• শনিবার, ২৩ মার্চ ২০১৯, ৯ চৈত্র ১৪২৫  |   ২৯ °সে
  • বেটা ভার্সন

হাতীবান্ধায় হায় হায় কোম্পানির ২ কর্মকর্তার কারাদণ্ড

  লালমনিরহাট প্রতিনিধি ১৪ মার্চ ২০১৯, ২২:০৫

কারাদণ্ড
কারাদণ্ড প্রাপ্ত হায় হায় কোম্পানির দুই কর্মকর্তা (ছবি : দৈনিক অধিকার)

লালমনিরহাটের হাতীবান্ধায় বৃহস্পতিবার (১৪ মার্চ) সন্ধ্যায় হায় হায় কোম্পানির দুই কর্মকর্তার দেড় বছর করে কারাদণ্ড দিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক।

সাজা প্রাপ্তরা হলেন মাদার সন হেলথ হুলরুলাল ডেভেলপমেন্ট সোসাইটির উপ ব্যবস্থাপক রেজাউল করিম ও নির্বাহী পরিচালক ডা. মফিজুল ইসলাম। 

রেজাউল করিম রংপুর জেলার কাউনিয়া উপজেলার নাজিরদহ গ্রামের আলতাফ হোসেনের ছেলে ও ডা. মফিজুল ইসলাম দিনাজপুর জেলার ঘোড়াঘাট উপজেলার বানীগঞ্জ গ্রামের ছামছুল হকের ছেলে। 

হাতীবান্ধা থানার এস আই নূর আলম বলেন, মাদার সন হেলথ হুলরুরাল ডেভেলপমেন্ট সোসাইটির দুই কর্মকর্তা রেজাউল করিম ও চিকিৎসক মফিজুল হক দীর্ঘদিন ধরে লালমনিরহাটের হাতীবান্ধা উপজেলার ১২ ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকার ৪৩ জন মহিলা স্বাস্থ্য সেবিকা নিয়োগ দেয়। 

এসব স্বাস্থ্য সেবিকাদের দিয়ে এলাকার অশিক্ষিত, অসেচতন, সহজ সরল লোকদের চিকিৎসা সেবার নামে মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নিলেও তাদেরকে কোন বেতন দেওয়া হত না। বেতন না পাওয়ায় উক্ত সেবিকারা ওই দুই কর্মকর্তাকে আটক করে পুলিশকে খবর দেয়। 

পুলিশ এসে তাদের প্রতিষ্ঠানের কোন বৈধ কাগজপত্র না পাওয়ায় আটক করে তাদেরকে ভ্রাম্যমাণ আদালতে সোপর্দ করেন। ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক, নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও ইউএনও সামিউল আমিন ভ্রাম্যমাণ আদালতে উভয়ের দেড় বছর করে সাজার আদেশ প্রদান করেন। রায়ের পর আসামিরা থানা হেফাজতে রয়েছে। 

এ সময় হাতীবান্ধা উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. রমজান আলী উপস্থিত ছিলেন।

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৮-২০১৯

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড