• রবিবার, ১৮ আগস্ট ২০১৯, ৩ ভাদ্র ১৪২৬  |   ২৯ °সে
  • বেটা ভার্সন

সর্বশেষ :

জিয়ার পরিচয় তিনি বঙ্গবন্ধুর হত্যাকারী : রেলমন্ত্রী||কলকাতায় চিকিৎসা করাতে যাওয়া ২ বাংলাদেশিকে পিষে মারল জাগুয়ার||ছাত্রদলের সভাপতি-সাধারণ সম্পাদক পদের ফরম বিক্রি শুরু ||ইহুদিবাদী ইসরায়েলের প্রস্তাব নাকচ করে দিল মার্কিন সাংসদ||ভারতকে অবিলম্বে কাশ্মীরের কারফিউ তুলতে বলেছে ওআইসি||‘তদন্ত করতে হবে কেন এসব অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটছে’||ইউক্রেনের হোটেলে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে ৮ জনের প্রাণহানি||‘অগ্নিকাণ্ডে কেউ চাপা পড়েছে কিনা তল্লাশি চলছে’ ||মুক্তিপ্রাপ্ত ইরানের সুপার ট্যাঙ্কারটি আটকে এবার যুক্তরাষ্ট্রের ওয়ারেন্ট জারি||অবৈধ অভিবাসন ইস্যুতে ঢাকায় আসছেন ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী  
eid

বাসাইলে কলেজ ছাত্রী ইভটিজিং এর অভিযোগ, আটক ১

  বাসাইল প্রতিনিধি, টাঙ্গাইল

১১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ২১:৩২
টাঙ্গাইল
আটককৃত সোহেল মিয়া

টাঙ্গাইলের বাসাইল উপজেলার বিলপাড়া গ্রামে কলেজ ছাত্রী সুমনাকে (১৭) ইভটিজিং  ও মারধরের অভিযোগে একজনকে আটক করা হয়েছে। আটককৃত ব্যাক্তির নাম সোহেল মিয়া (৩০)। সে একই গ্রামের মাহফুজুর রহমানের ছেলে। 

সোমবার (১১ ফেব্রুয়ারি) সুমনার মা বাদী হয়ে বাসাইল থানায় বখাটে সোহেলের নামে নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মামলা দায়ের করে। এ ঘটনায় পুলিশ সোহেলকে গ্রেফতার করে জেলহাজতে প্রেরণ করেছে।

উল্লেখ্য যে, সুমনার বাবা বিলপাড়া গ্রামের সংবাদপত্র বিক্রেতা। গত ৮ফেব্রুয়ারি ভোর রাতে তিনি মারা যান।

তবে পরিবারে অভিযোগ বখাটে কর্তৃক সুমনার ইভটিজিং এর বিচার দাবিতে তার বাবা গ্রাম্য মাতাব্বরসহ বিভিন্ন দপ্তরে গিয়েও কাঙ্খিত ফল পাননি। এতে তিনি মানসিক ভাবে ভেঙ্গে পরেন। 

গত ৮ ফেব্রুয়ারি শুক্রবার ভোর রাতে স্ট্রোক করে তিনি মারা যান। মৃত্যুর আগেও বার বার তার কষ্টের কথা বলে গেছেন স্বজনদের কাছে। এমন মৃত্যু মেনে নিতে পারছেন না শাহজাহানের স্বজনরা। বার বার মূর্ছা যাচ্ছেন তার স্ত্রী ও কন্যাসহ পরিবারের সদস্যরা। এ ঘটনায় বখাটে সোহেলের কঠোর শাস্তি দাবি করেছেন তারা।

হত দরিদ্র শাহজাহান সংবাদপত্র বিক্রির আয় দিয়ে সংসার চালাতেন। সুমনা বাসাইল সরকারি জোবেদা-রুবেয়া মহিলা কলেজের একাদশ শ্রেণীর ছাত্রী। একই এলাকার মাহফুজুর রহমানের বখাটে ছেলে সোহেল মিয়া প্রায়ই রাস্তাঘাটে সুমনাকে উত্যক্ত করতো। প্রেমের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় সম্প্রতি সোহেল সুমনাকে মারধর করে।

তিনি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে অভিযোগ দায়ের করেন। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা গত ৬ ফেব্রুয়ারি দু’পক্ষকে ডেকে শুনানি করেন। পরে কাঞ্চনপুর ও হাবলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানদের বিষয় সমাধানের দায়িত্ব দেন। এরপর থেকেই মূলত শাহজাহান ভেঙে পড়েন। 

থানা ও উপজেলা প্রশাসনের কাছ থেকে বিচার না পেয়ে তিনি বিমর্ষ হয়ে যান। কন্যার উপর নির্যাতনের বিচার আর কখনও পাবেন না এমন বদ্ধমূল ধারণা থেকে গত ৮ ফেব্রুয়ারি শুক্রবার ভোর রাতে স্ট্রোক করে তিনি মারা যান। গত ১০ ফেব্রুয়ারি সমস্ত ঘটনা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে স্থানীয় ভাবে ছড়িয়ে পরে।

বাসাইল উপজেলা নির্বাহী অফিসার শামছুন্নাহার স্বপ্না জানান, সুমনার বাবার আবেদনের প্রেক্ষিতে আমি দুই পক্ষকে ডেকে শুনানি করেছি। বিষয়টি সমাধানের প্রক্রিয়াধীন অবস্থায় সুমনার বাবা মারা যায়। 

বাসাইল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এস.এম. তুহিন আলী জানান, সুমনার ইভটিজিং এবং তার বাবার মৃত্যুর বিষয়ে থানায় কোন অভিযোগ করা হয়েছিল না। সোমবার সুমনার মা বাদী হয়ে মামলা দায়ের করে এবং তার প্রেক্ষিতে পুলিশ সোহেলকে গ্রেফতার করে এবং বিকেলে টাঙ্গাইল জেলহাজতে প্রেরণ করে।
 

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মোঃ তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৮-২০১৯

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড