• বৃহস্পতিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৪ আশ্বিন ১৪২৬  |   ৩৪ °সে
  • বেটা ভার্সন

শেরপুরে পৃথক ঘটনায় বিদ্যুৎস্পৃষ্টে দুইজন নিহত

  শেরপুর প্রতিনিধি

১১ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১৮:০৫
বিদ্যুৎস্পৃষ্টে নিহত
(ছবি : প্রতীকী)

শেরপুরের পৃথক দুটি উপজেলায় বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে হাজেরা খাতুন (৭০) ও পারভীন বেগম নামে দুইজন নিহত হয়েছেন।

নিহত হাজেরা খাতুন শ্রীবরদী উপজেলার বকচর এলাকার মৃত আশকর আলীর স্ত্রী ও ঝিনাইগাতী উপজেলা নলকুড়া ইউনিয়নের গজারীপাড়া গ্রামের জাহেদ আলীর স্ত্রী পারভীন বেগম।

বুধবার (১১ সেপ্টেম্বর) সকালে শ্রীবরদী  উপজেলার বকচর এলাকা ও ঝিনাইগাতী উপজেলার নলকুড়া ইউনিয়নের গজারীপাড়া গ্রামে পৃথক এ দুর্ঘটনা ঘটে।

এলাকাবাসী ও পু‌লিশ সূত্রে জানা যায়, শ্রীবরদী উপজেলার বকচর গ্রামের মৃত আশকর আলীর স্ত্রী হাজেরা বেগম বুধবার সকালে বসতঘরের বিদ্যুতের তারে আগুন দেখে সুইচ বন্ধ করতে যান। এ সময় বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হন তিনি। এক পর্যায়ে পুত্রবধূ লাভলী বেগম তাকে বিদ্যুতের সুইচ থেকে সরাতে গেলে তিনিও বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হন। এ ঘটনায় দুইজনই গুরুতর আহত হলে আশপাশের লোকজন তাদের উদ্ধার করে শ্রীবরদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। এ সময় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্তব্যরত চিকিৎসক হাজেরা বেগমকে মৃত ঘোষণা করেন এবং গুরুতর অবস্থায় লাভলী বেগমকে জেলা সদর হাসপাতালে প্রেরণ করেন।

এ দিকে, ঝিনাইগাতী উপজেলার নলকুড়া ইউনিয়নের গজারীপাড়া গ্রামের জাহেদ আলীর স্ত্রী পারভীন বেগম নিজ ঘরের ফ্যানের সুইচ দিতে গিয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে গুরুতর আহত হন। পরে আহতাবস্থায় তাকে ঘটনাস্থল থে‌কে উদ্ধার করে পরিবারের লোকজন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক (আরএমও) ডা. অহিদ ইকবাল তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

শ্রীবরদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. রহুল আমিন তালুকদার ও ঝিনাইগাতী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবু বক্কর ছিদ্দিক ঘটনা দুইটির সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

ওডি/আইএইচএন

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মো: তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড