• মঙ্গলবার, ২২ অক্টোবর ২০১৯, ৬ কার্তিক ১৪২৬  |   ২৮ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

মধুপুর বনের জায়গা দখলের চেষ্টায় প্রভাবশালীরা

  মধুপুর প্রতিনিধি, টাঙ্গাইল

১২ জুলাই ২০১৯, ০৮:২৫
বনাঞ্চল
মধুপুর শাল গজারির বনাঞ্চল (ছবি : দৈনিক অধিকার)

টাঙ্গাইলের মধুপুর শাল গজারির বনাঞ্চল স্থানীয় প্রভাবশালী বনদস্যুরা দখল করার হুমকি দিচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে। মধুপুর বনের জাতীয় উদ্যানের রাজাবাড়ী বিটের আওতাধীন কিছু বনের জায়গা দখল করার অভিযোগ করেন প্লট উপকারভোগীরা। বনদস্যুদের অত্যাচার ও হুমকির কারণে আতঙ্কে দিন কাটাচ্ছেন তারা।

মধুপুর বনের জায়গায় রয়েছে জাতীয় উদ্যান, শিশু পার্ক ও সরকারি সামরিক বাহিনী বাংলাদেশ বিমান বাহিনীর ফায়ারিং রেঞ্জ রসুলপুর।

বনের জায়গা প্লট উপকারভোগী মধুপুর উপজেলার বেরীবাইদ ইউনিয়নের আদিবাসী বীনেশ হাগিদগ, বিনীতা, সুরেলা রেমা, মোসলেম, শাজাহানসহ আরও অনেকে অভিযোগ করে বলেন, স্থানীয় ময়মনসিংহ জেলার মুক্তাগাছা উপজেলার কাঠালিয়া গ্রামের মৃত আব্দুল মান্নান খন্দকারের ছেলে বাদশা খন্দকার, বছিরের ছেলে খোরশেদসহ একই উপজেলার পাহাড় পাবইজান গ্রামের হেকিম ম্যানেজারের ছেলে রমজান আলী আকন্দ, কালামের ছেলে সোলাইমান মৃত নবাব আলীর ছেলে নওশের আলী, এরা সকলেই স্থানীয় প্রভাবের কারণে বনের জায়গা জবর দখলের জন্য উঠে পড়ে লেগেছে।

এখানকার বিমানবাহিনীর লোকজনের নাম ভাঙিয়ে বনদস্যুরা বলেন, ‘বন বিভাগ তোদের যে প্লট দিয়েছে সেই প্লট বিমান বাহিনীর লোকজন আমাদের লিজ দিছে। তোরা বনের জায়গা ছেড়ে দে আমরা ফলের বাগান করব। আর যদি জায়গা আমাদের না দেস তাহলে বিঘা প্রতি সাড়ে ৪ হাজার করে টাকা দিতে হবে বলে দাবি করে। আর যদি টাকা না দেস তাহলে তোদের ওই জায়গা থেকে জোরপূর্বক তোদের উঠিয়ে দিব। তোদের বনের অফিসারগণও আমাদের ফিরাতে পারবে না।’

বনের প্লটের উপকারভোগী মধুপুর উপজেলার বেরীবাইদ ইউনিয়নের আদিবাসীরাসহ স্থানীয় এলাকাবাসীরা জানায়, আমরা সরকারের কাছে দাবি জানাই যে আমাদের এই মধুপুর বনের জায়গা যাতে বনদস্যুরা জবর দখল না করতে পারে তার জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হোক।

এ ব্যাপারে মধুপুর বনের জাতীয় উদ্যানের রাজাবাড়ী বিট কর্মকর্তা মো. জহিরুল ইসলাম জানান, মধুপুর গড়াঞ্চল একটি ইতিহাস ঐতিহ্যসমৃদ্ধ বনাঞ্চল। মধুপুর বনের প্রাকৃতিক পরিবেশ হারাতে বসেছে এই বনদস্যুদের কারণে। তাদের বিরুদ্ধে আইন অনুযায়ী প্রয়োজনীয় ব্যবস্থ্যা গ্রহণের প্রস্তুতি চলছে। এই বন বাংলাদেশের রাষ্ট্রীয় সম্পদ রক্ষার্থে স্থানীয় প্রশাসন, ধনবাড়ী-মধুপুরের এমপি বর্তমান কৃষি মন্ত্রী ড. মো. আব্দুর রাজ্জাকসহ বন মন্ত্রী এবং প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করছি।

ওডি/এসজেএ

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মো: তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড