• বুধবার, ১৬ অক্টোবর ২০১৯, ১ কার্তিক ১৪২৬  |   ২৭ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

ঝালকাঠিতে মা ইলিশ রক্ষায় প্রশাসনের অভিযান

  ঝালকাঠি প্রতিনিধি

০৯ অক্টোবর ২০১৯, ১৮:২১
অভিযান
মা ইলিশ রক্ষায় সুগন্ধা ও বিষখালী নদীতে অভিযানকালে জেলা প্রশাসক মো. জোহর আলীসহ অন্যান্যরা (ছবি : দৈনিক অধিকার)

মা ইলিশ রক্ষায় নিষেধাজ্ঞার প্রথম দিনেই ঝালকাঠির বিভিন্ন নদীতে অভিযান চালিয়ে এক হাজার মিটার জাল জব্দ করছে জেলা প্রশাসন।

মঙ্গলবার (৮ অক্টোবর) দিবাগত রাত ১২টা থেকে বুধবার (৯ অক্টোবর) দুপুর পর্যন্ত ঝালকাঠির সুগন্ধা ও বিষখালী নদীতে জেলা প্রশাসক মো. জোহর আলীর নেতৃত্বে অভিযান চালিয়ে এক হাজার মিটার ইলিশ ধরার জাল জব্দ করা হয়। 

জেলা প্রশাসকের কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, রাতে সুগন্ধা ও বিষখালী নদীতে অভিযান চালানোর সময় পোনাবালিয়া এলাকায় নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে ইলিশ স্বীকার করছিল জেলেরা। এ সময় অভিযানের বিষয়টি টের পেয়ে নৌকা ও জাল ফেলে মাছ নিয়ে পালিয়ে যায় বেশ কয়েকজন জেলে। পরে নদী থেকে ইলিশ ধরার এক হাজার মিটার জাল ও দুইটি নৌকা জব্দ করেন জেলা প্রশাসক মো. জোহর আলী। তবে, এ সময় জেলেদের আটক করা সম্ভব হয়নি। অভিযানে সহকারী কমিশনার (ভ’মি) লুৎফুননেছা খানম, এনডিসি মো. বশির গাজী, নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মাহমুদা জাহান ও মাছুমা আক্তার অংশ নেন।

এ দিকে, ঝালকাঠি শহরের বড় বড় মাছের বাজারে অভিযান চালিয়ে চারজন মাছ ব্যবসায়ীকে তিন দিনের কারাদণ্ডসহ একজনকে ৫শ টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। বুধবার দুপুরে এ অভিযানটি পরিচালনা করা হয়। 

অভিযানে ইলিশ নিধন বিরোধী অভিযান বাধাগ্রস্ত করা এবং যোটক ইলিশ বিক্রির দায়ে তাদের এ দণ্ড প্রদান করেন জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট (এনডিসি) মো. বশির গাজী। এ সময় জেলা মৎস্য কর্মকর্তা বাবুল কৃষ্ণ ওঝা উপস্থিত ছিলেন। 

কারাদণ্ডের বিষয়টি নিশ্চিত করে জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট (এনডিসি) মো. বশির গাজী জানান, বুধবার ভ্রাম্যমাণ আদালত শহরের কালিবাড়ি সড়কের বড় মাছের বাজারগুলোতে অভিযানে যায়। এ সময় কয়েকজন ব্যবসায়ীকে জাটকা ইলিশ বিক্রয় করার সময় হাতেনাতে আটক করা হয়। পরে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নিতে গেলে কয়েকজন মাছ ব্যবসায়ী বাধার সৃষ্টি করে। 

এরপর পুলিশের সহযোগিতায় মাছ ব্যবসায়ী আবদুল মান্নান, ছোহরাব ব্যাপারি, কালাম ব্যাপারি ও আকিব ব্যাপারিকে আটক করে তিন দিনের কারাদণ্ড প্রদান করা হয়। এছাড়া শহিদুল ইসলাম নামে অপর এক মাছ ব্যবসায়ীকে ৫শ টাকা জরিমানা করা হয়। 

এ ব্যাপারে জেলা মৎস্য কর্মকর্তা বাবুল কৃষ্ণ ওঝা বলেন, ৯ অক্টোবর থেকে আগামী ৩০ অক্টোবর পর্যন্ত মা ইলিশের প্রজনন নিরাপদ করার জন্য টানা ২২ দিন ইলিশ আহরণ, ক্রয়-বিক্রয়, পরিবহন ও মজুদ পুরোপুরি নিষিদ্ধ করা হয়েছে। এ সময়ের মধ্যে যারা নদীতে মাছ ধরতে নামবে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

ওডি/আইএইচএন

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মো: তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড