বিদ্যুৎ কর্মকর্তাকে পিটিয়ে এমপি পুত্র জেলে

প্রকাশ : ১০ জানুয়ারি ২০১৯, ২১:১০

  কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি

কুড়িগ্রামে পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলীকে তার অফিসে মারধর করার ঘটনায় দায়েরকৃত মামলায় জাহেদুল ইসলাম সবুজ নামের এক জনকে গ্রেফতার করে কারাগারে পাঠিয়েছে সদর থানা পুলিশ। 

পুলিশ বৃহস্পতিবার (১০ জানুয়ারি) দুপুরে তাকে জেলা শহরের নতুন স্টেশন এলাকা থেকে গ্রেফতার করে আদালতে সোপর্দ করে। আদালত তাকে জেল হাজতে পাঠানোর আদেশ প্রদান করে।

গ্রেফতারকৃত জাহেদুল ইসলাম সবুজ সাবেক এমপি, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মো. জাফর আলীর কনিষ্ঠ ছেলে।   

মামলার বাদী কুড়িগ্রাম-লালমনিরহাট পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির সহকারী জেনারেল ম্যানেজার (প্রশাসন) মো. তাহমিদুর রহমান জানান, বেশ কিছুদিন থেকে জাহেদুল ইসলাম সবুজ পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. জুলফিকার আলীকে নানা বিষয় নিয়ে অনৈতিক আবেদনসহ ভয়ভীতি প্রদর্শন করে আসছিলেন। বিষয়টি সুরাহার জন্য ওই নির্বাহী প্রকৌশলী সবুজের পরিবারকে অবহিত করেন। এতে আরও ক্ষিপ্ত হয়ে মঙ্গলবার (৮ জানুয়ারি) দুপুর ২ টার দিকে সবুজ তার সঙ্গী-সাথিদের নিয়ে সদর উপজেলার ত্রিমোহনী এলাকায় অবস্থিত পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির প্রধান কার্যালয়ে যায়। 

এ সময় তৃতীয় তলায় অবস্থিত নির্বাহী প্রকৌশলীর অফিস কক্ষে প্রবেশ করে ভেতরের দিকে দরজা বন্ধ করে দিয়ে তাকে কিল-ঘুষি-লাথি মারে। এতে আহত নির্বাহী প্রকৌশলী অসুস্থ হলে হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে ওই দিন বিকালে ঘটনাটি লিখিতভাবে সমিতির জেনারেল ম্যানেজার স্বদেশ কুমার ঘোষকে জানিয়ে কুড়িগ্রাম ছেড়ে চলে যান। 

নির্বাহী প্রকৌশলীর এই অভিযোগের ওপর ভিত্তি করে সমিতি এবং পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ডের নির্দেশ ক্রমে তিনি বাদী হয়ে ৪ জনের নাম উল্লেখপূর্বক অজ্ঞাতনামা আরও ১০-১৫ জনকে আসামি করে থানায় এজাহার দায়ের করেন। 

এ ব্যাপারে সদর থানার অফিসার ইনচার্জ মো. মাহফুজার রহমান জানান, এজাহারটি বুধবার (৯ জানুয়ারি) মামলা হিসেবে রেকর্ড করা হয়েছে। এছাড়া এজাহারের এক নম্বর আসামি সবুজকে গ্রেফতার করে আদালতে সোপর্দ করলে আদালত তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। মামলার অন্যান্য আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।