• বৃহস্পতিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৪ আশ্বিন ১৪২৬  |   ৩০ °সে
  • বেটা ভার্সন

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ভুল চিকিৎসায় প্রসূতির মৃত্যু

  ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি

১৭ আগস্ট ২০১৯, ১০:৫৭
ব্রাহ্মণবাড়িয়া
নিহতের লাশ (ছবি : দৈনিক অধিকার)

ভুল চিকিৎসায় ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় গর্ভের দুই সন্তানসহ রত্না বেগম (২৭) নামে এক প্রসূতির মৃত্যুর অভিযোগ পাওয়া গেছে।

শুক্রবার (১৬ আগস্ট) বিকালে বাঞ্ছারামপুর উপজেলা সদরে ‘তিতাস ইউনিটি হাসপাতাল’ নামে এক বেসরকারি ক্লিনিকে এ ঘটনা ঘটে। নিহত প্রসূতি ওই উপজেলার পাড়াতলি গ্রামের জামির মিয়া জাকিরের স্ত্রী।

এই ঘটনায় বাঞ্ছারামপুর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন প্রসূতির স্বামী। মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, পাড়াতলি গ্রামের জামির মিয়া জাকিরের স্ত্রী রত্নাকে শুক্রবার সকালে প্রসববেদনা উঠলে তিতাস ইউনিটি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে নেওয়ার পর রত্নাকে ভর্তি করানোর জন্য বলেন হাসপাতালের মালিক মো. এমরানুল হক ওরফে আশেক এমরান। হাসপাতালে ভর্তি করানোর পর রত্নার শারীরিক কিছু পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর তার গর্ভে দুই সন্তান রয়েছে বলে জানানো হয়।

পরে বিকাল ৪টার দিকে এমরান ও হাসপাতালের নার্স নাছরিন আক্তার মিলে রত্নাকে অস্ত্রোপচার কক্ষে নিয়ে যান।

এরপর এমরান অস্ত্রোপচার কক্ষ থেকে বের হয়ে জামিরকে হাসপাতালের তৃতীয় তলায় নিয়ে গিয়ে বলেন রত্নাকে অ্যাম্বুলেন্সে করে ঢাকায় নিয়ে যেতে হবে।

পরবর্তীতে এমরান, ডা. জাহিদ ও নার্স নাসরিন রত্নাকে মৃত অবস্থায় অস্ত্রোপচার কক্ষ থেকে বের করে মরদেহ গুম করার চেষ্টা করেন বলে অভিযোগ করেন রত্নার স্বজনরা।

প্রসূতির স্বামী জাকির সাংবাদিকদের কাছে অভিযোগ করে বলেন, ভুল চিকিৎসা করে আমার স্ত্রীকে মেরে ফেলা হয়েছে। আমি এ বিষয়ে থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছি।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন বাঞ্ছারামপুর মডেল থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সালাউদ্দিন চৌধুরী।

ওডি/এমবি
 

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মো: তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড