• শনিবার, ২৩ মার্চ ২০১৯, ৯ চৈত্র ১৪২৫  |   ২৯ °সে
  • বেটা ভার্সন

চুয়াডাঙ্গায় ওয়ান্টেড সন্ত্রাসী ইমরান ও সহযোগী লিটুর লাশ উদ্ধার

  চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি ১৪ মার্চ ২০১৯, ১০:১২

চুয়াডাঙ্গা
নিহত ইমরান ও সহযোগী লিটু

 


চুয়াডাঙ্গা জেলা পুলিশের মোস্ট ওয়ান্টেড শীর্ষ সন্ত্রাসী ইমরান হোসেনের (২৭) গুলিবিদ্ধ মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১৪ মার্চ) সকালে জেলার জীবননগর উপজেলার উথলী মোল্লাবাড়ি গ্রামের একটি বাগান থেকে তার গুলিবিদ্ধ মরদেহ উদ্ধার করে জীবননগর থানা পুলিশ। 

নিহত ইমরান হোসেন আলমডাঙ্গা উপজেলার কলেজ পাড়ার মৃত অবসরপ্রাপ্ত পুলিশ কনস্টেবল আব্দুর রহমানের ছেলে। 

পুলিশ জানায়, উথলী মোল্লাবাড়ি গ্রামের কৃষকরা সকালে মাঠে কাজ করতে গেলে ডিঙ্গেখালী মাঠের একটি ইপিল ইপিল বাগানের মধ্যে গুলিবিদ্ধ একজনের মরদেহ পড়ে থাকতে দেখে। পরে খবর দেয় জীবননগর থানা পুলিশকে। খবর পেয়ে সকাল সাড়ে ৯ টার দিকে ঘটনাস্থল থেকে নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়। পরে নিহতের পরিবারের সদস্যরা ইমরানের মরদেহ সনাক্ত করে। 

জীবননগর থানার অফিসার ইনচার্জ শেখ গণি জানান, নিজেদের মধ্যে অভ্যন্তরীণ কোন্দলে ইমরান হোসেন খুন হতে পারেন। অজ্ঞাত দুর্বৃত্তরা তার মাথায় ও বুকে গুলি করে হত্যা করেছে। হত্যার কারণ ও খুনীদের সনাক্ত করতে পুলিশি অনুসন্ধান ইতিমধ্যে শুরু হয়েছে। 

সহকারী পুলিশ সুপার (দামুড়হুদা জীবননগর সার্কেল) আবু রাসেল জানান, নিহত ইমরান চুয়াডাঙ্গা জেলা পুলিশের মোস্ট ওয়ান্টেড। তার বিরুদ্ধে ডাকাতি, ছিনতাই, অস্ত্র ব্যবসা এবং নারী ও শিশু নির্যাতন মামলাসহ ১৪টি মামলা রয়েছে। তাকে গ্রেফতারের জন্য পুলিশ দীর্ঘদিন হন্য হয়ে খুঁজছিলো।

অপরদিকে, নিহত ইমরানের আরেক সহযোগী লিটু নামে এক যুবকের গুলিবিদ্ধ মরদেহও পড়ে থাকার খবর পাওয়া গেছে। সে চুয়াডাঙ্গার-ঝিনাইদহ সীমান্তের মহেশপুর অংশে নিহত হয়েছে বলে জানা গেছে।

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৮-২০১৯

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড