• শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১১ ফাল্গুন ১৪৩০  |   ২০ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

অপহরণের ৬ ঘণ্টার মধ্যেই শিশুকে উদ্ধার করে বাবা-মায়ের কাছে ফেরত দিলো পুলিশ

  আব্দুর রহিম, স্টাফ রিপোর্টার, বান্দরবান

২৬ জানুয়ারি ২০২৪, ১৯:৪৪
অপহরণ

বান্দরবানের লামায় ৩য় শ্রেণি এক ছাত্রকে অপহরণ করে ১ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করা হয়। অপহৃত শিশুর বাবা-মা অপহরণের বিষয়টি বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত ১০টায় লামা থানাকে অবহিত করেন। থানায় অবহিত করার ৬ ঘন্টার মধ্যে পুলিশের সাঁড়াশি অভিযানে কক্সবাজার জেলার মহেশখালী উপজেলা হতে শিশুটিকে উদ্ধার করা হয়। এ সময় সামশুল আলম (৪০) নামের এক অপহরণকারী কে আটক করে লামা থানা পুলিশ।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলার ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়নের ৯ নম্বর ওয়ার্ড বনপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৩য় শ্রেণির ছাত্র তানজিমুল হক (১০)কে বৃহস্পতিবার দুপুর ২টার দিকে নিজ বাড়ি হতে তাদের বাড়িতে আশ্রিত সামশুল আলম অপহরণ করে নিয়ে যায়। পরে সন্ধ্যায় ১ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে। না হয় ছেলের মাথা কেটে উপহার পাঠাবে বলে হুমকি দেয়।

শিশু তানজিমুল হক ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়নের বনপুর বাজার এলাকার এহসানুল হক ও শাকেরা বেগম রহিমা এর ছেলে।

অপহরণকারী সামশুল আলম (৪০) কক্সবাজার জেলার মহেশখালী উপজেলার সদর ইউনিয়নের মাঝেরডেইল বইল্লা পাড়ার নুর আহমদ এর ছেলে। সে লামার বনপুর এলাকায় সবজি ও ছনের ব্যবসা করত এবং এখানে সে নিজেকে আবছার নামে পরিচয় দেয়।

অপহৃত শিশু তানজিমুল হকের মা শাকেরা বেগম রহিমা বলেন, বৃহস্পতিবার সকালে আমার ছেলে-মেয়েদের ঘরে রেখে আমরা স্বামী-স্ত্রী পারিবারিক কাজে বান্দরবানে যাই। বিকেল ৫টায় বাড়িতে ফিরে আসি। এসে দেখি ঘরে আমার ছেলে তানজিমুল হক নেই। সন্ধ্যা ৬ টায় আমার নাম্বারে সামশুল আলম ওরফে আবছার ফোন করে বলে সে আমার ছেলেকে নিয়ে গেছে। এই নাম্বারে বিকাশ ও নগদ আছে। বিকাশে ১ লাখ টাকা মুক্তিপণ না দিলে আমার বাচ্চা দিবে না। জবাই করে মেরে ফেলবে। কোন উপায় না দেখে আমরা রাত ১০ টায় লামা থানায় আসি। বিষয়টি লামা থানার অফিসার ইনচার্জকে জানালে তিনি দ্রুত পদক্ষেপ নেয় এবং সকাল না হতেই আমার বাচ্চা উদ্ধার করে। একইসাথে আসামীকে গ্রেফতার করেছেন। পুলিশের এমন সহযোগিতা আমার সারাজীবন মনে থাকবে।

এ বিষয়ে লামা থানা পুলিশের অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শামীম শেখ বলেন, রাতে শিশুটির বাবা-মা থানায় আসার সঙ্গে সঙ্গে আমরা বিষয়টি গুরুত্ব দিয়ে অভিযানে নেমে পড়ি। পরে আমাদের উপ-পরিদর্শক জুনাইদ হাসানের নেতৃত্বে তথ্য প্রযুক্তির ব্যবহার ও বিভিন্ন কৌশল অবলম্বন করে অভিযোগ পাওয়ার মাত্র ৬ ঘন্টার মধ্যে কক্সবাজার জেলার মহেশখালী উপজেলা হতে শিশু তানজিমুল হককে উদ্ধার ও অপহরণকারী সামশুল আলমকে গ্রেফতার হয়।

এ ঘটনায় শিশুটির মা শাকেরা বেগম রহিমা বাদী হয়ে অপরহরণের মামলা দায়ের করেছেন। আসামী সামশুল আলমকে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি গ্রহণে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে। এছাড়াও শিশুটিকে তার বাবা-মায়ের কাছে দেয়া হয়েছে। বাদীর অভিযোগের ভিত্তিতে লামা থানার মামলা নং-১১/১১, তারিখ-২৬/০১/২০২৪ইং, ধারা-নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন ২০০০ (সংশোধনী/২০০৩) এর ৭/৮/৩০ রুজু হয় বলে জানান তিনি।

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

নির্বাহী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118243, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড