• বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৫ ফাল্গুন ১৪৩০  |   ১৬ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

রাজশাহীতে হুমকির মুখে কৃষক 

  রাফিকুর রহমান লালু, রাজশাহী

১২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৪:১৯
রাজশাহী

গত কয়েক বছর ধরে রাজশাহী অঞ্চল জুড়ে তিন ফসলি আবাদি জমিতে পুকুর খননের কাজ বেপরোয়া হয়ে উঠেছে। সংবদ্ধ চক্রের সদস্যরা মানছে না সরকারি নিষেধ। গত কয়েক বছর ধরে দিনের আলোতে এই সকল পুকুর খননের কাজ করে আসলেও এখন ভিন্ন দিকে ঘুরিয়ে নিয়েছে পুকুর খননের কাজ। স্থানীয় ইউপি সদস্য থেকে শুরু করে সংসদ সদস্য পর্যন্ত এই সকল অবৈধ কাজের সাথে জড়িয়ে পড়েছে।

সুত্র বলছে, রাজশাহী অঞ্চলে বোরো মৌসুমে প্রান্তিক কৃষকরা তাদের জমি হারিয়ে ভ্যানগাড়ি চালিয়ে অথবা অন্য পেশায় শ্রম দিয়ে জীবিকা সংগ্রহ করছেন। রাজশাহীর দুর্গাপুর উপজেলার কিসমত গণকৌড় ইউনিয়নের আড়োইল গ্রাম সংলগ্ন পোড়াদহ উত্তর ও পশ্চিম বিলে প্রতিদিন রাতের বেলায় অবৈধ পুকুর খননের কাজ চলমান রয়েছে। আড়োইল গ্রামের বাবু সোবাহান ও আলিম ছুটে আসেন সাংবাদিকদের নিকট। তারা সাক্ষাতকারে বলেন, উল্লেখিত বিলের তিন ফসলি জমিতে সন্ধ্যার পর অবাধে চলছে পুকুর খনন। তারা একাধিকবার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাসহ রাজশাহী জেলা প্রশাসককে ফোন করেছেন অবৈধ পুকুর খনন বন্ধের বিষয়ে।

তারা বলেন, উপজেলা সহকারি কমিশনার ভূমি এসে দেখে আবার চলে যান। কৃষকদের দাবি মাঝে মধ্যে দুই একটি অভিযান হলেও এখন রাতের বেলা পুকুর খননের নির্ধারিত সময় হিসেবে বেছে নিয়েছেন পুকুর খননকারি চক্রের সদস্যরা। কিছুদিন পূর্বে পুঠিয়া উপজেলার শিলমাড়িয়া ইউনিয়নের মঙ্গলপাড়া গোড়াগাছিতে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের তিন ফসলি জমিতে ডিপ টিউবয়েলের পাইপ উঠিয়ে পুকুর খনন করেন গোড়াগাছির হাসেম আলী ও দুলাল নামের ব্যক্তি।

প্রশাসন বলছে, এরা পুকুর খনন সিন্ডিকেটের সদস্য। আড়োইল বিলের পুকুর খননের মূল হোতা হিসেবে সোহেল ফিরোজ খলিল মিস্টার ও ইয়াছিন মেম্বার নামের ব্যক্তিকে সনাক্ত করেছে। তিন ফসলি জমির সাথে বরেন্দ্র ডিপ টিউবয়েলের পাইপ তুলে ফেলার বিষয় নিয়ে বরেন্দ্রের কোন পদক্ষেপ না থাকায় এক শ্রেণীর প্রান্তিক কৃষকরা ফুঁসে উঠেছে। তাদের দাবি, এই পুকুর খননকারিদের বিরুদ্ধে শক্ত কোন ব্যবস্থা গ্রহণ না করার কারণে তারা বেপরোয়া হয়ে উঠেছে।

দুর্গাপুর আড়োইল বিলের পুকুর খননের আইনগত ব্যবস্থার বিষয়ে জানতে রাজশাহীর জেলা প্রশাসক শামিম আহম্মেদকে মুঠো ফোনে ফোন দিলে তিনি বলেন, দুর্গাপুর এবং পুঠিয়ার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা প্রশিক্ষণে আছে তাই সেখানকার সহকারি কমিশনার ভূমিকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। তারা ঘটনাস্থলে গিয়েছেন এবং প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

নির্বাহী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118243, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড