• মঙ্গলবার, ২০ আগস্ট ২০১৯, ৫ ভাদ্র ১৪২৬  |   ৩১ °সে
  • বেটা ভার্সন

পাবনায় স্বামীর নির্যাতনে স্ত্রী লাইফ সাপোর্টে 

  সারাদেশ ডেস্ক

২৫ মে ২০১৯, ২১:৩৯
মাহমুদা আক্তার মিম
স্বামী পিন্টু প্রামাণিক ও স্ত্রী মাহমুদা আক্তার মিম ( ছবি : সংগৃহীত )

যৌতুকের দাবিতে স্বামীসহ শ্বশুরবাড়ির লোকজনের নির্যাতনে হাসপাতালে মৃত্যুর সঙ্গে লড়ছেন গৃহবধূ মাহমুদা আক্তার মিম (২৮)। গত ৫দিন ধরে তাকে রাজশাহীর একটি বেসরকারি হাসপাতালের আইসিইউতে লাইফ সাপোর্টে রাখা হয়েছে। এমন ঘটনা ঘটেছে পাবনা সদর উপজেলার রাজইমণ্ডল গ্রামে। 

মাহমুদা আক্তার মিম সদর উপজেলার আতাইকুলা উপজেলার থানার কুচিয়ামোড়া গ্রামের আব্দুল মমিন মণ্ডলের মেয়ে এবং একই উপজেলার রাজইমণ্ডল গ্রামের পল্লীচিকিৎসক পিন্টু প্রামাণিকের স্ত্রী। 

মিমের স্বজনরা জানান, ১০ বছর আগে রাজাইমণ্ডল গ্রামের চকির প্রামাণিকের মেয়ে মিমের বিয়ে হয় পল্লীচিকিৎসক পিন্টু প্রামাণিকের সঙ্গে। বিয়ের পর যৌতুকের দাবিসহ নানা কারণে স্বামী পিন্টুসহ শ্বশুরবাড়ির লোকজন নির্যাতন করে আসছিল। এরই ধারাবাহিকতায় গত ২১ মে রাতে মিমকে মারধর করে পিন্টুসহ তার পরিবারের অন্য সদস্যরা। 

মাহমুদা আক্তার মিমের গলা, মুখ এবং মাথায় আঘাতের চিহৃ রয়েছে। এছাড়া মিমের একটি চোখ নষ্ট হয়ে গেছে। গলায় ওড়না পেঁচিয়ে ফাঁস দেয়ায় শ্বাসনালী মারাত্মক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। গত পাঁচদিনেও মিমের জ্ঞান ফেরেনি বলে জানা তার পরিবার। 

এ ঘটনায় মিমের বড় ভাই মেহেদী হাসান বাদী হয়ে স্বামী পিন্টুসহ ছয়জনকে আসামি করে আতাইকুলা থানায় মামলা দায়ের করেন। 

আতাইকুলা থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনিরুজ্জামান ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, আসামিরা পলাতক রয়েছে। তাদের গ্রেফতার করতে পুলিশের একাধিক টিম কাজ করছে।

ওডি/এসএএফ 

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মোঃ তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৮-২০১৯

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড