• শুক্রবার, ২২ মার্চ ২০১৯, ৮ চৈত্র ১৪২৫  |   ২৭ °সে
  • বেটা ভার্সন

অ্যাম্বুলেন্সে বসে মাস্টার্স পরীক্ষা দেওয়া মেয়েটি পেল ১ম বিভাগ

  পঞ্চগড় প্রতিনিধি ১৪ মার্চ ২০১৯, ০৭:৫৮

পঞ্চগড়
অ্যাম্বুলেন্সে বসে মাস্টার্স পরীক্ষা দিচ্ছে আজমেরী আক্তার

কথায় আছে 'ইচ্ছে থাকলে উপায় হয়' আর তেমনি  আজমেরীর প্রবল ইচ্ছে ছিল পড়াশোনা করার। তিনি প্রসব বেদনা নিয়ে অ্যাম্বুলেন্সে বসে মাস্টার্স ২০১৬ সালের পরীক্ষায় আজমেরী আক্তার জিপিএ ৩.৩৪ পেয়ে উত্তীর্ন হয়। 

তিনি পঞ্চগড় মকবুলার রহমান সরকারি কলেজে হিসাববিজ্ঞান বিভাগে মাস্টার্স  পরীক্ষার্থী ছিলেন। পরীক্ষা চলাকালীন তার প্রসব বেদনা উঠে। পরে পরিবারের লোকজন তাকে রাতে পঞ্চগড় মা ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্রে ভর্তি করেন। পরদিন সকালে তার মাস্টার্স চূড়ান্ত পর্বের পরীক্ষা শেষ করেন।

জানা গেছে, স্বামীর বাড়ি জেলার তেঁতুলিয়া উপজেলার আজিজনগর গ্রামে। স্বামী নূরনবী ইসলাম পেশায় সেনাবাহিনীর সদস্য। তিন বছর আগে তাদের পারিবারিকভাবে বিয়ে হয়। লেখাপড়ার প্রতি প্রবল আগ্রহের কারণে অন্ত:স্বত্ত্বা অবস্থায়ও তিনি পড়াশুনা বাদ দেননি। 

তিনি দৈনিক অধিকারকে বলেন, টানা তিন ঘন্টা পরীক্ষা দেয়ার পর প্রসব বেদনা বাড়লে আর লিখতে পারেনি আমি। পরে আমাকে পুনরায় পঞ্চগড় মা ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্রে ভর্তি করা হয়। পরর্বতীতে রাতে আমার ছেলে সন্তান প্রসব হয়। তিনি আরো বলেন,আমার কষ্ট করে পরীক্ষা দেওয়া স্বার্থক হয়েছে। আমি খুব ভালো রেজাল্ট করেছি, তাই ভালো লাগছে।

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৮-২০১৯

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড