• বুধবার, ২৯ মে ২০২৪, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১  |   ৩০ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

'মানুষের হাত-পা কেটে পৈশাচিক আনন্দ উপভোগ করতেন মিল্টন'

  নিজস্ব প্রতিবেদক

০৫ মে ২০২৪, ১৬:৫৮
মিল্টন সমাদ্দার

‘চাইল্ড অ্যান্ড ওল্ড এজ কেয়ার’ আশ্রমের চেয়ারম্যান মিল্টন সমাদ্দারের মানুষের হাত-পা কেটে পৈশাচিক আনন্দ উপভোগ করতেন বলে জানিয়েছেন ডিএমপির অতিরিক্ত কমিশনার (গোয়েন্দা) মোহাম্মদ হারুন অর রশীদ।

রোববার রাজধানীর মিন্টোরোডের নিজ কার্যালয়ে সাংবাদিকদের এসব তথ্য জানান ডিবিপ্রধান।

হারুন অর রশীদ জানান, জিজ্ঞাসাবাদে ভয়াবহ ও লোমহর্ষক তথ্য বেরিয়ে এসেছে। মাদকাসক্ত মিল্টন মানুষের হাত-পা কেটে পৈশাচিক আনন্দ উপভোগ করতেন। তিনি বিভিন্ন জায়গা থেকে বৃদ্ধ, প্রতিবন্ধী ও রোগাক্রান্তদের ধরে আনতেন। তাদের দেখিয়ে বিভিন্ন জায়গা থেকে অনুদান নিতেন, যা এসব মানুষদের পেছনে খরচ করতেন না। বরং তারা অসুস্থ হলে নিজেই তাদের চিকিৎসার নামে অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ কেটে ফেলতেন।

তিনি বলেন, মিল্টন সমাদ্দারের অ্যাকাউন্টে প্রচুর টাকা। তার অ্যাকাউন্টে ১ কোটি ৪৫ লাখ টাকার ওপরে জমা আছে। কিন্তু এই টাকা তিনি খরচ করেননি। এই বিষয়গুলো আমরা তদন্তে নিয়ে এসেছি। তিনি যদি মানবতার ফেরিওয়ালা হয়ে থাকে তাহলে তো এই টাকাগুলো খরচ করার কথা। রোগীদের হাসপাতালে পাঠানোর কথা। কেউ মারা গেলে হাসপাতালকে জানাবে, থানাকে জানাবে, যদি মৃতের ঠিকানা না থাকে তাহলে মিডিয়ার মাধ্যমে জানাবে। কিন্তু তিনি কিছুই করেননি।

ডিবি প্রধান বলেন, মিল্টন সমাদ্দার এখন আমাদের কাছে স্বীকার করেছেন তিনি ৯শ’ লাশ দাফন করেননি। তিনি ১৩৫ থেকে ১৪০টি লাশ দাফন করেছেন। ফেসবুকে ৯০০ লাশ দাফনের কথা বললে প্রচুর টাকা পাবেন তাই তিনি বেশি প্রচার করেছেন। কিন্তু এই ১৩৫ জনের রেজিস্ট্রিও তিনি দেখাতে পারেননি। তাই আমরা এই বিষয়গুলো নজরে এনেছি।

এর আগে রাজধানীর মিরপুর থেকে ১ মে রাতে মিল্টন সমাদ্দারকে গ্রেফতার করে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) মিরপুর জোনাল টিম। তার বিরুদ্ধে এরই মধ্যে মিরপুর মডেল থানায় ৩টি মামলা করা হয়েছে।

অপরাধের সূত্রপাত কিংবা ভোগান্তির কথা জানাতে সরাসরি দৈনিক অধিকারকে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

নির্বাহী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118243, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড