• বৃহস্পতিবার, ২৬ মে ২০২২, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯  |   ৩২ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

অপো বাংলাদেশের ৫ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ

  প্রযুক্তি ডেস্ক

১৩ মে ২০২২, ২১:২১
প্রতীকী ছবি

কর্মক্ষেত্রে হয়রানি এবং যৌন নিপীড়নের অভিযোগ উঠেছে অপো বাংলাদেশের শীর্ষ পর্যায়ের পাঁচ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে। আর এই অভিযোগ করেছেন তাদেরই এক সহকর্মী (বর্তমানে সাবেক), যিনি অপো বাংলাদেশের পাবলিক রিলেশন ম্যানেজার, ব্র্যান্ডিং ছিলেন। যিনি ২০২১ সালের জুন মাসে বাংলাদেশ কমিউনিকেশন ইক্যুপমেন্ট কোম্পানি লিমিটেড (অপো) এবং পাঁচ কর্মকর্তাকে আইনি নোটিসও দিয়েছেন।

সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ব্যারিষ্টার হাফিজুর রহমান খান অভিযোগকারীর পক্ষে ওই নোটিস পাঠান।

ওই নোটিসের অনুলিপি শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের সচিব বরাবরেও দেয়া হয়। ১০ পাতার ওই নোটিসে অভিযোগ ও ঘটনা তুলে ধরেছেন। এতে ২৫টি প্যারা ২৫টি নাম্বারে উল্লেখিত রয়েছে। কিন্তু আজ পর্যন্ত অভিযোগকারী কোনো বিচার পাননি বরং নানাভাবে হয়রানির শিকার হয়েছেন ভুক্তভোগী।

অভিযোগকারী নোটিসে তাকে যৌনপীড়ন এবং কর্মক্ষেত্রে হয়রানি করার জন্য কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা বা পদক্ষেপ চান। সেখানে তিনি অপোর কাছে ১০ লাখ ২৫ হাজার টাকা পাওনার বিষয়েও ছাড়পত্র চান। নোটিস পাওয়ার তিন দিনের মধ্যে ব্যবস্থা চান।

এছাড়া নোটিসে তিনি বলেন, তার চরিত্র হননের চেষ্টায় অপপ্রচার বা গুজব চালানো হচ্ছে, যে বিষয়ে পর্যাপ্ত প্রমাণ তার কাছে রয়েছে।

নির্যাতনের অভিযোগকারী ওই কর্মকর্তা বলেন, অনেক চেষ্টার পরও আমি বিচার পাইনি, পাওনাও পাইনি। নতুন চাকরিতে যোগদানের পর বিষয়টি নিয়ে আর এগুতে পারিনি। কিন্তু আমি বিচার চাই।

তিনি আরও বলেন, অনেক বিষয়ে অনেক অনিয়ম-দুর্নীতি রয়েছে। বাংলাদেশে তারা অবৈধ কার্যক্রমের সঙ্গে যুক্ত। তারা সরকারের ট্যাক্স ফাঁকি দিচ্ছে, মানিলন্ডারিং করছে- এমন অনেক অভিযোগ রয়েছে তাদের বিরুদ্ধে।

যৌন হয়রানির অভিযোগসহ বিভিন্ন অভিযোগের বিষয়ে অপো বাংলাদেশের কাছে জানতে চাওয়া হয়। অপো বাংলাদেশের পক্ষে ব্লাকবোর্ড স্ট্র্যাটেজিস এশিয়াটিক ৩৬০ জবাব দেয়। যেখানে অনেক অভিযোগের মধ্যে দুটি বিষয়ে আংশিক উল্লেখ থাকলেও এ যৌন হয়রানির বিষয়ে কোনো বক্তব্য নেই। সেখানে সাধারণ বক্তব্য হিসেবে বলা হয়েছে, ‘একটি দায়িত্বশীল প্রতিষ্ঠান হিসেবে বাংলাদেশসহ পৃথিবীর যে দেশেই অপো তাদের কার্যক্রম পরিচালনা করে সেখানকার দেশের আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। প্রতিটি অংশীদারদের স্বার্থ রক্ষার্থে অপো সব সময় প্রয়োজনীয় উদ্যোগ গ্রহণ করে।’

সুপ্রীম কোর্টের আইনজীবী ব্যারিষ্টার মোহাম্মদ হাফিজুর রহমান খান জানান, এই যৌন হয়রানির অভিযোগ ধামাচাপা দেয়ার অনেক চেষ্টা করেছে অপো। প্রতিষ্ঠানটির উচিত ছিলো ব্যবস্থা নেওয়ার, কিন্তু তারা তা করেনি। বিদেশি একটি কোম্পানি দেশে এমন কার্যকলাপ তো গ্রহণযোগ্য নয়।

ওডি/এএম

অপরাধের সূত্রপাত কিংবা ভোগান্তির কথা জানাতে সরাসরি দৈনিক অধিকারকে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

সহযোগী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড