• রবিবার, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯, ১ পৌষ ১৪২৬  |   ১৮ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

ক্রিকেট বিশ্বকাপ-২০১৯

এক নজরে বিশ্বকাপ ফাইনালের স্কোরকার্ড

  ক্রীড়া ডেস্ক

১৫ জুলাই ২০১৯, ১০:১২
দ্বাদশ বিশ্বকাপের চ্যাম্পিয়ন ইংল্যান্ড (ছবি : সংগৃহীত)
দ্বাদশ বিশ্বকাপের চ্যাম্পিয়ন ইংল্যান্ড (ছবি : সংগৃহীত)

নাটকীয়তা হয়তো একেই বলে। নিউজিল্যান্ড ও ইংল্যান্ডের মধ্যকার ম্যাচ হলো টাই। তাতে ইতিহাসের প্রথমবারের মতো ওয়ানডে ম্যাচে সুপার ওভার দেখে বিশ্ব। মজার ব্যাপার সেই সুপার ওভারও হলো টাই। ম্যাচ ও সুপার ওভার টাই হওয়ার পরও ইংলিশরা চ্যাম্পিয়ন হয়েছে আইসিসির নিয়মের কারণে। ম্যাচ ও সুপার ওভার মিলিয়ে সর্বোচ্চ বাউন্ডারি হাঁকিয়ে মূলত চ্যাম্পিয়ন হয়েছে স্বাগতিকরা।

রবিবার (১৪ জুলাই) ক্রিকেটের মক্কা লর্ডসে টস জিতে ইংরেজ বোলারদের দুর্দান্ত বোলিংয়ে ২৪১ রানেই গুটিয়ে যায় নিউজিল্যান্ড। ম্যাচে তিন উইকেট নেন লিয়াম প্লাঙ্কেট ও ক্রিস ওকস। ১টি করে উইকেট নিয়েছেন মার্ক উড ও জোফরা আর্চার। কিউইদের হয়ে সর্বোচ্চ ৫৫ রান করেন বাঁ-হাতি ওপেনার হেনরি নিকোলস। উইকেটরক্ষক টম লাথাম ও অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন যথাক্রমে ৪৭ ও ৩০ রান করেন।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়ে ইংলিশরা। এরপর দলের হাল ধরেন স্টোকস ও বাটলরা। বাটলার ৫৯ ও স্টোকস অপরাজিত ৮৪ রান করলেও ৫০ ওভারে সব কয়টি উইকেট হারিয়ে ইংলিশরাও থামে ঠিক ২৪১ রানে। ম্যাচে কিউইরা ১৬ টি বাউন্ডারি হাঁকায়, আর ইংলিশরা বাউন্ডারি হাঁকায় ২৪টি।

টাই হওয়ায় ম্যাচ গড়ায় সুপার ওভারে। প্রথমে ব্যাট করে দুই চারে ১৫ রান করেন বাটলার ও স্টোকস। জবাবে শেষ বলে গাপটিল রান আউট হলে নিউজিল্যান্ডও থামে ঠিক ১৫ রানে। সুপার ওভারে একটি ছয় হাঁকান কিউই ব্যাটসম্যান নিশাম। ম্যাচ ও সুপার ওভার দুটোই টাই হওয়ার পরও জয়ের উল্লাসে ফেটে পড়ে ইংলিশরা। আইসিসির নিয়ম অনুযায়ী ফাইনালের ম্যাচ টাই হলে তা গড়াবে সুপার ওভারে। সুপার ওভারেও যদি টাই হয় তবে যে দল বাউন্ডারি বেশি হাঁকাবে তারাই চ্যাম্পিয়ন হবে। আর সে কারণে ম্যাচ না জিতেও বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন ইংল্যান্ড।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

নিউজিল্যান্ড : ৫০ ওভারে ২৪১/৮ (গাপটিল ১৯, নিকোলস ৫৫, উইলিয়ামসন ৩০, টেইলর ১৫, লাথাম ৪৭, নিশাম ১৯, গ্রান্ডহোম ১৬, স্যান্টনার ৫*, হেনরি ৪, বোল্ট ১*; ওকস ৩/৩৭, আর্চার ১/৪২, প্লাঙ্কেট ৩/৪২, উড ১/৪৯, রশিদ ০/৩৯, স্টোকস ০/২০)।

ইংল্যান্ড : ৫০ ওভারে ২৪১ (রয় ১৭, বেয়ারস্টো ৩৬, রুট ৭, মরগান ৯, স্টোকস ৮৪, বাটলার ৫৯, ওকস ২, প্লাঙ্কেট ১০, আর্চার ০, রশিদ ০, উড ০; বোল্ট ০/৬৭, হেনরি ১/৪০, গ্রান্ডহোম ১/২৫, ফার্গুসন ৩/৫০, নিশাম ৩/৪৩, স্যান্টনার ০/১১)।

ফল : ম্যাচ ও সুপার ওভার টাই। বেশি বাউন্ডারি মেরে জয়ী ইংল্যান্ড

ম্যাচ সেরা : বেন স্টোকস (৯৮ বলে ৮৪ রান)। 

টুর্নামেন্ট সেরা : কেন উইলিয়ামসন (১০ ম্যাচে ৫৭৮ রান)। 

ওডি/এএপি 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন সজীব 

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড