• রবিবার, ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ৫ ফাল্গুন ১৪২৫  |   ২৩ °সে
  • বেটা ভার্সন

সর্বশেষ : মানিকগঞ্জের সিঙ্গাইরে বিপুল পরিমাণ বোমা ও বোমা তৈরির সরঞ্জামসহ ১ জনকে আটক করেছে র‍্যাব

রূপসায় জেলা শ্রমিক লীগ নেতার বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন

  রূপসা প্রতিনিধি, খুলনা ১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৭:৫৭

সংবাদ সম্মেলন
সংবাদ সম্মেলন বক্তব্য রাখছেন আন্তঃজেলা বাস শ্রমিক ইউনিয়নের এডহক কমিটির আহ্বায়ক কুতুব উদ্দিন (ছবি : দৈনিক অধিকার)

খুলনা জেলা শ্রমিক লীগের সভাপতি বিএম জাফরের বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন করেছে রূপসা বাগেরহাট আন্তঃজেলা বাস শ্রমিক ইউনিয়নের এডহক কমিটির আহ্বায়ক কুতুব উদ্দিন। 

মঙ্গলবার (১২ ফেব্রুয়ারি) শ্রমিক লীগ নেতার চাঁদাবাজি, সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড থেকে বাঁচতে ও বিএম জাফরের বিচার চেয়ে রূপসা প্রেস ক্লাবে এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেন ভুক্তভোগীরা।

সংবাদ সম্মেলনে ভুক্তভোগী শ্রমিক নেতা কুতুব উদ্দিন অভিযোগ করে বলেন, জেলা শ্রমিক লীগের সভাপতি বিএম জাফর বিভিন্ন কায়দায় দলের নেতাদের ভয়ভীতি দেখিয়ে জিম্মি করে লাখ লাখ টাকা চাঁদাবাজি করে আসছিল। 

সংবাদ সম্মেলনে এ সময় বলা হয়, ধুরন্ধর প্রকৃতির অর্থ লোভী স্বেচ্ছাচারী বি এম জাফর আগে ছিল বাংলাদেশ ম্যাচ কোম্পানির একজন সাধারণ শ্রমিক। তারপর থেকে তার নামের পূর্বে বি এম শব্দটি সংযোজিত হয়েছে। তিনি বিগত ৫ বছরে বিভিন্ন সময় ৬ জনকে বহিষ্কার করেছেন। 

তিনি আরও বলেন আপনারা জেনে অবাক হবেন যে, তিনি সংগঠনের স্বঘোষিত সভাপতি। শ্রমিক ইউনিয়নের অনুমোদিত গঠন তন্ত্রের ১৯ এর ধারা অনুযায়ী ২ বছরের জন্য কমিটি গঠিত হয়। সেই হিসেবে কমিটির মেয়াদ গত বছরের ৩০ জুন শেষ হয়। গঠন তন্ত্রের ১৮ ধারা অনুযায়ী কার্যনির্বাহী কমিটি নির্বাচন অনুষ্ঠানের লক্ষ্যে নির্বাচনের পূর্বেই একটি সাব কমিটি গঠন করবে। সেই কমিটি কার্যনির্বাহী কমিটির অনুমোদন সাপেক্ষে নির্বাচন পরিচালনা করবে। কিন্তু তিনি গঠন তত্ত্বের বর্ণিত আইন কানুন উপেক্ষা করে রূপসা বাগেরহাট আন্তঃজেলা সড়ক শ্রমিক ইউনিয়নের সমস্ত সদস্যদের সঞ্চিত তহবিল যা কার্যনির্বাহী কমিটির কাছে আমানত হিসেবে থাকে। যার পরিমাণ ছিল ১ কোটি ২৯ লাখ ২৪ হাজার টাকা। কিন্তু তিনি সেই অর্থ ইউনিয়নের তহবিলে জমা না করে প্রতারণার মাধ্যমে সম্পূর্ণ অর্থ আত্মসাৎ করেন। যে কারণে মোটর শ্রমিকেরা আজ ক্ষুব্ধ হয়ে উঠেছেন। 

এছাড়া ঘাট মাঝি শ্রমিক ইউনিয়নের নির্বাচনে প্রার্থীদের জয়ী করার প্রলোভন দেখিয়ে ৫ লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন বলে অভিযোগ করেছেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক হারেজ মাঝি। তিনি মাঝি সংগঠনের কাছ থেকে ১ হাজার ও ভ্যান রিকশা শ্রমিক সংগঠনের কাছ থেকে প্রতিদিন ৮০০ টাকা চাঁদা গ্রহণ করেছেন। এছাড়া সাধারণ বাস মালিকদের ভয় দেখিয়ে হাতিয়ে নিয়েছেন লাখ লাখ টাকা। 

রূপসার জনৈক সালমা বেগমের গাড়ির রোটেশন বন্ধ করার ভয় দেখিয়ে তার কাছ থেকে হাতিয়ে নিয়েছেন ১ লাখ ৫০ হাজার টাকা। একইভাবে বাস মালিক হারুন মোল্লার কাছ থেকে হাতিয়ে নেন ১ লাখ ৫০ হাজার টাকা এবং আব্দুস সালামের কাছ থেকে হাতিয়ে নিয়েছেন ৩ লাখ টাকা। 

এডহক কমিটির আহ্বায়ক কুতুব উদ্দিন সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে করে বলেন, আপনারা জাতির বিবেক আপনাদের লেখনীর মাধ্যমে বি এম জাফরের প্রকৃত রূপ জনসম্মুখে উপস্থাপন করে শ্রমিক সমাজের পাশে থাকবেন বলে আমাদের প্রত্যাশা। 

এ সময় উপস্থিত ছিলেন শ্রমিক লীগ নেতা আজগার আলি শেখ, মহিউদ্দিন চৌধুরী, মো. বাবুল শিকদার প্রমুখ।

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৮-২০১৯

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড