজির হতে বলা হয় তাকে। এবার আইনজীবীকে সঙ্গে নিয়ে যাওয়ার অনুমতি না মেলায় হাজির হলেন না তিনি।

পুলিশের বিতর্কিত ডিআইজি মিজানুর রহমান ও বাছিরের মধ্যে ঘুষ লেনদেনের ঘটনায় দুদকের অনুসন্ধান কমিটি গঠন হয় ১৩ জুন। তিন সদস্যের এ কমিটির প্রধান দুদক পরিচালক শেখ মো. ফানাফিল্যাহ। অন্য দুই সদস্য হলেন সংস্থাটির সহকারী পরিচালক গুলশান আনোয়ার প্রধান ও মো. সালাউদ্দিন।

প্রসঙ্গত, ডিআইজি মিজানের সম্পদের অনুসন্ধান করে তদন্ত রিপোর্ট জমা দেওয়ার আগ মুহূর্তে দুদক কর্মকর্তা খন্দকার এনামুল বাছিরের বিরুদ্ধে ঘুষ নেওয়ার অভিযোগ ওঠে। ডিআইজি মিজান নিজেই দাবি করেন দু’দফায় মোট ৪০ লাখ টাকা ঘুষ নেন বাছির। একটি বেসরকারি চ্যানেলে এ বিষয়ে অডিও রেকর্ডও ফাঁস করেন তিনি। এ ঘটনার পর খন্দকার এনামুল বাছিরকে সাময়িক বরখাস্ত ও ওই অনুসন্ধানের দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দেয় দুদক।

ওডি/এসএস

অপরাধের সূত্রপাত কিংবা ভোগান্তির কথা জানাতে সরাসরি দৈনিক অধিকারকে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মোঃ তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৮-২০১৯

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড