• মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০১৯, ১ শ্রাবণ ১৪২৬  |   ২৭ °সে
  • বেটা ভার্সন

স্বামী পরিত্যক্তা কোহিনুরকে থানায় ডেকে পেটাল পুলিশ কর্মকর্তা

  বগুড়া প্রতিনিধি

১২ জুলাই ২০১৯, ২২:৩৪
এএসআই শাহানুর রহমান
এএসআই শাহানুর রহমান (ছবি : সংগৃহীত)

বগুড়ার ধুনটে স্বামী পরিত্যক্তা দুই সন্তানের মা কোহিনুর খাতুনকে (৪২) থানায় এসে পিটিয়েছে এক পুলিশ কর্মকর্তা।

শুক্রবার (১২ জুলাই) দুপুরে ধুনট থানায় এ ঘটনা ঘটে। আহত ওই নারী ধুনট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা নিচ্ছেন।

চিকিৎসাধীন কোহিনুর খাতুন জানান, তিনি শহরের নাটাইপাড়া বৌ-বাজার এলাকার জাবেদ আলীর মেয়ে। স্বামী পরিত্যক্তা ও দুই সন্তানের মা। কোহিনুর জেলা জজ কোর্টের সামনে খাবারের দোকান দিয়ে জীবিকা নির্বাহ করে আসছেন। সে সুবাদে ২০১০ সালে বগুড়া পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে কর্মরত থাকা অবস্থায় এএসআই শাহানুর রহমানের সঙ্গে কোহিনুরের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। শাহানুর সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর উপজেলার পোতাজিয়া গ্রামের হবিবর রহমানের ছেলে। কোহিনুরের বাসায় শাহানুরের অবাধ যাতায়াত ছিল। ওই সময় শাহানুর কৌশলে কোহিনুরের কাছ থেকে ৬০ হাজার টাকা নেয়। ২০১৬ সালের নভেম্বরে শাহানুর বগুড়া থেকে বদলি হয়ে ধুনট থানায় যোগ দেন এবং কোহিনুরের সঙ্গে যোগাযোগ বন্ধ করে দেন। দীর্ঘ দিনেও পাওনা না পেয়ে দুই মাস আগে এএসআই শাহানুরকে উকিল নোটিশ দেন কোহিনুর। খবর পেয়ে শাহানুর এক সপ্তাহ আগে কোহিনুরকে ৬০ হাজার টাকা দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে ধুনট থানায় আসতে বলেন।

কোহিনুর আরও জানান, শুক্রবার সকাল ১১টায় পাওনা টাকার জন্য তিনি ধুনট থানায় যান। দুজনের মধ্যে প্রথমে কথা কাটাকাটি, পরে এক পর্যায়ে কোহিনুরকে পিটিয়ে থানা থেকে বের করে দেন শাহানুর। কোহিনুর ধুনট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা নিতে গেলে সেখানেও পেটাতে থাকেন শাহানুর। এ সময় স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করান।

এ বিষয়ে ধুনট থানার এএসআই শাহানুর রহমান বলেন, দীর্ঘ দিন ধরে কোহিনুর আমাকে মামলার ভয় দেখিয়ে টাকা আদায়ের চেষ্টা করেছিলেন। অবশেষে ঝামেলা এড়াতে তাকে ৬০ হাজার টাকা দিয়ে আপোষ নামায় স্বাক্ষর নেওয়া হয়েছে। তারপরও থানায় এসে আমাকে মামলার ভয়ভীতি দেখালে ক্ষুব্ধ হয়ে তাকে চড়থাপ্পর মেরেছি।

ঘটনার সংবাদ পেয়ে দুপুরে বগুড়ার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোকবুল হোসেন ও গাজিউর রহমান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে এবং আহত কোহিনুরের চিকিৎসার খোঁজ নেন।

ধুনট থানার ওসি ইসমাইল হোসেন বলেন, এ ঘটনার সংবাদ পেয়ে জেলা পুলিশের ঊর্ধ্বতন দুই কর্মকর্তা ঘটনাস্থলে এসেছেন। তারা বিষয়টি খতিয়ে দেখছেন। তাদের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এ ঘটনার পর বিকেলে বগুড়ার পুলিশ সুপার (এসপি) আলী আশরাফ ভূঞার নির্দেশে এএসআই শাহানুরকে পুলিশ লাইনে ক্লোজ করা হয়েছে।

ওডি/এমআর

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
SELECT id,hl2,parent_cat_id,entry_time,tmp_photo FROM news WHERE ((spc_tags REGEXP '.*"location";s:[0-9]+:"ধুনট".*')) AND id<>74727 ORDER BY id DESC LIMIT 0,5

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মোঃ তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৮-২০১৯

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড