• মঙ্গলবার, ২২ অক্টোবর ২০১৯, ৬ কার্তিক ১৪২৬  |   ২৬ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

আতঙ্কে নির্ঘুম রাত, গ্রাম ছাড়ছে নারী-পুরুষ

  এস. এম. রাসেল, মাদারীপুর

১৫ জুন ২০১৯, ১২:৪১
মাদারীপুর
শীর্ষ সন্ত্রাসী ও মাদককারবারি মোশাররফ ফকির

মাদারীপুর জেলার চরাঞ্চল অধ্যুষিত কালকিনি উপজেলার কয়ারিয়া ইউনিয়নের ৩টি গ্রামে শীর্ষ সন্ত্রাসী ও মাদককারবারি মোশাররফ ফকির ও তার বাহিনীর অত্যাচারে আতঙ্কে নির্ঘুম রাত কাটছে চর-আলিমাবাদ, সেলিমপুর ও রামচর গ্রামের প্রায় ১০ হাজার মানুষের। ভয়ে স্থানীয় একটি মসজিদ ও আত্মীয়দের বাড়িতে আশ্রয় নিয়ে রাত্রি যাপন করছেন তারা।

জানা গেছে, বিএনপির রাজনীতির সাথে জড়িত শীর্ষ মাদককারবারি, অবৈধ অস্ত্রধারী মোশাররফ ফকির ক্ষমতাসীন রাজনৈতিক ব্যক্তির মদদে এখন নব্য আওয়ামী লীগ সেজে এলাকায় তারা এ সব অপকর্ম করে যাচ্ছে। সম্প্রতি অস্ত্র, হত্যা ও চুরির মামলায় জামিনে ছাড়া পেয়ে এলাকায় ফিরে পুনরায় ত্রাস সৃষ্টি করেছে।

গত তিন দিনে ঐ এলাকার প্রায় ৫০-৬০ বাড়িতে ভাঙচুর ও লুটপাট চালিয়েছে মোশাররফ বাহিনী। মোশাররফের ভয়ে গ্রাম ছেড়ে শহরে অন্যত্র বসবাস করছে কালাম ফকির, ফিরোজ ফকির, বাবুল ফকির, রাসেল ফকির, সবুজ হাওলাদার, জাকির ফকির, ইব্রাহিম শিকদার, আকবার ফকির, সানাউল ফকির, দুলাল ফকির, মাইনুদ্দিন হাওলাদার ও নুরুল আমিন ফকিরসহ প্রায় ৫০টি পরিবার।

মোশাররফ ও তার বাহিনীর দাপটে চর আলিমাবাদ গ্রামের মানুষ নির্ঘুম রাত পাড়ি দিচ্ছে। এই গ্রামের শতাধিক কৃষক পরিবার সন্ত্রাসীদের ভয়ে আতঙ্কে জীবন-যাপন করছেন।

চর আলিমাবাদে বাড়ি দখল, পুকুর দখল, বসত বাড়ি-ঘর ভাঙচুর, নগদ অর্থ ও আসবাবপত্র লুটপাট, হুমকি-ধামকি, মারপিট গ্রাম থেকে বের করে দেয়াসহ বিভিন্ন প্রকার অন্যায় ও অত্যাচারের সাথে জড়িত এই মোশাররফ বাহিনী।

মোশাররফ ফকিরের অন্যায়, অত্যাচারের হাত থেকে রক্ষার জন্য গ্রামের শান্তি প্রিয় সাধারণ মানুষগুলো ও ভুক্তভোগী পরিবার রাজনৈতিক ব্যক্তি ও পুলিশ প্রশাসনের কাছে প্রতিকার চেয়েও পাচ্ছে না।

ভুক্তভোগী ইব্রাহিম শিকদার জানান, চর আলিমাবাদ গ্রামের শতাধিক মানুষ মাদারীপুর জেলার পুলিশ সুপারের নিকট অভিযোগ করেন এবং এই শীর্ষ সন্ত্রাসী মোশাররফ ফকিরের নিকট থেকে অন্যায় ও অত্যাচারের প্রতিকার চান।

কৃষকদের অভিযোগ, এবার নানা প্রতিকূলতা সত্ত্বেও আমরা কৃষকরা ধানের ভালো ফলন পেয়েছি। এ সব গৃহস্থের বাড়ি লুটপাট করার জন্য পাঁয়তারা চলছে। তাছাড়া গ্রামে বাস করতে হলে তাদের মোটা অঙ্ক চাঁদা দিতে হবে। চাঁদা না দিলে তাদের প্রাণনাশের হুমকিও দেওয়া হয়।

বিভিন্ন তথ্য মতে, মোশাররফ বাহিনী দীর্ঘদিন ধরে আধিপত্যের জন্য এলাকায় বিভিন্ন অপকর্ম চালিয়ে আসছে। চর আলিমাবাদ গ্রামের অনেক কৃষক ও সাধারণ শান্তি প্রিয় পরিবারগুলো তাদের অত্যাচারে অতিষ্ঠ। সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে মামলা করলেই তাদের বাড়িঘর লুটপাট ও প্রাণে মেরে ফেলার এবং গ্রাম ছাড়ার হুমকি দিয়ে আসছে।

সম্প্রতি মোশাররফ ফকিরকে আটক করে জেলহাজতে প্রেরণ করলে এলাকায় শান্তিপূর্ণ অবস্থা বিরাজ করছিল।

চর আলিমাবাদ গ্রামের কৃষক জাকির ফকির বলেন, এলাকার হাজার হাজার মানুষ তাদের অপকর্মের সাক্ষী। তাদের অত্যাচারে গ্রামের মানুষের দেয়ালে পিঠ ঠেকে গেছে। আমরা এখন গ্রাম ছাড়া। ওদের ভয়ে কেউ গ্রামে থাকতে পারছে না।

কালকিনির থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. মোফাজ্জেল হোসেন জানান, এলাকা দুর্গম হওয়ার পরেও আমাদের অভিযান অব্যাহত রেখেছি। পুলিশ ওই এলাকায় পৌঁছানোর আগেই তারা খবর পেয়ে পার্শ্ববর্তী উপজেলার চলে যায়। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ফিরে এলে আবারও তারা এলাকায় ফিরে এসে এলাকাবাসীর ওপর চড়াও হয়।

ওডি/আরবি

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মো: তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড