• বৃহস্পতিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৪ আশ্বিন ১৪২৬  |   ৩০ °সে
  • বেটা ভার্সন

নুসরাতকে পুড়িয়ে হত্যা মামলার যুক্তিতর্ক কাল

  অধিকার ডেস্ক

১০ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১০:৫৫
নুসরাত জাহান রাফি
মাদ্রাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফি (ফাইল ছবি)

ফেনীর সোনাগাজীতে আলোচিত মাদ্রাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফিকে আগুনে পুড়িয়ে হত্যা মামলার যুক্তিতর্ক উপস্থাপন করা হবে আগামীকাল বুধবার (১১ সেপেটম্বর)। দুপক্ষের যুক্তিতর্ক শেষে মামলার রায়ের দিন ধার্য করা হতে পারে বলে জানিয়েছেন আদালতের পিপি অ্যাডভোকেট হাফেজ আহমেদ ।

রবিবার (৮ সেপ্টেম্বর) ফেনীর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মামুনুর রশিদ যুক্তিতর্ক তুলে ধরার জন্য এই দিন নির্ধারণ করেন।

এ বিষয়ে বাদীর আইনজীবী অ্যাডভোকেট এম শাহ জাহান সাজু গণমাধ্যমকে বলেন, ‘নুসরাতকে আগুনে পুড়িয়ে হত্যা মামলার প্রধান আসামিদের আবেদনের প্রেক্ষিতে রবিবার আদালতে মামলার বাদী ও তার বড় ভাই মাহমুদুল হাসান নোমান ও পিবিআইর তদন্ত কর্মকর্তা শাহ আলমের ফের সাক্ষ্য দেন।’

মে মাসের ৯ তারিখে আদালতে পিবিআই ১৬ জনকে অভিযুক্ত করে ৮শ ৮ পৃষ্ঠার অভিযোগপত্র জমা দেয়। চার্জশিটভুক্ত ১৬ আসামির মধ্যে ১২ জন আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে। ৩০ মে মামলাটি ফেনীর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে স্থানান্তর করা হয়। জুনের ১০ তারিখে আদালত মামলাটি আমলে নিলে শুনানি শুরু হয়। ২০ জুন অভিযুক্ত ১৬ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেন বিচারিক আদালত।

জুন মাসের ২৭ ও ৩০ তারিখে মামলার বাদী ও নুসরাতের ভাই মাহমুদুল হাসান নোমানকে জেরার মধ্য দিয়ে এই মামলার বিচার কাজ শুরু হয়। এই মামলার মোট ৯২ জন সাক্ষীর মধ্যে ৮৮ জনের সাক্ষ্যগ্রহণের মাধ্যমে সাক্ষ্যগ্রহণ ও জেরা সম্পন্ন করেন আদালত।

প্রসঙ্গত, চলতি বছরের ২৭ মার্চ সোনাগাজী ইসলামিয়া ফাজিল মাদ্রাসার আলিম পরীক্ষার্থী নুসরাত জাহান রাফিকে যৌন নিপীড়নের দায়ে মাদ্রাসার অধ্যক্ষ সিরাজ-উদ-দৌলাকে গ্রেফতার করে পুলিশ। পরে ৬ এপ্রিল ওই মাদ্রাসার সাইক্লোন শেল্টারের ছাদে নিয়ে অধ্যক্ষের সহযোগীরা নুসরাতের শরীরে আগুন ধরিয়ে দেয়। টানা পাঁচ দিন  ঢাকা মেডিকেলে মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ে মারা যান নুসরাত।

এ ঘটনায় ৮ এপ্রিল নুসরাতের বড় ভাই মাহমুদুল হাসান নোমান বাদী হয়ে অধ্যক্ষ সিরাজ-উদ-দৌলাসহ আটজনের নাম উল্লেখ করে সোনাগাজী মডেল থানায় মামলা করেন। পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) অধ্যক্ষ সিরাজ-উদ-দৌলাসহ ১৬ জনের সর্বোচ্চ শাস্তির সুপারিশ করে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন।

ওডি/এএস

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মো: তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড