• মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ৩ বৈশাখ ১৪৩১  |   ২৭ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

শেরপুরে ফের চালককে হত্যা করে অটোরিক্সা ছিনতাই

  শাকিল মুরাদ, শেরপুর:

১৪ মার্চ ২০২৪, ১৫:৫৮
অটোরিক্সা ছিনতাই

দুইদিনের ব্যবধানে শেরপুরে ফের চালককে হত্যা করে অটোরিকশা ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটেছে। বৃহস্পতিবার (১৪মার্চ) দুপুরে জেলার নালিতাবাড়ী উপজেলার ঘাকপাড়া এলাকা থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

নিহত অটোরিকশা চালক মোশারফ হোসেন (৪২)। তিনি উপজেলার পিঠাপুনি গ্রামের সাফায়েত উল্লাহর ছেলে।

পরিবার ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, মোশারফ হোসেন অন্যান্য দিনের মতো বিকেলে বাড়ি ফিরে সন্ধ্যায় পরিবারের সবাইকে নিয়ে ইফতার করেন। এরপর ওষুধ ও বেগুন কেনার জন্য নিজের অটোরিকশা নিয়ে কাকরকান্দি বাজারে যান। রাত সাড়ে এগারোটা পর্যন্ত বাড়ি না ফেরায় স্ত্রী মাহমুদা বাড়ির লোকদের জানান এবং মোশারফের ব্যবহৃত মোবাইলে কল দিলে ফোনটি বন্ধ পান। পরে সকালে আত্মীয়-স্বজন মিলে আশপাশের এলাকায় খোঁজতে থাকেন। এক পযার্য়ে ঘাকপাড়া পাকা সড়কের পাশে ধানক্ষেত থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

নিহতের গলায় গামছা পেঁচানো ছিল। ধারণা করা হচ্ছে, অটোরিকশা ছিনতাইকারী চক্রের সদস্যরা মোশারফকে শ্বাসরোধ করে হত্যার পর মরদেহ ফেলে রেখে তার অটোরিকশা নিয়ে পালিয়ে গেছে।

নালিতাবাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনিরুল আলম ভূঁইয়া ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য জেলা সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ বিষয়ে পরবর্তী যথাযথ আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।

এর আগে, গত ১১ মার্চ রাতে জেলার নকলা উপজেলার দক্ষিণ নকলা এলাকার অটোরিকশা চালক আসাদুজ্জামান নিখোঁজ হলে ১২ মার্চ তার মরদেহ মাটিচাপা দেওয়া অবস্থায় নকলা-নালিতাবাড়ী মহাসড়কের চেপাকুড়ি ব্রিজ এলাকা থেকে উদ্ধার করে পুলিশ। পরে ঘটনায় জড়িত চারজনকে গ্রেফতার ও ছিনতাই হওয়া অটোরিকশা উদ্ধার করে।

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

নির্বাহী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118243, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড