• বুধবার, ২৯ মে ২০২৪, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১  |   ৩০ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

অনিয়মের মধ্য দিয়েই চলছে রাস্তার কাজ, নজর নেই এলজিইডি’র

  সাইদুজ্জামান সাগর, রাণীনগর (নওগাঁ):

১৩ মে ২০২৪, ১৫:৫০
ইউনি ব্লক

নওগাঁর রাণীনগরে নানা অনিয়মের মধ্য দিয়ে চলিয়ে যাচ্ছে ইউনি ব্লকের রাস্তা নির্মাণ কাজ। রহস্যজনক কারণে নজর দিচ্ছে না স্থানী এলজিইডি অফিস। অভিযোগ উঠেছে, কাজের শুরু থেকেই ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান ও উপজেলা এলজিইডি অফিসের যোগসাজসে নিন্মমানের ইউনি ব্লক ও অন্যান্য নির্মাণ সামগ্রী দিয়ে অনিয়ম করে কাজ চালিয়ে যাচ্ছে। প্রতিবাদ করেও কোন প্রতিকার হচ্ছে না বলে জানিয়েছে স্থানীয়রা। এতে ক্ষুব্ধ ওই এলাকার বাসিন্দারা।

জানা যায়, উপজেলা সদরের রেল স্টেশন এলাকা থেকে রাজাপুর গ্রাম হয়ে রাণীনগর- আবাদপুকুর সড়ক পর্যন্ত ও দক্ষিণ রাজাপুর মোড় থেকে মিনাপাড়া পর্যন্ত দুই কিলোমিটার পাকা রাস্তা বেহাল দশায় পরিণত হয়েছিল। দুর্ভোগ থেকে রক্ষা পেতে আধুনিক রাস্তা নির্মাণে ওই দুই কিলোমিটার রাস্তা ইউনি ব্লক দিয়ে নির্মাণের জন্য গত ২০২৩ সালের জুন মাসে এলজিইডি থেকে টেন্ডার দেওয়া হয়। ওই টেন্ডারে মেসার্স জেএস এন্টারপ্রাইজ নামে একটি ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান নির্মাণ কাজটি পায়। কাজের চুক্তি মূল্য ধরা হয় ১ কোটি ৩৪ লাখ ৯৭ হাজার ১৮৬ টাকা। কাজের মেয়াদকাল ছিল ওই বছরের শেষের দিকে। কিন্তু নির্ধারিত সময়ে কাজ শুরু এবং শেষ করতে পারেনি ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান। নির্মাণ কাজের সিডিউল চাইলে উপজেলা এলজিইডি অফিস থেকে তা দেওয়া হয়নি।

শনিবার সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, ইউনি ব্লক দিয়ে রাস্তার কাজ চলছে। তবে নির্মাণ কাজ চলা অবস্থায় কাজ তদারকির জন্য উপজেলা এলজিইডি অফিসের কাউকে দেখা যায়নি। এতে নির্মাণ কাজে ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগ করছেন স্থানীয় গন্যমাণ্য ব্যক্তিবর্গরা।

এ সময় স্থানীয় ইউপি সদস্য সাইফুল ইসলাম ক্ষোভ প্রকাশ করে গণমাধ্যমকর্মীদের বলেন, ঠিকাদারের লোকজন তাদের ইচ্ছে মত কাজ করে যাচ্ছে। নানা অনিয়মের বিষয়ে বার বার স্থানীয় এলজিইডি অফিসকে জানানো হলেও এলজিইডি অফিস থেকে কাজ দেখাশোনার জন্য কেউ আসে না। বাধ্য হয়ে উপজেলা চেয়ারম্যানকে জানিয়েছি।

স্থানীয় রফিকুল ইসলাম, মোহন, হামিদুল সহ অনেকেই জানান, রাস্তার দুইপাশে রেজিং ব্লক, রাস্তার ইউনি ব্লকগুলো নিন্মমানের। আবার রাস্তার মাঝে মাঝে ভাঙা ইউনি ব্লক দিচ্ছে। রাস্তায় ইউনি ব্লক দেওয়ার পর রাস্তার দুই সাইডে ফাঁকা রাখা হচ্ছে। সেখান সামান্য পরিমান সিমেন্ট ও বালির পরিমান বেশি দিয়ে ঢালাই দিচ্ছে। ওই ঢালাই হাতের আঙ্গুল দিয়ে আঁচর দিলেই উঠে যাচ্ছে। আবার কোথাও কোথাও ঢালাইয়ের বদলে শুধু বালি দিচ্ছে। এছাড়া রেজিংয়ের দুইপাশে অনেক স্থানে মাটিও দিচ্ছে না। আমরা এসব অনিয়মের বিষয়ে বার বার ঠিকাদারের লোকজনকে বললেও তারা কোনো কথা শুনছে না।

ঠিকাদার আব্দুস সালাম বলেন, নির্মাণ কাজে কোন অনিয়ম করা হচ্ছে না। সঠিকভাবে কাজ করা হচ্ছে।

রাণীনগর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আব্দুর রউফ দুলু বলেন, এক ইউপি সদস্য ওই রাস্তার কাজে অনিয়মের বিষয়ে অভিযোগ জানালে সঙ্গে সঙ্গে এলজিইডি অফিসকে সঠিকভাবে নির্মাণ কাজ করার নির্দেশ দিয়েছি।

নওগাঁ এলজিইডির নির্বাহী প্রকৌশলী তোফায়েল আহমেদ বলেন, ইউনি ব্লকের রাস্তা নির্মাণ কাজে অনিয়মের কিছু নেই। রাস্তার দুইপাশে ফাঁকা জায়গায় ঢালাইয়ে যদি কোনো সমস্যা থাকে তাহলে কাজের বিল দেওয়ার আগে সব ঠিক করে দেওয়া হবে।

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

নির্বাহী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118243, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড