• সোমবার, ১৯ আগস্ট ২০১৯, ৪ ভাদ্র ১৪২৬  |   ৩৪ °সে
  • বেটা ভার্সন

সালিশ থেকে ‘ধর্ষককে’ ছিনিয়ে নেওয়ার ঘটনায় গ্রেফতার ১

  ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি

১৪ আগস্ট ২০১৯, ১০:৫৮
গ্রেফতার
থানা ভবন ( ছবি : দৈনিক অধিকার)

ঠাকুরগাঁওয়ে প্রেমের ফাঁদে ফেলে মাদ্রাসাছাত্রীকে ‘ধর্ষণের’ সময় হাতে নাতে ‘ধর্ষককে’ আটকের পর সালিশ বৈঠক থেকে ধর্ষককে ছিনতাইয়ের ঘটনায় শাহজালাল (২৫) নামে এক যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বুধবার (১৪ আগস্ট) তাকে গ্রেফতার করা হয় পুলিশ।

গ্রেফতার শাহজালাল জেলার বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার ভানোর ইউনিয়নের বোয়ালধার গ্রামের দবিরুল ইসলামের ছেলে। 

এ ঘটনায় মঙ্গলবার (১৩ আগস্ট) সন্ধ্যায় ধর্ষণে অভিযুক্ত মনসুর আলীসহ (২৫) আরও ১২ জনের নাম উল্লেখ করে মামলা করেছেন মাদ্রাসাছাত্রীর বাবা। 

অভিযুক্ত মনসুর আলী (২৫) ঢাকা কলেজের সমাজ বিজ্ঞান বিভাগের তৃতীয় বর্ষের ছাত্র ও জেলার বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার ভানোর ইউনিয়নের বোয়ালধার গ্রামের সাইদুর রহমানের ছেলে। 

মামলার অন্যান্য আসামিরা হলো- একই গ্রামের আব্দুল গণির ছেলে দুলাল হোসেন (৩০), জুয়েল রানা (২১), আজগর আলীর ছেলে সাদ্দাম হোসেন (৩০), শামীম হোসেন (২৮), খলিলুর রহমানের ছেলে শাহিনুর (২৫), দবিরুল ইসলামের ছেলে শাহজালাল (২৫), সাইদুর রহমানের ছেলে উজ্জল (১৮), হাসান আলীর ছেলে রব্বানী (৩০), মখলেসুর রহমানের ছেলে রেজাউল হক (২৫), মৃত মহিম উদ্দীনে ছেলে আঃ গণি (৪০) এবং রাণশীংকৈল থানার নেকমরদ গ্রামের দবিরুল ইসলামের ছেলে আশরাফুল হক (৩০)। 

মামলার বিবরণ ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, মাদ্রাসাছাত্রী ও কলেজছাত্র মনসুর আলীর মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে প্রেম চলছিল। ঈদের কলেজ ছুটিতে বাসায় এসে সোমবার (১২ আগস্ট) রাত ২টার সময় মাদরাসা ছাত্রীর সঙ্গে দেখা করতে তার ঘরে গোপনে প্রবেশ করে মনসুর। গভীর রাতে মাদরাসা ছাত্রীর মুখ চেপে ধরে তাকে ধর্ষণ করে। ঘটনার টের পেয়ে মাদরাসা ছাত্রীর পরিবারের লোকজন তাকে হাতে নাতে আটক করে। 

মাদ্রাসা ছাত্রীর চাচা জানান, ঈদের দিন সোমবার সন্ধ্যায় বিষয়টি নিয়ে মীমাংসা করার জন্য মাদ্রাসা ছাত্রীর বাড়িতে বৈঠকে বসে দুই পরিবারের লোকজন। হঠাৎ মামলার আসামিরা অতর্কিত হামলা চালিয়ে ঘরের দরজার তালা ভেঙে মনসুর আলীকে ছিনতাই করে নিয়ে যায়। 

মামলার বাদী মাদ্রাসা ছাত্রীর বাবা জানান, মোবাইল ফোনে হুমকি দিচ্ছে আসামি পক্ষের লোকজন। মামলা তুলে না নিলে তারা ধর্ষক মনসুর আলীকে লুকিয়ে রেখে অপহরণ মামলা দায়ের করবে। 

এ ব্যাপারে বালিয়াডাঙ্গী থানার ওসি (তদন্ত) সাইফুল ইসলাম জানান, মেয়ের বাবা বাদী হয়ে ১২ জনের নাম উল্লেখ এবং চার/পাঁচ জনকে অজ্ঞাত আসামি করে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় মামলা দায়ের করেছেন। মামলার ১২নম্বর আসামি শাহজালালকে গ্রেফতার করে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। বাকি আসামিদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে।

ওডি/ এফইউ

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মোঃ তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৮-২০১৯

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড