• মঙ্গলবার, ১২ নভেম্বর ২০১৯, ২৮ কার্তিক ১৪২৬  |   ২৬ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

ঘুমন্ত শিশুকে কোলে করে আনেন বাবা, খুন করেন চাচা

  সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি

১৫ অক্টোবর ২০১৯, ২০:২১
তুহিন মিয়া
প্রেস ব্রিফিং করছেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. মিজানুর রহমান (ছবি : দৈনিক অধিকার)

সুনামগঞ্জের দিরাই উপজেলায় শিশু তুহিনকে (৫) হত্যার দায় স্বীকার করেছেন দুই চাচাসহ তার বাবা। 

মঙ্গলবার (১৫ অক্টোবর) সন্ধ্যায় এক সংবাদ সম্মেলনে আলোচিত এই খুনের ঘটনা সম্পর্কে এমন চাঞ্চল্যকর তথ্য দিয়েছে সুনামগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. মিজানুর রহমান।

পুলিশ সুপার জানান, শিশু তুহিন খুনের নৃশংস ঘটনায় তার বাবা, তিন চাচা ও চাচাতো ভাই জড়িত ছিল। প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে ঠান্ডা মাথায় বাবা-চাচারা মিলে খুন করে ৫ বছরের শিশু তুহিনকে। ঘুমন্ত শিশুটিকে বাবা আব্দুল বাছির কোলে করে বাড়ির বাইরে নিয়ে যান। বাবার কোলেই ঘুমন্ত অবস্থায় শিশু তুহিনকে ছুরি দিয়ে জবাই করে চাচা নাসির উদ্দিন।

তিনি আরও জানান, এ সময় নাসিরকে সহযোগিতা করেছিল অপর দুই চাচা মছব্বির ও জমসেদ এবং চাচাতো ভাই শাহরিয়ার। 

এর আগে সুনামগঞ্জ সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে ১৬৪ ধারা জবানবন্দিতে খুনের ঘটনায় সম্পৃক্ততার কথা নিশ্চিত করেছে শিশু তুহিনের চাচা নাসির উদ্দিন ও চাচাতো ভাই শাহরিয়ার।  

ঘটনায় জড়িত বাবা আব্দুল বাছির, চাচা মছব্বির আলী ও জমসেদ আলীকে তিন দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। 

উল্লেখ্য, গত ১৪ অক্টোবর ভোরে দিরাই উপজেলা কেজাউড়া গ্রামে পরিবারের অগোচরে ৫ বছরের  শিশু তুহিনকে কে বা কারা শিশুটির কান ও যৌনাঙ্গ কেটে হত্যার পর লাশটি গাছের সঙ্গে রশি দিয়ে বেঁধে রাখে এবং হত্যায় ব্যবহৃত দুটি ছুরি তার পেটে ঢুকিয়ে রেখে চলে যায়। 

ভিডিও লিংক:  এখানে ক্লিক করুন

ওডি/এএসএল

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- inbox[email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মো: তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড