• বৃহস্পতিবার, ১৭ অক্টোবর ২০১৯, ২ কার্তিক ১৪২৬  |   ২৭ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

মাদারীপুরে ব্যবসায়ীর ওপর হামলার প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল

  মাদারীপুর প্রতিনিধি

১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১৭:৩০
মাদারীপুর
বিক্ষোভ মিছিলে অংশগ্রহণকারীরা (ছবি : দৈনিক অধিকার)

মাদারীপুরের কালকিনি উপজেলার কালিগঞ্জ বাজারের ওয়ার্কশপ ব্যবসায়ী মো. মাহাবুব সরদারের (৩০) উপর সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা ঘটেছে। পরে স্থানীয় লোকজন তাকে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। এ ঘটনায় থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন ভুক্তভোগী পরিবার।

তবে চাঁদা দিতে রাজি না হওয়ায় ব্যবসায়ীর উপর এ হামলা চালিয়েছেন বলে ভুক্তভোগী পরিবারের দাবি।

বৃহস্পতিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে মাহাবুবের উপর সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে এবং বিচারের দাবিতে এক বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে বাজারের শতাধিক ব্যবসায়ীরা।

হামলার শিকার মাহাবুব সরদার উপজেলার আলীনগর এলাকার টুমচড় গ্রামের রশিদ সরদার ছেলে।

এদিকে থানা পুলিশ সকালে অভিযান চালিয়ে মো. শানাউল নামের একজন আসামিকে গ্রেফতার করেছে।

ভুক্তভোগী ও মামলা সূত্রে জানা গেছে, মাহাবুব সরদার দীর্ঘদিন যাবৎ কালিগঞ্জ বাজারে ব্যবসা করছেন। এর সুবাদে তার কাছে একই এলাকার ফাসিয়াতলা গ্রামের সেলিমের ছেলে হাসানসহ বেশ কয়েকজন মিলে চাঁদা দাবি করে। পরে গত ১৫ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যায় মাহাবুব তার দোকানের মালামাল ক্রয় করার জন্য ফাসিয়াতলা বাজারে যায়। এ সময় মাহাবুবের কাছে টাকা দাবি করেন কয়েকজন যুবক। এ দাবিকৃত চাঁদার টাকা দিতে রাজি না হওয়ায় হাসান, সোহাগ, তুষার, সানাউল, সলেমান, রেজাউল ও হাকিমসহ ৮-১০জন মিলে তাকে হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে ও দেশি অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে ফেলে রাখে। পরে স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করেন।

এ হামলার ঘটনায় আহত মাহাবুবের বাবা রশিদ সরদার বাদী হয়ে মো. হাসান, সোহাগ, তুষার, সানাউল, সলেমান, রেজাউল ও হাকিমসহ ১১ জনকে আসামি করে কালকিনি থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

মাহাবুবের উপর সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে এবং বিচারের দাবিতে এক বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছেন বাজারের শতাধিক ব্যবসায়ীরা।

এ সময় বক্তব্য রাখেন ব্যবসায়ী ফেরদাউস মোল্লা, ইউপি সদস্য দেলোয়ার হোসেন, যুবলীগের সভাপতি মো. ইলিয়াস হোসেন, বাজার কমিটির সভাপতি তালেব হাওলাদার ও সাধারণ সম্পাদক মো. রেজাউল চৌকিদার, প্রমুখ।

মামলার বাদী মো. রশিদ সরদার বলেন, আসামিরা আমার ছেলে মাহাবুবের কাছে দীর্ঘদিন ধরে চাঁদা দাবি করে আসছে। তাদের এ দাবিকৃত চাঁদার টাকা না পেয়ে তার উপর সন্ত্রাসী হামলা চালিয়েছে। এ সময় তার কাছে থাকা নগদ ১ লাখ টাকা ও মোবাইল ছিনিয়ে নিয়ে যায় হামলাকারীরা।

অভিযুক্ত আসামি হাসানের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তাকে এলাকায় পাওয়া যায়নি।

এ ব্যাপারে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা মো. আল ইমরান বলেন, আসামি শানাউলকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এবং বাকি আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

ওডি/এমবি

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মো: তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড