• শনিবার, ০২ মার্চ ২০২৪, ১৮ ফাল্গুন ১৪৩০  |   ২৯ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

নামাজের জন্য ঘুম ভাঙাতে গিয়ে ছাত্রের হাতে মার খেলেন শিক্ষক

  কাজী শাহরিয়ার রুবেল, আমতলী (বরগুনা)

১৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৯:২৫
মার খেলেন শিক্ষক

বরগুনার আমতলী উপজেলায় নামাজ পড়তে ছাত্রদের ঘুম ভাঙাতে গিয়ে মারধরের শিকার হয়েছেন এক শিক্ষক। স্থানীয়রা আহত শিক্ষককে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে প্রেরণ করেছেন।

জানা গেছে, সোমবার (১২ ফেব্রুয়ারি) ভোরে আমতলী কওমিয়া হাফেজিয়া মাদরাসার শিক্ষক হাফেজ জামিল হোসেন রাফি ছাত্রদের নামাজের জন্য ঘুম ভাঙাতে যান। এতে ক্ষুব্দ হয়ে অত্র মাদরাসার ৬ষ্ঠ শ্রেণির ছাত্র হাফেজ ইমাম হোসেন (১৯) ও হাফেজ জিহাদ হোসেন (২০) শিক্ষকে গাছের গুঁড়ি দিয়ে বেধড়ক পিটিয়ে গুরুতর জখম করে মাদরাসা থেকে পালিয়ে যায়। আঘাতে শিক্ষক হাফেজ জামিল হোসেন রাফির কানের উপরের অংশ বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে।

আহত শিক্ষকের চিৎকার শুনে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করেন। আঘাতের অবস্থা মারাত্মক দেখে তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পাঠানো হয়। প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে শিক্ষক হাফেজ জামিল হোসেন রাফিকে উন্নত চিকিৎসার জন্য পটুয়াখালী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

আহত শিক্ষক হাফেজ জামিল হোসেন রাফি জানান, নামাজের জন্য তাদের ঘুম ভাঙাতে যাই। এতে হাফেজ ইমাম হোসেন ও হাফেজ জিহাদ হোসেন আমার প্রতি ক্ষিপ্ত হয়ে গাছের গুঁড়ি দিয়ে বেধড়ক পিটিয়ে গুরুতর জখম করে। আমার সাথে থাকা ৭ হাজার টাকা জোড়পূর্বক ছিনিয়ে নেয়। আমি তাদের আইনের আওতায় এনে উপযুক্ত শাস্তির দাবি করছি।

আমতলী কওমিয়া হাফেজিয়া মাদরাসার প্রিন্সিপাল মাওলানা ওমর ফারক বলেন, নামাজের জন্য ঘুম ভাঙাতে শিক্ষকে মারধর করার বিষয়টি লিখিতভাবে থানায় অভিযোগ করা হবে।

আমতলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কাজী সাখাওয়াত হোসেন তপু জানান, শিক্ষকে মারধরের কোন অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে উপযুক্ত প্রমানের ভিত্তিতে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

নির্বাহী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118243, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড