• বুধবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৩ আশ্বিন ১৪২৬  |   ৩০ °সে
  • বেটা ভার্সন

সর্বশেষ :

ক্যাসিনোর মালিক যুবলীগ নেতা খালেদসহ আটক ১৪২  ||বিমানের উন্নতির জন্য সর্বোচ্চ চেষ্টার প্রতিশ্রুতি মোকাব্বিরের ||আন্দোলনকারীদের ওপর ছাত্রলীগের হামলা, প্রতিবাদে ঢাবিতে বিক্ষোভ  ||সৌদিতে হামলার সঙ্গে ইরান জড়িত নয় : জাপান||পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে ফোনালাপ, যা বললেন আবদুল মোমেন||ছাত্রদলের কাউন্সিলরদের সঙ্গে জরুরি বৈঠকে বসছেন তারেক||হংকংয়ে শান্তি ফেরাতে আবারও সংলাপ চান ক্যারি ল্যাম||বাংলাদেশে মানুষ পাঠানোর ষড়যন্ত্র করছে ভারত : মওদুদ||জাতিসংঘে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে বিশ্বের জোরালো ভূমিকা চাইবেন প্রধানমন্ত্রী ||ইসরায়েলি সেনাদের গুলিতে ফিলিস্তিনি নারীর নির্মম মৃত্যু (ভিডিও)

হলি আর্টিজান মামলায় সাক্ষ্য দিলেন দুই ম্যাজিস্ট্রেট

  অধিকার ডেস্ক

১১ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১৬:৩৩
হলি আর্টিজান রেস্তোরাঁ
হলি আর্টিজান রেস্তোরাঁয় জঙ্গিদের বিরুদ্ধে কমান্ডো অভিযান (ফাইল ফটো)

রাজধানীর হলি আর্টিজান রেস্তোরাঁয় ভয়াবহ জঙ্গি হামলার ঘটনায় মামলায় সাক্ষ্য দিয়েছেন দুই ম্যাজিস্ট্রেট। হামলার তিন বছরে মামলার ২১১ সাক্ষীর মধ্যে এ পর্যন্ত ১০৮ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ শেষ হয়েছে।

বুধবার (১১ সেপ্টেম্বর) সন্ত্রাসবিরোধী বিশেষ ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. মুজিবুর রহমান দুই ম্যাজিস্ট্রেটের সাক্ষ্যগ্রহণ করেন।

সাক্ষ্য দেওয়া দুই ম্যাজিস্ট্রেট হলেন- সে সময়ে ঢাকা মেট্রোপলিটনের ম্যাজিস্ট্রেট মাসুদ জামান ও মাজাহারুল ইসলাম। এ মামলায় আগামী ২ অক্টোবর পরবর্তী সাক্ষ্যগ্রহণ করা হবে বলে জানিয়েছে।

সাক্ষীরা আদালতকে জানান, মেট্রোপলিটনের ম্যাজিস্ট্রেট থাকার সময় আসামিরা ফৌজদারি কার্যবিধিতে তাদের দোষ স্বীকার করে জবানবন্দি দেয়, তা সে সময় লিপিবদ্ধ করা হয়।

উল্লেখ্য, দীর্ঘ তিন বছর আগে ২০১৬ সালের ১ জুলাই রাজধানীর হলি আর্টিজান রেস্তোরাঁয় জঙ্গিরা হামলা চালায়। এতে ১৭ জন বিদেশি নাগরিকসহ ২০ জনের মৃত্যু হয়। ওই হামলায় নগর গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের সহকারী কমিশনার (এসি) রবিউল ইসলাম এবং বনানী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সালাউদ্দিন বোমার স্প্লিন্টার বিদ্ধ হয়ে মারা যান। 

ওডি/এসএ 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মো: তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড