• মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০১৯, ১১ আষাঢ় ১৪২৬  |   ৩৫ °সে
  • বেটা ভার্সন

সর্বশেষ :

মানিকছড়িতে তক্ষক পাচারকারী চক্রের ৫ সদস্য আটক

  মানিকছড়ি প্রতিনিধি, খাগড়াছড়ি

১৫ এপ্রিল ২০১৯, ২১:২১
খাগড়াছড়ি
আটককৃতরা

বন্যপ্রাণী তক্ষক বা টুট্যাং মহামূল্যবান সম্পদ এমন তথ্য প্রচার করে প্রতিনিয়ত পার্বত্য জেলা থেকে এসব নিরীহ প্রাণী পাচার করছিল একটি সংঘবদ্ধ সিন্ডিকেট। ১৫ এপ্রিল এমন একটি ঘটনার গোপন সংবাদ পেয়ে মানিকছড়ি থানা পুলিশ ওই সংঘবদ্ধ চক্রের ৫সদস্যকে একটি তক্ষকসহ গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়েছে।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, দীর্ঘদিন পার্বত্য জেলা রাঙ্গামাটি, বান্দরবান ও খাগড়াছড়ির পাহাড়ি জনপদ থেকে একটি শক্তিশালী বন্যপ্রাণী পাচারকারী চক্র সক্রিয় রয়েছে। তারা বিভিন্ন স্থানে বন্যপ্রাণী তক্ষক বা টুট্যাং মহামূল্যবান প্রাণী বলে অপপ্রচার চালিয়ে তা সংগ্রহ করে এবং ওই চক্রের সদস্যদের মাধ্যমে তা সমতলে পাচার করে লক্ষ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে। পুলিশসহ নিরাপত্তা বাহিনী থাকার পরও থেমে নেই তক্ষক বা টুট্যাং পাচার।

১৫ এপ্রিল সকাল সাড়ে ৯টায় মানিকছড়ি থানা পুলিশ গোপন সূত্রে খবর পায় যে, উপজেলা জামতলা এক প্রভাবশালী ছাত্রনেতার বাড়িতে তক্ষক বেচা-কেনা হচ্ছে। এমন খবর পেয়ে থানার এস.আই রিটন কান্তি রায় সঙ্গীয় র্ফোস নিয়ে ওই ছাত্রনেতা(উপজেলা ছাত্রলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি) মো. হাফিজুর রহমান (৩৩) এর বাড়িতে অভিযান চালিয়ে একটি তক্ষক ও এক নারী পাচারকারীসহ মোট ৫ ব্যক্তিকে আটক করতে সক্ষম হয়। 

পরে পুলিশ বাদী হয়ে বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ আইনে তাদের বিরুদ্ধে মামলা রুজু করেন। 

আটককৃতরা হলেন, মো. হাফিজুর রহমান (৩৩), মো. বেলাল হোসেন (৩২) ,কা ন মালা (২৬), মানিকছড়ি ও সুবির গুপ্ত (৪২), স্বপন কান্তি নাথ(৪৫)। 

বিকালে উপজেলার গাড়িটানা বনবিভাগের ফরেস্টার মো. আনোয়ার হোসেন এর উপস্থিতিতে উদ্ধারকৃত তক্ষক বা টুট্যাংটিকে থানার পার্শ্বে অবমুক্ত করা হয় ।

ওডি/আরবি

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected]com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মোঃ তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৮-২০১৯

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড