• বৃহস্পতিবার, ১৭ অক্টোবর ২০১৯, ২ কার্তিক ১৪২৬  |   ২৬ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

ধর্ষণ ও মাদকের পৃথক মামলায় চার যুবকের যাবজ্জীবন 

  কুষ্টিয়া প্রতিনিধি

০১ অক্টোবর ২০১৯, ১৮:২৫
যাবজ্জীবন
ধর্ষণ মামলায় যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্তরা (বামে) ও মাদক মামলায় সাজাপ্রাপ্ত যুবক সাদিক (ডানে) (ছবি : দৈনিক অধিকার)

স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ ও মাদকের পৃথক দুইটি মামলায় কুষ্টিয়ায় চার যুবককে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের নির্দেশ দিয়েছন আদালত।

মাদক মামলায় যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্তরা হলো- চুয়াডাঙ্গা জেলার দামুড়হুদা উপজেলার শিবনগর গ্রামের শহিদুল ইসলামের ছেলে সাদিকুল ইসলাম ওরফে সাদিক (৩০) ও পলাতক আসামি চন্দবাস গ্রামের মোহাম্মদ আলীর ছেলে হাবিবুর রহমান ওরফে হবি। একই সঙ্গে উভয়কে ৫০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

এ দিকে, স্কুলছাত্রী ধর্ষণ মামলায় যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত আসামিরা হলো- কুষ্টিয়ার মিরপুর উপজেলার চিথলিয়া গ্রামের শহীদ উদ্দিনের ছেলে মাসুদ রানা (২৬) এবং একই এলাকার খলিল উদ্দিনের ছেলে তরিকুল ইসলাম ওরফে গোসাই (২৮)। পাশাপাশি আদালত তাদের প্রত্যেককে এক লাখ টাকা অর্থদণ্ডে দণ্ডিত করেছেন।

মঙ্গলবার (১ অক্টোবর) সকাল ১১টার দিকে কুষ্টিয়া জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক অরূপ কুমার গোস্বামী মাদক মামলার এক আসামির উপস্থিতিতে ও বেলা ১২টার দিকে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন বিশেষ আদালতের বিচারক মুন্সি মো. মশিয়ার রহমান ধর্ষণ মামলার আসামিদের উপস্থিতিতে জনাকীর্ণ আদালতে এ রায় ঘোষণা করেন।

আদালত সূত্রে জানা যায়, ২০১৭ সালের ১৩ অক্টোবর দুপুরে কুষ্টিয়া শহরের চাউলের বর্ডার এলাকায় ৩শ বোতল ফেনসিডিলসহ আসামি সাদিক ও হবিকে আটক করে গোয়েন্দা পুলিশ। পরে তাদের বিরুদ্ধে মামলা দায়েরসহ আটককৃতদের কুষ্টিয়া মডেল থানায় সোপর্দ করা হয়। একই বছরের ২৮ ডিসেম্বর মামলার তদন্ত শেষে আদালতে চার্জশীট জমা দেয় পুলিশ।

এ দিকে, ২০১৩ সালের ৩০ সেপ্টেম্বর বিকাল সাড়ে ৩টার দিকে মিরপুর উপজেলার ভাড়ল গ্রাম থেকে নানির বাড়ি চিথলিয়া গ্রামে যাওয়ার পথে ওই ছাত্রীকে তুলে নিয়ে যায় অভিযুক্ত মাসুদ রানা ও তরিকুল ইসলাম। পরে উপজেলার কাটদহচর এলাকার একটি মাঠের হ্যাচারির পাশে ওড়না ও গামছা দিয়ে স্কুলছাত্রীর হাত-পা ও মুখ বেঁধে তাকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। পরবর্তীতে এ ঘটনায় ওই ছাত্রীর নানি সামেলা খাতুন বাদী হয়ে মিরপুর থানায় একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন। এরপর তদন্ত শেষে ২০১৪ সালের ১ জানুয়ারি আদালতে মামলাটির চার্জশীট জমা দেয় পুলিশ।

দীর্ঘ শুনানি ও সাক্ষ্য-প্রমাণ শেষে মঙ্গলবার আদালত উভয় মামলার রায়ে অভিযুক্ত চার যুবককে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ও অর্থদণ্ডে দণ্ডিত করেন।

পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) অ্যাডভোকেট অনুপ কুমার নন্দী এবং নারী ও শিশু নির্যাতন দমন বিশেষ আদালতের পিপি অ্যাডভোকেট মেহেদী হাসান আদালতের এ রায়ের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

ওডি/আইএইচএন

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মো: তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড