• শনিবার, ২৪ আগস্ট ২০১৯, ৯ ভাদ্র ১৪২৬  |   ২৮ °সে
  • বেটা ভার্সন

সংস্কারের নামে খেলার মাঠের বেহাল দশা 

  নাগরপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি

১৯ মে ২০১৯, ১৮:২১
খেলার মাঠ
খেলার মাঠে মাটির স্তূপ( ছবি : দৈনিক অধিকার )

টাঙ্গাইলের নাগরপুর উপজেলায় ঐতিহ্যবাহী ধুবড়িয়া ছেফাতুল্লাহ উচ্চ বিদ্যালয় খেলার মাঠ। যা স্থানীয়ভাবে ধুবড়িয়া মাঠ হিসেবে পরিচিত। বাংলাদেশ জাতীয় ফুটবল দলের সাবেক অধিনায়ক খোরশেদ আলম বাবুল, বিপিএল মাতানো হার্ড হিটার ব্যাটসম্যান নাজমুল হক মিলন এই মাঠেরই খেলোয়াড়। অথচ মাঠ সংস্কারের নামে প্রায় তিন মাস ধরে মাঠের সব ধরণের খেলা বন্ধ রয়েছে। রমজান মাসের জন্য স্কুল কলেজ বন্ধ থাকায় বিকাল হলে ছোট থেকে বড়রা ছুটে আসে খেলার মাঠে। ফুটবল, ক্রিকেট খেলা ছাড়াও শরীর চর্চা করতে আসে নানা শ্রেণি-পেশার মানুষ। 

কিন্তু প্রায় তিন মাস ধরে টাঙ্গাইলের নাগরপুরের ধুবড়িয়া খেলার মাঠটি এখন অযত্ন আর অবহেলায় পড়ে আছে। ১৭-১৮ অর্থ বছরে গ্রামীণ অবকাঠামো উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় ৯ টন খাদ্যের বিনিময়ে মাঠটি সংস্কারের কাজ দেয় উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিস।

মাঠটির বিভিন্ন স্থানে বৃষ্টির পানি জমে থাকায় এটি মেরামতের জন্য তৎকালীন তথ্য প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম প্রকল্পটি বরাদ্দ দেন। এখন মাঠ মেরামতের নামে চলছে নানা অনিয়ম। মাঠের বিভিন্নস্থানে ট্রাক্টর দিয়ে মাটি ফেলে স্তূপ করে রেখেছে প্রকল্পের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক। 

প্রকল্পের সভাপতি শাহাবুল আলম দুলাল জানান, আমি এ প্রকল্পের সভাপতি থাকায় এ পর্যন্ত সোয়া পাঁচ টন মাল উত্তোলন করে সে মোতাবেক মাটি ফেলেছি। বরাদ্দকৃত বাকি মাল পেলে কাজ সম্পন্ন করবো। 

এ দিকে উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা বেগম শাহীন জানান, প্রকল্পে যে পরিমাণ মাল দেওয়া হয়েছে তার কিছুই এখন পর্যন্ত সম্পন্ন হয়নি। তাই পরের কিস্তির মাল ছাড়তে বিলম্ব হচ্ছে। তবে খুব দ্রুতই এর সমাধান হবে বলেও আশা জানান তিনি।

ওডি/এসএএফ 

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মোঃ তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৮-২০১৯

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড