• শনিবার, ২৫ জানুয়ারি ২০২০, ১১ মাঘ ১৪২৬  |   ১৩ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

প্রাথমিকের ৬৬৯ শিক্ষকের নিয়োগ স্থগিত

  আদালত প্রতিবেদক

১৫ জানুয়ারি ২০২০, ১৭:০৫
হাইকোর্ট
হাইকোর্ট (ছবি : সংগৃহীত)

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় নীলফামারী ও বরগুনা জেলার ঘোষিত চূড়ান্ত ফলাফল ছয় মাসের জন্য স্থগিত করেছেন হাইকোর্ট। দুই জেলার ২১ জনের করা রিট আবেদনের শুনানির জন্য এ আদেশ দেওয়া হয়। এতে নীলফামারীর ২৬৬ জন এবং বরগুনার ৪০৩ জনের নিয়োগ প্রক্রিয়া স্থগিত হয়।

বুধবার (১৫ জানুয়ারি) বিচারপতি শেখ হাসান আরিফ ও বিচারপতি মো. মাহমুদ হাসান তালুকদারের হাইকোর্ট বেঞ্চ রুলসহ এ আদেশ দেন।

আদালতে আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট মো. রেজাউল করিম।

তিনি জানান, প্রাথমিক বিদ্যালয় শিক্ষক নিয়োগ বিধিমালা ২০১৩ এর ৭ ধারায় বলা হয়েছে, এই বিধিমালার অধীন সরাসরি নিয়োগযোগ্য পদগুলোর ৬০ শতাংশ মহিলা প্রার্থীদের দ্বারা, ২০ শতাংশ পৌষ্য প্রার্থীদের দ্বারা এবং বাকি ২০ শতাংশ পুরুষ প্রার্থীদের দ্বারা পূরণ করা হইবে। কিন্তু ২৪ ডিসেম্বরের ঘোষিত ফলাফলের ক্ষেত্রে সেটা অনুসরণ করা হয়নি। তাই নীলফামারীর পিংকি রানী রায়সহ ২০ জন ও বরগুনা জেলার এক প্রার্থী হাইকোর্টে রিট করেন।

রেজাউল করিম আরও বলেন, ‘বুধবার আদালত দুই জেলার ফলাফলের ওপর ছয় মাসের স্থগিতাদেশ দিয়ে রুল জারি করেছেন।’

আরও পড়ুন : উপাচার্যসহ তিনজনের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ

এর আগে মঙ্গলবার (১৪ জানুয়ারি) ১৬ নিয়োগ প্রার্থীর করা আরেক রিট আবেদনের শুনানি নিয়ে বিচারপতি এম ইনায়েতুর ও রহিম ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানের হাইকোর্ট বেঞ্চ একটি রুল জারি করেছিলেন। ওই রিটের আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী মো. কামাল হোসেন। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন- ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল অমিত তালুকদার।  

গত ২৪ ডিসেম্বর রাতে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় মৌখিক পরীক্ষায় ১৮ হাজার ১৪৭ জন প্রার্থীকে নির্বাচন করে।

ওডি/নূর

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড