• বৃহস্পতিবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৯, ৩০ কার্তিক ১৪২৬  |   ২৬ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

সিলেটের কিনব্রিজে মুগ্ধ মার্কিন রাষ্ট্রদূত

  সিলেট প্রতিনিধি

০৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১৭:৪৬
মার্কিন রাষ্ট্রদূত আর্ল রবার্ট মিলার
সিলেটের ঐতিহ্যবাহী কিনব্রিজ সেতুতে হাঁটছেন মার্কিন রাষ্ট্রদূত আর্ল রবার্ট মিলার (ছবি : দৈনিক অধিকার)

সিলেটের ঐতিহ্যবাহী কিনব্রিজ ও আলী আমজাদের ঘড়ি দেখে মুগ্ধতা প্রকাশ করেছেন ঢাকায় নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত আর্ল রবার্ট মিলার। তিনি কিনব্রিজকে বিশ্বের দীর্ঘতম ও পায়ে হাঁটার ব্রিজ বলে মন্তব্য করেছেন। কিনব্রিজকে রক্ষায় সিলেট সিটি করপোরেশনের উদ্যোগের ভূয়সী প্রশংসা করেন তিনি। একই সঙ্গে এ ব্রিজটিকে রক্ষায় মার্কিন সহযোগিতার আশ্বাস প্রদান করেন তিনি। 

ঢাকায় নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত আর্ল রবার্ট মিলার বলেছেন, রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশের পাশে আছে যুক্তরাষ্ট্র, ভবিষ্যতেও থাকবে। রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতে মিয়ানমারের ওপর আন্তর্জাতিক চাপ সৃষ্টি করতে হবে। যুক্তরাষ্ট্র এ লক্ষ্যে কাজও করছে।

মঙ্গলবার (৩ সেপ্টেম্বর) দুপুরে সিলেটের ঐতিহাসিক কিনব্রিজ পরিদর্শন শেষে তিনি সাংবাদিকদের এ কথা বলেন। 

মার্কিন রাষ্ট্রদূত আরও বলেন, রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতে ও তাদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে মিয়ানমারকে তাদের দেশে সু পরিবেশ তৈরি করতে হবে। যাতে রোহিঙ্গারা ফিরে যেতে উদ্বুদ্ধ হন এবং সেখানে গিয়ে নিরাপদে বসবাস করতে পারেন। রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতে মিয়ানমারের ওপর বিশ্ব সম্প্রদায়ের চতুর্মুখি চাপ অব্যাহত রাখতে হবে। সেটা যুক্তরাষ্ট্রসহ অন্যান্য আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় করে আসছে। 

সিলেটের সুরমা নদীতে স্থাপিত ব্রিটিশ আমলের তৈরি ঐতিহ্যবাহী কিনব্রিজ ও আলী আমজাদের ঘড়ি দেখে মুগ্ধ হন মার্কিন রাষ্ট্রদূত। কিনব্রিজ টিকিয়ে রাখতে সিলেট সিটি করপোরেশনের উদ্যোগকে স্বাগত জানান এবং ব্রিজটির রক্ষণাবেক্ষণে মার্কিন সরকারের সহায়তার আশ্বাস দিয়েছেন। তিনি কিনব্রিজকে পৃথিবীর অন্যতম দীর্ঘ পায়ে হাঁটার ব্রিজ বলে মন্তব্যও করেছেন। সিলেট সফরকালে মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১১টায় কিনব্রিজ পরিদর্শন করেন বাংলাদেশে নিযুক্ত মার্কিন এ রাষ্ট্রদূত।  

(ছবি : দৈনিক অধিকার)

আলী আমজাদের ঘড়িঘর দেখতে সিলেটে মার্কিন রাষ্ট্রদূত (ছবি : দৈনিক অধিকার)

ব্রিটিশ আমলের তৈরি এ বিখ্যাত নিদর্শন কিনব্রিজ দীর্ঘদিন ধরে সংস্কার না হওয়ায় যান চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। সংস্কারের জন্য ১ সেপ্টেম্বর থেকে কিনব্রিজ দিয়ে যান চলাচল বন্ধ রেখেছে সিটি করপোরেশন। সংস্কার শেষে কিনব্রিজ সেতুটি যানবাহন চলাচলের জন্য উন্মুক্ত না করে শুধু পায়ে হেঁটে চলার প্রস্তাব করেছে সিটি করপোরেশনের প্রকৌশল দপ্তর। আর এতে করে এটি পৃথিবীর দীর্ঘতম পায়ে হাঁটার ব্রিজের স্বীকৃতি পেল।

সিটি করপোরেশনের জনসংযোগ দপ্তর জানায়, আজ বেলা সাড়ে ১১টায় মার্কিন রাষ্ট্রদূত আর্ল রবার্ট মিলার কিনব্রিজ পরিদর্শনে যান। পরিদর্শনকালে পায়ে হাঁটার বিষয়টি তাকে অবহিত করেন মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী। রাষ্ট্রদূত তখন সেতুর উত্তর পাড়ে গাড়ি থেকে নেমে পায়ে হেঁটে সেতুর দক্ষিণ পাড় পর্যন্ত ঘুরে দেখেন। 

সেতু পার হওয়ার সময় রাষ্ট্রদূতকে মেয়র বলেন, কিনব্রিজ সেতুটি এই অঞ্চলের প্রথম সেতু। এটি বর্তমানে ঐতিহাসিক নিদর্শন হিসেবে বিবেচিত হচ্ছে। এটি সংরক্ষণ করার চিন্তাভাবনা থেকে ভবিষ্যতে শুধু পায়ে হেঁটে চলাচলের জন্য সিদ্ধান্ত নেওয়া হচ্ছে। 

কিনব্রিজ পরিদর্শন করে মার্কিন রাষ্ট্রদূত আলী আমজাদের ঘড়িঘর দেখতে যান। এ সময় আলী আমজাদের ঘড়িঘর স্থাপনের প্রেক্ষাপট তাকে জানানো হলে তিনি তখনকার সময়ে ঘড়ির ভূমিকাকে আরেক সচেতনতা বলে মুগ্ধতা প্রকাশ করেন। রাষ্ট্রদূতকে তখন ঘড়ির ঘণ্টা ধ্বনি বাজিয়ে শোনানো হয়। 

মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী বলেন, আমরা ঐতিহ্যবাহী এই সেতু টিকিয়ে রাখার স্বার্থে শুধু পায়ে হাঁটার জন্য উন্মুক্ত রাখতে চাই। এটি করতে পারলে আমাদের এই কিনব্রিজ বিশ্বের একটি অনন্য স্থাপনা হবে, মার্কিন রাষ্ট্রদূতের মন্তব্যে তাই বোঝা গেল। 

ওডি/এএসএল

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মো: তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড