• বুধবার, ২৬ জুন ২০১৯, ১২ আষাঢ় ১৪২৬  |   ৩০ °সে
  • বেটা ভার্সন

এবার মুলা ধ্বংস করলেন হতাশ কৃষক

  পাবনা প্রতিনিধি

২০ মে ২০১৯, ১৭:০৭
মুলা ক্ষেত
ট্রাক্টর দিয়ে মুলা ক্ষেত ধ্বংসের সময় পাশেই দাঁড়িয়ে দেখছেন চাষি (ছবি : দৈনিক অধিকার)

বাজারে দাম ও চাহিদা না থাকায় উৎপাদিত মুলার ক্ষেত ধ্বংস করে দিলেন পাবনার ঈশ্বরদী উপজেলার কয়েকজন কৃষক। সলিমপুর ইউনিয়নের সরদার পাড়ায় মুলা চাষি শামসুল সরদার, দুলাল প্রামানিক, আশাদুল খান, পলাশ হোসেন ও মুরাদ প্রামানিক ট্রাক্টর দিয়ে চাষ করে মাটিতে মিশিয়ে দিয়েছেন তাদের ১৯ বিঘা জমির চাষ করা মুলা। 

সোমবার (২০ মে) সকালে ঈশ্বরদী উপজেলার সলিমপুর ইউনিয়নের ভাড়ইমারী সরদার পাড়ায় গিয়ে দেখা গেছে, কৃষকের মাঠে উৎপাদিত মুলা ট্রাক্টর দিয়ে চাষ করে ধ্বংস করে দেওয়া হচ্ছে। মূল্য ও চাহিদা না থাকায় ক্ষোভে কৃষক তাদের উৎপাদিত মুলা চাষ দিয়ে ধ্বংস করে ফেলছেন চাষিরা। 

(ছবি : দৈনিক অধিকার)

ট্রাক্টর দিয়ে মুলা ক্ষেত ধ্বংস (ছবি : দৈনিক অধিকার)

মুলা চাষি শামসুল সরদার বলেন, অনেক কষ্ট করে রোদ-বৃষ্টিতে ভিজে সবজি উৎপাদন করেছিলাম। কিন্তু বাজারে মূল্য ও চাহিদা না থাকায় মুলা ট্রাক্টর দিয়ে ধ্বংস করে দিতে বাধ্য হচ্ছি। তিনি আরও জানান, মাঠ থেকে তুলে বাজারে বিক্রি করে যে টাকা পাওয়া যায় তার থেকে খরচ বেশি হওয়াতে কৃষক মুলা তুলছেন না।

চাষি দুলাল প্রামানিক জানান, এক বিঘা জমিতে মুলা উৎপাদনে ৩০ হাজার টাকা খরচ হয়ে থাকে। কিছুদিন আগে এক বিঘা জমির মুলা ৬০ হাজার টাকায় বিক্রি হয়েছে। সবজির চাহিদা কমে যাওয়ায় এখন ব্যাপারীরা মুলা কিনতেও আসছেন না।  

সলিমপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল মজিদ বাবলু মালিথা বলেন, সলিমপুর উপজেলার মধ্যে সবজি উৎপাদন খ্যাত এলাকা হিসেবে পরিচিত। এই অঞ্চলে সবচেয়ে ভালো সবজি উৎপাদন হয়ে থাকে। প্রথম দিকে মুলা চাষিরা মুলা বিক্রি করে টাকা আয় করলেও এখন চাহিদা না থাকায় ব্যাপারীরা মুলা কিনছেন না। এ অঞ্চলের মুলা চাষিরা মুলা ক্ষেতে ট্রাক্টর দিয়ে চাষ দিয়ে ধ্বংস করে দিচ্ছেন। 

(ছবি : দৈনিক অধিকার)

ট্রাক্টর চালিয়ে মুলা ক্ষেত ধ্বংস করছেন চালক (ছবি : দৈনিক অধিকার)

ঈশ্বরদী উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ আব্দুল লতিফ বলেন, এখন মুলা উৎপাদনের সঠিক সময় নয়। যারা আগাম মুলা চাষ করেছিলেন তারা চড়া মূল্যে মুলা বিক্রি করে অনেক টাকা আয় করেছেন। ঈশ্বরদীতে প্রচুর পরিমাণে মুলা উৎপাদন হওয়াতে চাহিদা কমে গেছে। ব্যাপারী না আসাতে কিছু কৃষক তাদের মাঠের মুলা চাষ দিয়ে ধ্বংস করে দিচ্ছেন। 

উল্লেখ্য, গত ১২ মে টাঙ্গাইলে মালেক সিকদার নামে এক কৃষক ধানের ন্যায্য মূল্য না পেয়ে পাকা ধানের ক্ষেতে আগুন দিয়ে প্রতিবাদ জানান।  

ওডি/এএসএল

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
SELECT id,hl2,parent_cat_id,entry_time,tmp_photo FROM news WHERE ((spc_tags REGEXP '.*"location";s:[0-9]+:"ঈশ্বরদী".*')) AND id<>64484 ORDER BY id DESC LIMIT 0,5

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মোঃ তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৮-২০১৯

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড