• শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১  |   ৩৩ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

নির্বাচনী প্রার্থীকে নিয়ে ভোট চাইছেন সরকারি কর্মচারী!

  সোহেল রানা, সিরাজগঞ্জ:

২৭ এপ্রিল ২০২৪, ১২:৫২
সরকারি কর্মচারী

উপজেলা পরিষদ (নির্বাচন আচরণ) বিধিমালা ভঙ্গ করে সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে প্রকাশ্যে প্রার্থীকে নিয়ে গণসংযোগ, চা হোস্টেলে মিটিং, প্রকাশ্যে বক্তৃতাসহ নির্বাচনী প্রার্থীকে নিয়ে ভোট চাইছেন সদর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কার্যালয়ে কর্মরত স্যানিটারী ইন্সপেক্টর আব্দুল্লাহ আল মামুন।

উপজেলা পরিষদ (নির্বাচন আচারন) বিধিমালা-২০১৬ আইন ভঙ্গ করে একজন সরকারি কর্মচারীর এমন কর্মকান্ডে প্রতিন্দন্দ্বি প্রার্থীদের মধ্য নির্বাচনী আচরণ বিধি নিয়ে সংশয় দেখা দিয়েছে। সরকারি আইন অনুযায়ী এই কর্মচারী বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জোর দাবি জানান নির্বাচনী প্রতিন্দন্দ্বী প্রার্থীরা।

উপজেলা পরিষদ (নির্বাচন আচারন) বিধিমালা-২০১৬তে উল্লেখ আছে, সরকারি সুবিধাভোগী অতি গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি বা সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারী নির্বাচন পূর্ব সময়ে নির্বাচনী এলাকায় প্রচারণা বা নির্বাচনী কার্যক্রম করিতে পারিবেন না। তবে শর্ত থাকে যে, সরকারি কোন কর্মকর্তা বা কর্মচারী নির্বাচনী এলাকায় ভোটার হলে ঐ কর্মকর্তা-কর্মচারী শুধু ভোট প্রদান করতে পারবেন।

কিন্তু সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কার্যালয়ে কর্মরত স্যানিটারী ইন্সপেক্টর আব্দুল্লাহ আল মামুন (২৬ এপ্রিল ২০২৪), শুক্রবার উপজেলা নির্বাচনের আচারন বিধি ভঙ্গ করে ভাইস চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী জামাত আলী মুন্সিকে নিয়ে মেছড়া ইউনিয়নে বিভিন্ন হাটবাজারে সমাবেশে বক্তৃতা, প্রচারণা ও বাড়ি বাড়ি ভোট প্রার্থনা করে আসছে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হয়।

সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কার্যালয়ে কর্মরত স্যানিটারী ইন্সপেক্টর আব্দুল্লাহ আল মামুন এ বিষয়ে বলেন, আমি মেছড়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি। নৌকা প্রতীক না থাকায় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা যেকোন প্রার্থীর পক্ষে কাজ করতে পারে। নির্বাচনে প্রচারণায় কোনো আচরণ বিধি ভঙ্গ হচ্ছে না।

সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) ডা: জাহিদুল ইসলাম জানান, আজ শুক্রবার। ছুটির দিনে কর্মচারী অপরাধ করলে আমি কোনো ব্যবস্থা গ্রহণ করতে পারব না।

সিরাজগঞ্জ জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা মোহাম্মদ শহিদুল ইসলাম জানান, নির্বাচনী এলাকায় কোনো সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীরা ভোট প্রার্থনাসহ নির্বাচনী প্রার্থীর পক্ষে কোনো কার্যক্রম পরিচালনা করতে পারবে না। সরকারি কর্মকর্তা বা কর্মচারীরা নির্বাচনী প্রার্থীর কোনো কার্যক্রমে অংশগ্রহণ করলে তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

নির্বাহী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118243, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড