• শুক্রবার, ০৭ আগস্ট ২০২০, ২৩ শ্রাবণ ১৪২৭  |   ২৮ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

জামিনে ছাড়া পেলেন কণ্ঠশিল্পী আসিফ

  অধিকার ডেস্ক

২১ নভেম্বর ২০১৯, ০৫:৫৮
কণ্ঠশিল্পী
কণ্ঠশিল্পী আসিফ আকবর (ছবি : সংগৃহীত)

মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে দায়ের করা মামলায় আত্মসমর্পণ করার পর জামিন মুক্তি পেয়েছেন কণ্ঠশিল্পী আসিফ আকবর।

বুধবার (২০ নভেম্বর) ঢাকা মহানগর আদালতে আত্মসমর্পণের পর উভয়পক্ষের শুনানি শেষে পাঁচ হাজার টাকা মুচলেকার বিনিময়ে বিচারক জিয়াউর রহমান তার জামিনের আবেদন মঞ্জুর করেন।

এর আগে চলতি বছরের ১৩ নভেম্বর তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইন এবং মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে পৃথক দুইটি মামলায় কণ্ঠশিল্পী আসিফের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র জমা দেয় পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি)। পৃথক এই মামলা দুইটির তদন্ত কর্মকর্তারা হলেন- সিআইডির এসআই প্রশান্ত কুমার শিকদার ও জামাল উদ্দিন।

প্রশান্ত কুমার জানান, প্রতারণাসহ তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তির মামলায় তিনি কণ্ঠশিল্পী আসিফ আকবরের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। এর আগে আসিফের বিরুদ্ধে মামলাটি দায়ের করেন গীতিকার, সুরকার ও গায়ক শফিক তুহিন। মামলায় তুহিন অভিযোগ আনেন, অনুমতি ছাড়াই তার সংগীতকর্মসহ অন্য গীতিকার, সুরকার ও শিল্পীদের ৬১৭টি গান সবার অজান্তে বিক্রি করেছেন কণ্ঠশিল্পী আসিফ আকবর।

এরপর তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইনে দায়েরকৃত এই মামলায় গ্রেফতারের পর ২০১৮ সালের ৬ জুন আসিফ আকবরকে ঢাকার আদালতে তোলা হয়। অবশ্য পরে আদালত এই মামলায় আসিফকে জামিন প্রদান করে।

এ দিকে, ২০১৮ সালের ৫ জুন রাতে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইনে দায়েরকৃত ওই মামলায় আসিফকে গ্রেফতারের সময় তার মগবাজারের অফিস থেকে চার বোতল অবৈধ বিদেশি মদ উদ্ধার করা হয়। এ সময় উদ্ধারকৃত বিদেশি মদগুলো পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরে প্রেরণ করা হয়।

পরবর্তীকালে লাইসেন্স ছাড়া বিদেশি মদ রাখায় আসিফের বিরুদ্ধে চলতি বছরের ২৩ জুলাই তেজগাঁও থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে কণ্ঠশিল্পী আসিফের বিরুদ্ধে পৃথক আরেকটি মামলা দায়ের করা হয়।

ওডি/আইএইচএন

jachai
nite
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
jachai

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: inbox.odhik[email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড